ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ১ মিনিট ২৩ সেকেন্ড

ঢাকা বুধবার, ৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ২২ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১

প্রবাসী সংবাদ ইতালীতে সিলেট যুব সমাজের নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠান

ইতালীতে সিলেট যুব সমাজের নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠান

ইসমাইল হোসেন স্বপন. ইতালি প্রতিনিধি, নিরাপদ নিউজ: ইতালীস্থ বৃহত্তর সিলেট যুব সমাজের উদ্যোগে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভায় বক্তারা বলেছেন, যে দেশে গুণিজনের কদর হয় না সে দেশে গুণিজন জন্মে না। তাই আমাদের নৈতিক দায়িত্ব হচ্ছে ভাল মানুষ ও গুণিজনদের সম্মান করা।
আমাদের যুব সমাজ জাতির আশা-ভরসার কেন্দ্রস্থল। জাতীয় জীবনে যে কোন গুরুত্বপূর্ণ, যে কোন আপদকালীন মুহূর্তে যুবসমাজ অগ্রণী এবং সাহসী ভূমিকা পালন করতে পারে। ভরসা দিয়ে, শক্তি দিয়ে, মেধা দিয়ে, মনন দিয়ে এবং প্রতিভা দিয়ে, দেশে ও প্রবাসে প্রেরণা জুগিয়েছে যুব সমাজ। এ ত্যাগ ও সংগ্রামী চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে আমাদের বর্তমান যুব সমাজ দেশগঠনে স্মরণীয় ভূমিকা রাখতে পারে।
ইতালীস্হ বৃহত্তর সিলেট যুব সমাজ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে নাগরিক সংবর্ধনা দিয়েছে, তারা অবশ্যই সম্মানিত ব্যক্তিদের। সিলেটের কৃতি সন্তান বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল ও ডাঃ মাহি তারা নিজ জায়গা থেকে দেশের জন্য কাজ করে সম্মান বয়ে এনেছেন। তারা দেশ ও জাতির গর্বিত সন্তান।
গত সোমবার (২ সেপ্টেম্বর) ইতালীস্হ বৃহত্তর সিলেট যুব সমাজের আয়োজনে নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সিলেট মিলনায়তনের সত্বধিকারী বিশিষ্ট ব্যবসায়ী রেজাউর করিম রিপনের সভাপতিত্বে ও বিশিষ্ট সামাজিক ব্যাক্তিত্ব জামিল উদ্দিনের প্রাণবন্ত সঞ্চালনায় নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথিরা এ কথা বলেন।
অনুষ্ঠানের অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাঃ মাহি, এছাড়াও যুব সমাজের নেতৃবৃন্দদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এম ডি মজির উদ্দিন, এ টি এম শাহজাহান, আব্দুল মুকিত, আতিকুল ইসলাম, সফিকুল আলম, শেখ দেলোয়ার, খায়রুজ্জামান, দেলোয়ার হোসাইন, ছয়দুল ছালিক, সাকের আহমেদ, জুনেদ আহমেদ সহআরো অনেকেই।
এতে নেতৃবৃন্দরা তাদের বক্তব্যেতে বলেন, আমাদের আজকের সংবর্ধিত অতিথিরা বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের সম্মান বাড়িয়েছে। এই সম্মান শুধু সিলেটবাসীর জন্য নয়, সমগ্র দেশবাসির।
সংবর্ধিত অতিথি সিলেটের কৃতি সন্তান শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল বলেছেন, সিলেটবাসীর সার্থে তরুণ বয়স থেকে কাজ করে আসছি এবং এখনো করে যাচ্ছি। যার ফল স্বরূপ আজকের এই আপনাদের দেওয়া সম্মাননা। এটি আমার নয় বৃহত্তর সিলেটেবাসীর। আর আমি মনে করি সিলেট বাসীর সম্মান মানে সারা দেশের সম্মান।
তিনি আরও বলেন, বৃহত্তর সিলেট যুব সমাজের মধ্যেমে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সুন্দর সমাজ গঠনের লক্ষ্যে কাজ করার আহবান জানান পাশাপাশি সিলেটেল স্মরনীয় ও বরণীয়দের স্মৃতি রক্ষার্থে যেমনি কাজ করবে তেমনি বৃহত্তর সিলেটের সূর্য সন্তানদেরকে এই ধরণের সংবর্ধনার মাধ্যমে সম্মানিত করবেন বলে আশা ব্যাক্ত করেন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)