আপডেট ১ মিনিট ২ সেকেন্ড

ঢাকা সোমবার, ১ আশ্বিন, ১৪২৬ , শরৎকাল, ১৬ মুহাররম, ১৪৪১

প্রবাসী সংবাদ ইতা‌লির রোমে দূতাবাস আয়োজ‌নে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালন

ইতা‌লির রোমে দূতাবাস আয়োজ‌নে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালন

ইসমাইল হোসেন স্বপন, নিরাপদ নিউজ: ঐ‌তিহা‌সিক মু‌জিবনগর দিবস উপল‌ক্ষে বাংলা‌দেশ দূতাবাস, ইতা‌লির আয়োজ‌নে আলোচনা সভা অনু‌ষ্ঠিত হ‌য়ে‌ছে। বুধবার (১৭ এপ্রিল) বিকাল ৫ টায় দূতাবাসের হল রুমে আয়োজিত এই আলোচনা সভায় রোমে বসবাসরত বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ নানা স্তরের প্রবাসী বাংলাদেশী এবং দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা/কর্মচারী অংশগ্রহণ করেন। পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াতের মাধ্যমে আলোচনা পর্ব শুরু হয়। এরপর দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রদত্ত বাণীসমূহ পাঠ করেন যথাক্রমে দূতাবাসের প্রথম সচিব শেখ ছালেহ আহাম্মদ এবং প্রথম সচিব রাজীব ত্রিপুরা। আলোচনা সভায় বক্তারা মুক্তিযুদ্ধে এবং স্বাধীন দেশ হিসেবে বিশ্বের মানচিত্রে বাংলাদেশের অভ্যুদয়ে মুজিবনগর সরকারের ভূমিকা গভীর শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করেন। ইতা‌লি‌তে নিযুক্ত বাংলা‌দে‌শের রাষ্ট্রদূত আবদুস সোবহান সিকদার তার বক্তব্যের শুরুতে বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন এবং শ্রদ্ধা জানান স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ে জাতীয় চার নেতার অবদানকে। দে‌শের অন্যান্য জাতীয় দিব‌সের মত মু‌জিবনগর দিবস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এক‌টি দিন উল্লেখ ক‌রে মুক্তিযুদ্ধে মুজিবনগর সরকারের ভূমিকা সম্পর্কে রাষ্ট্রদূত বলেন, মুজিবনগর সরকার গঠন বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জনকে ত্বরান্বিত করতে এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্বপক্ষে বিশ্ব জনমতকে সংগঠিত করতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। মুজিবনগর সরকারের আনুগত্য স্বীকার করে তৎকালীন পাকিস্তান ফরেন সার্ভিসে কর্মরত অনেক বাঙালি ক‚টনৈতিক বিশ্ব জনমত গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভ‚মিকা পালন করেছিলেন মর্মেও রাষ্ট্রদূত উল্লেখ করেন। রাষ্ট্রদূত আবদুস সোবহান সিকদার আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাঙালি রাজনৈতিক স্বাধীনতা লাভ করেছে। কিন্তু অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জনের জন্য তিনি যে স্বপ্ন দেখতেন তা অতি অল্প সময়ে বাস্তবায়ন করতে পারেননি। জাতির পিতার এ স্বপ্ন বাস্তবায়নে তাঁর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত দূরদর্শিতা ও দক্ষতার সাথে কাজ করে যাচ্ছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞা প্রকাশ করে রাষ্ট্রদূত বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ঠ নেতৃত্বের কারণেই বাংলাদেশ এখন একটি মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তরিত হয়েছে এবং ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে। এক্ষেত্রে সকল প্রবাসী বাংলাদেশীদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান রাষ্ট্রদূত। এসময় উপ‌স্থিত ইতা‌লি আওয়ামী লী‌গের সভাপ‌তি ইদ্রিস ফরাজী ও সাধারন সম্পাদক হাসান ইকবাল তা‌দের বক্ত‌ব্যে ব‌লেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনার উন্নয়‌নে সহ‌যো‌গিতার মাধ্য‌মে জা‌তির জন‌ক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমা‌নের স্বপ্ন‌কে বাস্তবায়ন কর‌তে হ‌বে। প্রবাস থে‌কে ঐক্যবদ্ধ হ‌য়ে দে‌শের স‌ঠিক ইতিহাস সক‌লের সাম‌নে তু‌লে ধর‌তে হ‌বে। দূতাবা‌সের কাউ‌ন্সিলর এরফানুল হ‌কের সঞ্চালনায় ইতা‌লি আওয়ামী লী‌গের শীর্ষ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ সহ আরও অ‌নে‌কে বক্তব্য রা‌খেন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)