ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৮ চৈত্র, ১৪২৫ , বসন্তকাল, ১৩ রজব, ১৪৪০

এই দিনে ইতিহাসের এই দিনে

ইতিহাসের এই দিনে

আজ (সোমবার) ১১ ফেব্রুয়ারি’২০১৯

সৈয়দ মুজতবা আলীর মৃত্যু
বিভিন্ন ধর্মতত্ত্বের বিশেষজ্ঞ, সাহিত্যিক সৈয়দ মুজতবা আলীর আজ মৃত্যুবার্ষিকী। ১৯৭৪ সালের এ দিনে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। বাংলা সাহিত্যে প্রগতিশীল, সরস মার্জিত, বুদ্ধিদীপ্ত একটি বিশেষ ধারা প্রবর্তন করেছেন তিনি। ব্যঙ্গ-রঙ্গ ও রসিকায় তার গদ্যা-পদ্যগুলোকে আলাদা প্রাণ দিয়েছে। দেশে-বিদেশে, পঞ্চতন্ত্র, চাচাকাহিনী, ময়ূরকণ্ঠী, শবনমসহ তার বিভিন্ন গ্রন্থে পন্ডিত্য ও সৃজনশীলতার বিচিত্র অভিব্যক্তি লক্ষনীয়। আরবি, ফর্সি, উর্দু, হিন্দি, সংস্কৃতি, ইংরেজি, জার্মান ইত্যাদি ভাষায় ছিলো তার অসামান্য দক্ষতা । সৈয়দ মুজতবা আলীর জন্ম পিতার কর্মস্থল আসামের করিমগঞ্জে ১৯০৪ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর। পৈতৃক নিবাস সিলেটের মৌলভীবাজারে। সিলেট গভর্নমেন্ট হাইস্কুলে নবম শ্রেণী পর্যন্ত অধ্যয়ন শেষে শান্তি নিকেতন স্কুলে ভর্তি হন। ১৯২৬ সালে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন বিশ^ভারতী থেকে। জার্মানিতে বৃত্তি নিয়ে দর্শনে তুলনামূলক ধর্মশাস্ত্র অধ্যয়ন করেন। বন বিশ^বিদ্যালয় থেকে ডক্টরেট ডিগ্রি নেয়ার পর বারোদা কলেজে ১০ বছর অধ্যাপনা করেন। আনন্দবাজারে সত্যপীর’ এবং হিন্দুস্থান স্ট্যান্ডার্ড পত্রিকায় রায়বিথোরা নামে উপসম্পাদকীয় লিখেছেন কয়েক বছর। ১৯৪৯ সালে অধ্যক্ষ হিসেবে যোগ দেন বগুড়া আজিজুল হক কলেজে। তার বিভিন্ন লেখালেখি এবং বিভিন্ন বক্তব্য পাকিস্তান সরকারের কাছে অসহনীয় হওয়ায় তাকে প্রথমে সতর্ক এবং কৈফিয়ত তলব করা হয়। গ্রেফতার এড়ানোর জন্য চাকরিতে ইস্তফা দিয়ে শেষমেষ তিনি ভারতে চলে যান। অধ্যাপনার চাকরি নেন কলকাতা বিশ^বিদ্যালয়ে। দিল্লী রেডিওতে চাকরি করেছেন কিছুদিন। ১৯৬১ তে বিশ^ভারতীতে রিডার নিযুক্ত হন। তার ভ্রমণকাহিনী, উপন্যাস, মননশীল প্রবন্ধগুলো আজও পাঠকসমাজে আধুনিক, তাজা লেখার মতো সমাদৃত।

