আপডেট জানুয়ারি ৩, ২০১৯

ঢাকা বুধবার, ৬ আষাঢ়, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ১৬ শাওয়াল, ১৪৪০

খুলনা, সড়ক সংবাদ আমতলীতে ব্রীজের উপর কাঠের পাঠাতন ২০ হাজার মানুষের চলাচলে চরম ভোগান্তি

আমতলীতে ব্রীজের উপর কাঠের পাঠাতন ২০ হাজার মানুষের চলাচলে চরম ভোগান্তি

নিরাপদনিউজ : বরগুনার আমতলী উপজেলার কুকুয়া ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের ইউনিয়ন পরিষদ , হাসপাতাল , কৃষি ব্যাংক সলগ্ন কুকুয়া গোছখালী খালের উপর ব্রীজটি মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে । কৃষ্ণনগর পাশ্ববর্তী চাওড়া ইউনিয়নের পাতাকাটা , হলদিয়া ইউনিয়নের রাওঘা গ্রামের ২০ হাজার মানুষের যোগাযোগের মাধ্যম কুকুয়া গোছখালী খালের উপর ব্রীজটি ভেঙ্গে যাওয়ায় জনসাধারনের দুভোর্গের কোনো শেষ নাই । ২০১১-২০১২ সালে এ আয়ন ব্রীজটি নির্মিত হয়েছিল । প্রায় ২ বছর পূর্বে ব্রীজটির স্লিপার ভেঙ্গে পড়ে যায়।

কুকুয়া ইউনিয়ন পরিষদ .কুকুয়া আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কোল ঘোঁষে ব্রীজটি ঝূঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে । ছোট ছোট শিক্ষার্থীরা ১৫০ শত ফিট লম্বা ব্রিজের উপর কাঠের পাঠাতন (সাকো) দিয়ে পার হয়ে স্কুল হাসপাতালে ব্যাংকে যাতায়াত করেন।

এতে যে কোন মুহূর্তে ঘটে যেতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। সরেজমিনে এ চিত্র দেখা গেছে । কুকুয়া আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. ফারুক বিএসসি বলেন, রাওঘা, কৃষ্ণনগর , পাতাকাটার অনেক ছেলে মেয়েরা স্কুলে আসে এই ঝূঁকিপূর্ণ এই ব্রিজ পার হয়ে । তিনি আরো বলেন, এ ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজ দিয়ে শুধু ছোট ছোট স্কুলগামী শিশুরাই নয়, প্রতিদিন প্রায় কয়েক হাজার মানুষ আসা যাওয়া করেন।

কুকুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো.বোরহান উদ্দিন আহমেদ মাসুম তালুকদার বলেন এ ব্রীজটি অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ন ব্রীজটি মেরামত করা খুব জরুরী । এব্যাপারে আমি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।

এ বিষয়ে আমতলী উপজেলার (এল.জি.ই.ডি) উপজেলা প্রকৌশলী মো. নজরুল ইসলাম বলেন সরেজমিন পরিদর্শন করে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করবো ।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)