ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ৫৫ মিনিট ৫৪ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ১ কার্তিক, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১৬ সফর, ১৪৪১

ক্রিকেট, লিড নিউজ আফগানিস্তানকে ২৮০ রানের লক্ষ্য দিয়েছে বাংলাদেশ

আফগানিস্তানকে ২৮০ রানের লক্ষ্য দিয়েছে বাংলাদেশ

তামিম ইকবালের সপ্তম সেঞ্চুরিতে ভর করে সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ওয়ানডে

তামিম ইকবালের সপ্তম সেঞ্চুরিতে ভর করে সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ওয়ানডে

০১ অক্টোবর, ২০১৬, নিরাপদনিউজ : তামিম ইকবালের সপ্তম সেঞ্চুরিতে ভর করে সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ওয়ানডেতে আফগানিস্তানকে ২৮০ রানের লক্ষ্য দিয়েছে বাংলাদেশ। শনিবার টসে জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে ৫০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৭৯ রান করে টাইগাররা।

উল্লেখ্য, তিন ম্যাচের এই সিরিজে একটি করে ম্যাচ জিতে সমতায় আছে আফগানিস্তান বাংলাদেশ। এছাড়া শনিবার জিততে পারলে এটি হবে ওয়ানডেতে বাংলাদেশের শততম জয়।

বাংলাদেশের দলীয় ২৩ রানে সৌম্য সরকারের উইকেটের পতনের পরে সাব্বির রহমানকে সঙ্গে নিয়ে রানের গতি বাড়িয়ে নিতে থাকেন তামিম। সাব্বির ও তামিমের মধ্যে ১৪০ রানের জুটি ভাঙ্গেন রহমত শাহ। ব্যাটে বলে টাইমিং না হওয়ায় নওরোজ মাঙ্গালের হাতে ধরা পড়ার আগে নিজের তৃতীয় অর্ধশত রান তুলে নিয়েছিলেন সাব্বির, ৭৯ বলে ৬টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৬৫। দলীয় ১৬৩ রানে সাব্বির ফেরত যাওয়ার পরে সাকিবের সঙ্গে তামিমের জুটি জমে ওঠে। দাওলাত জাদরানের করা ৩৭তম ওভারের প্রথম বলে সিঙ্গেল নিয়ে নিজের সপ্তম ওয়ানডে সেঞ্চুরিটি তুলে নেন তামিম।

৩৯তম ওভারে তামিম মোহাম্মদ নবীর বলে মারতে গিয়ে নাভিন উল হকের হাতে ধরা পড়েন। দলীয় রান তখন ২১২। ১১৮ বলে ১১৮ রানের ইনিংসের পথে ১১টি চার ও ‍২টি ছক্কা মেরেছেন তিনি। তামিম আউট হওয়ার পরে উইকেটে মড়ক লেগে যায়। মাত্র ১১ বলের ব্যবধানে তিন উইকেটের পতনে বাংলাদেশের বড় স্কোরের সম্ভাবনা স্তিমিত হয়ে যায়।

৪৩তম ওভারে দাওলাত জাদরানের করা প্রথম বলে উইকেটের পেছনে মোহাম্মদ শেহজাদের হাতে ধরা পড়ার আগে ১৭ রান করেছিলেন সাকিব। ৪৪তম ওভারের মুশফিকুর রহিম এলবিডব্লিউ হন রশিদ খানের বলে। একই ওভারের পঞ্চম বলে স্টাম্পিংয়ের শিকার হন মোসাদ্দেক। ৪৩তম ওভারের প্রথম বল থেকে ৪৪তম ওভারের পঞ্চম বল পর্যন্ত এই ১১ বলে তিন উইকেটের পতন হয় বাংলাদেশের।

দীর্ঘদিন পরে দলে ফেরা মোশাররফ ১৪ বল খেলে ৪ রান করে ফেরত যান। মিরওয়াইস আশরাফের করা শেষ ওভারে ১০ রান আসে বাংলাদেশের। আফগানিস্তানের মোহাম্মদ নবী, মিরওয়াইস আশরাফ ও রশিদ খান দুটি করে উইকেট নিয়েছেন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)