ফার্সি ১৩৫৭ সালের ২৩শে বাহমান অর্থাৎ ১৯৭৯ সালের এ দিনে ইরানের ইসলামী বিপ্লবের বিজয়ের মাধ্যমে সৃষ্ট অন্তবর্তী সরকারের আনুষ্ঠানিকভাবে কাজ শুরু করার প্রথম দিন। এর আগের দিন এই বিপ্লব চূড়ান্ত বিজয় অর্জন করে। তবে তখনো অত্যাচারী শাহের বাহিনীর সাথে কোথাও কোথাও বিপ্লবপন্থীদের সংঘর্ষ অব্যাহত ছিলো। এ সময় ইসলামী বিপ্লবী বাহিনী গুরুত্বপূর্ণ এবং স্পর্শকাতর স্থানগুলো প্রহরা দিতে শুরু করে। এছাড়া নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার ব্যাপারটি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠে। এ দিনে ইরানের ইসলামী বিপ্লবের প্রতিষ্ঠাতা ইমাম খোমেনী (রহ)এর নির্দেশে ইসলামী বিপ্লবী কমিটি গঠিত হয়।

১৯৯০ সালের এ দিনে দক্ষিণ আফ্রিকায় বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলনের নেতা নেলসন ম্যান্ডেলা কারাগার থেকে মুক্তি লাভ করেন। বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলন করার জন্য জন্য তাকে ২৭ বছর কারাগারে থাকতে হয়েছে। ১৯৬৪ সালে তাকে ধ্বংসাত্বক তৎপরতা, রাষ্ট্রদ্রোহিতা এবং ষড়যন্ত্রের কথিত অভিযোগে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেয়া হয়েছিলো। ১৯১৮ সালে ম্যান্ডেলার জন্ম হয়েছিলো। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় তিনি বর্ণবাদ বিরোধী রাজনৈতিক আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েন। ১৯৪০ সালে এক ছাত্র বিক্ষোভে যোগ দেয়ার জন্য তাকে বিশ্ববিদ্যায় থেকে বহিস্কার করা হয়। পরবর্তীতে নেলসন ম্যান্ডেলাকে নানা উত্থান পতনের মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। নেলসন ম্যান্ডেলা ১৯৯৪ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হন।

১৯২৯ সালের এ দিনে মুসোলিনীর নেতৃত্বাধীন ইতালি এবং পোপ একাদশ পায়াসের সচিব কার্ডিনাল গ্যাসপারির মধ্যে ল্যাটারান প্রাসাদে একটি চুক্তিস্বাক্ষরিত হয়। এই চুক্তির মাধ্যমে ভ্যাটিকান নগরী স্বাধীনতা লাভ করে এবং পোপের কর্তৃত্ব শুধুমাত্র ভ্যাটিকান নগরীতে সীমাবন্ধ থাকে। আর এর বিনিময়ে ইতালির রাষ্ট্রধর্ম হয়ে ক্যাথলিজম। অন্যদিকে পোপের আওতায় যে সব রাষ্ট্র ছিলো ভ্যাটিকান সেগুলোর উপর থেকে নিজেদের দাবি প্রত্যাহার করে নেয়।

১৯৪৫ সালের এ দিনে কৃষ্ণ সাগর তীরবর্তী নগরী ইয়েল্টায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ফ্রাংকলিন ডি রুজভেল্ট, বৃটেনের প্রধানমন্ত্রী উইস্টন চার্চিল এবং সোভিয়েত নেতা জোসেফ স্টালিনের মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠক সমাপ্ত হয়। এ ঐতিহাসিক বৈঠক ৪ঠা ফেব্রুয়ারি শুরু হয়েছিলো। এই বৈঠকে লড়াইরত জার্মানী এবং জাপানের বিরুদ্ধে কি পদক্ষেপ নেয়া হবে সে ব্যাপারে আলোচনা হয়। তবে এই বৈঠকে ইউরোপের ব্যাপারে তিন নেতার মধ্যে মতভেদ স্পস্ট হয়ে উঠে। এই বৈঠকের মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় মহাযুদ্ধে পর আসন্ন শীতল যু্দ্েধর বিষয়টি স্পষ্ট হয়ে উঠে। এ ছাড়া এই বৈঠকে জাতিসংঘ গঠনের জন্য বৈঠক করার পরিকল্পনা চুড়ান্ত করা হয়। এর আগে, ১৯৪৩ সালে তেহরানে এই তিন নেতা শেষবার বৈঠকে মিলিত হয়েছিলেন।

১৯২২ সালের এ দিনে কুকুরের উপর সফলভাবে ইনসুলিন প্রয়োগ করে চিকিৎসার কথা ঘোষণা করা হয়। একটি গবেষণা পত্রে এই ঘোষণা পত্র প্রদান করেন কানাডার সার্জন ফ্রেডারিক বান্টিং এবং তার সহযোগী চার্লস বেস্ট। এর আগের বছর বেষ্ট প্রথম প্যানক্রিসের কোষকলা থেকে ইনসুলিন আহরণ করতে সক্ষম হন। এই ইনসুলিন ডায়বেটিক আক্রান্ত কুকুরের দেহে ইনজেকশনের মাধ্যমে প্রবেশ করানোর এক ঘন্টার মধ্যে কুকুরের রক্তের শর্করা হ্রাস পায়। গবেষকদ্বয় তাদের গবেষণা অব্যাহত রাখেন এবং ইনস্যুলিনকে আরো বিশুদ্ধ করেন। তারা প্রমাণ করেন যে রক্তের শর্করা হ্রাস করার ক্ষেত্রে ইনসুলিন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। তাদের এই আবিস্কার পরবর্তীতে বিশ্বের বহুমুত্র আক্রান্ত রোগীদের জীবনে আশার আলো সৃষ্টি করে।

১৮৪৭ সালের এ দিনে বিশ্ব বিখ্যান আবিষ্কারক টমাস আলভা এডিসন জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৩১ সালের ১৮ই অক্টোবর পরলোকগমন করেন। তিনি একক বা যৌথভাবে ১০৯৩টি আবিস্কারকে প্যাটেন্ট করেছিলেন। এ পর্যন্ত আর কোনো আবিষ্কারক এই রেকর্ড ভাঙ্গতে পারেন নি। এছাড়া এডিসনই প্রথম শিল্প সংক্রান্ত গবেষেণাগার প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। মাত্র ১২ বছর বয়সে ট্রেনে দৈনিক পত্রিকা ফেরি করার মাধ্যমে এডিসন তার জীবন শুরু করেছিলেন। তার প্রধান আবিষ্কারের মধ্যে অন্যতম হলো মোশন পিকচার ক্যামেরা, গ্রামোফোন।

কান্দাহারের বিরুদ্ধে দারাশিকোর তৃতীয় অভিযান (১৬৩৫)
ফরাসি বাহিনীর রোম দখল (১৭৯৮)
ব্রিটিশ আবহাওয়া দপ্তরে সর্বপ্রথম সপ্তাহিক আবহাওয়া প্রতিবেদন ইসু (১৮৭৮)
জাপানে দ্বিকক্ষ বিশিষ্ট পার্লামেন্টসহ ডায়েট সংবিধানে গ্রহণ (১৮৮৯)
ভ্যাটিকানের স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বীকৃতি লাভ (১৯২৯)
ইয়াল্টা সম্মেলন সমাপ্ত। রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন জাপানের বিরুদ্ধে যুদ্ধে যোগদানে ঐকমত্য (১৯৪৫)
বিদ্রোহের পর ইরাকের নতুন সরকারকে যুক্তরাষ্ট্রের স্বীকৃতি (১৯৬৩)
চীনের গৃহযুদ্ধের সময় বেইজিংয়ে মার্শাল ল’ জারি (১৯৬৭)
কমিউনিষ্ট সৈন্যবাহিনী কর্তৃক দক্ষিণ ভিয়েতনামে ৩শ’ বেসামরিক লোককে হত্যা করে গণকবরে সমাহিত (১৯৬৮)
ভারতের রাষ্ট্রপতি ফখরুদ্দিন আলী আহমদের মৃত্যু (১৯৭৭)
২৭ বছর কারাভোগের পর দক্ষিন আফ্রিকার নেতা নেলসন ম্যান্ডেলার মুক্তি লাভ (১৯৯০)

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)