আপডেট ২১ মিনিট ৪১ সেকেন্ড

ঢাকা শুক্রবার, ৫ শ্রাবণ, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ১৫ জিলক্বদ, ১৪৪০

এই দিনে ইতিহাসের এই দিনে

ইতিহাসের এই দিনে

আজ (শনিবার) ১৬ মার্চ’২০১৯

ড. আলীম আল রাজীর মৃত্যু
আইন শাস্ত্রের পন্ডিত খ্যাতিমান আইনজীবী, রাজনীতিক ড. আলীম আল রাজীর আজ মৃত্যু আলীম আল রাজীর জন্ম টাঙ্গাইলের নাগরপুরে ১৯২৫ সালে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইতিহাসে এমএ এবং বিএল পাসের পর লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইতিহাস ও আইনে ডাবল পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন । ৫৩ তে ঢাকা হাইকোটে আইন ব্যবসা শুরু করেন। ১৯৬৫ তে মৌলিক গণতন্ত্রের প্রথায় ময়মনসিংহ থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন। সর্বজনীন ভোটাধিকার, সংসদীয় গণতন্ত্র, পূর্ব বাংলার স্বায়ত্তশাসন, সংবাদপত্রের স্বাধীনতার পক্ষে সোচ্চার ভূমিকা রাখেন জাতীয় পরিষদে। ঢাকা সিটি ল’ কলেজ প্রতিষ্ঠা করে ১৯৫৭ থেকে ১৯৭২ পর্যন্ত তিনি এর অবৈতনিক অধ্যক্ষ ছিলেন। নাগরপুর ডিগ্রি কলেজ, লাউহাটি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ও তার অধ্যক্ষ ছিলেন। নাগরপুর ডিগ্রি কলেজ, লাউহাটি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ও তার প্রতিষ্ঠিত । ৭০’র নির্বাচনে টাঙ্গাইল-১ আসনে পরাজিত হন। ৭২-এ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টিতে (ভাসানীপন্থী ন্যাপ) যোগ দেন। তিনি হন ন্যাপের ভাইস প্রেসিডেন্ট । ৭৩-এর নির্বাচনে টাঙ্গাইল-৬ এবং ঢাকা-১৩ দু’টি আসনেই পরাজিত হন। ৭৪-এ ন্যাপ ত্যাগ। ৭৪-৭৫-এ বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি নির্বাচিত হন। কিছুদিন ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ে অধ্যাপনাও করেছিলেন। ১৯৭৬-এ তিনি নিজেই গঠন করেন বাংলাদেশ লীগ । টাঙ্গাইল থেকে সাপ্তাহিক দূরবীন এবং লন্ডন থেকে দি ওরিয়েন্টাল টাইমস সম্পাদনা করেন। ব্যঙ্গ-রসাত্মক সুবক্তা ছিলেন তিনি।

১৮৫৯ সালের ১৬ই মার্চ রাশিয়ার বিখ্যাত পদার্থবিজ্ঞানী ও আবিষ্কারক আলেক্সাডার পোপোভ জন্মগ্রহণ করেন। তিনি সেন্ট পিটার্সবার্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদার্থ বিদ্যায় স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। অধ্যয়নের পাশাপাশি তিনি শব্দ প্রেরণ যন্ত্র তৈরীর ব্যাপারে গবেষণা চালাতে থাকেন। ১৮৯৫ সালে পোপোভ ৬০০ গজ দূরে রেডিও ওয়েভ পাঠাতে ও গ্রহণ করতে সক্ষম একটি যন্ত্র আবিষ্কার করেন। রেডিও আবিষ্কারের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য পোপোভের সম্মানে ১৯৪৫ সালের ৭ই মে-কে রাশিয়ায় রেডিও দিবস ঘোষণা করা হয়। পোপোভ ১৯০৬ সালের ১৩ই জানুয়ারি সেন্ট পিটার্সবার্গে মৃত্যুবরণ করেন।

১৯৪০ সালের এই দিনে সুইডেনের বিশিষ্ট লেখিকা সেলমা লাগেরলোফ পরলোকগমন করেন। তিনি ১৮৫৮ সালে সুইডেনের ভার্মল্যান্ডে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি শৈশব থেকে কবিতা লেখা শুরু করেন কিন্তু ১৮৯০ সালের আগে তিনি কোন কবিতা প্রকাশ করেননি। ১৮৯১ সালে তার লেখা প্রথম বই ‘গোস্তা বার্লিং সাগা’ প্রকাশিত হবার পর তা ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে। লাগেরলোফই প্রথম কোন মহিলা যিনি ১৯০৯ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরষ্কার লাভ করেন। তার কয়েকটি উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ হচ্ছে, দ্য মিরাকল অব এনতিচরিস্ট, দ্য হোলি সিটি, দ্য ওয়ান্ডারফুল এডভেঞ্চার অব নীল ইত্যাদি।

রাসূলেখোদা (সাঃ) মদীনায় হিজরতে কিছুদিন পর অর্থাৎ ১৮ই রবিউল আউয়াল মসজিদের নববী তৈরীর কাজ শুরু করেন। মসজিদুল হারাম বা কাবা শরীফের পর এটিই মুসলমানদের নিকট সবচেয়ে পবিত্র মসজিদ। হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) নিজে এই মসজিদ নির্মাণ কাজে অংশ নেন। ৩৫ মিটার দৈর্ঘ্য ও ৩০ মিটার প্রস্থ মসজিদটির দেয়াল ছিল পাথর ও ইট দিয়ে তৈরি এবং মসজিদটির ছাদ তৈরি করা হয় কাঠ দিয়ে। মসজিদের একপাশে রাসূলের ঘর এবং অন্যপাশে তার কিছু সাহাবীর থাকার ঘর ছিল। রাসূল (সাঃ) এই মসজিদেই আল্লাহর এবাদাত, বিচার পরিচালনা, পরামর্শ সভা, যুদ্ধের প্রশিক্ষণ ইত্যাদি কাজে ব্যবহার করতেন। রাসূলের পর মুসলিম শাসকগণ ঐতিহাসিক এ মসজিদটির ব্যাপক সংস্কার ও উন্নয়ন করেন যা বর্তমানেও অব্যাহত রয়েছে।

১৯৭৮ সালের ১৬ই মার্চ ইতালির বামপন্থী রেড ব্রিগেড গোষ্ঠী সাবেক প্রধানমন্ত্রী ‘আলদো মোরো’ রোম থেকে অপহরণ করে। আলদো মোরো ইতালির ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্রেটিক দলের পক্ষ থেকে পাঁচ বার প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছিলেন। আলদো মোরো অপহৃত হওয়ার সময় সন্ত্রাসীদের সাথে সংঘর্ষে তার ৫জন দেহরক্ষী পুলিশ নিহত হয়। রেড ব্রিগেডের ১২জন সশস্ত্র ব্যক্তি এ অপহরণ কা-ে অংশ নিয়েছিল বলে ইতালির পুলিশ প্রধান জানান। এ ঘটনার ৫৬ দিন আগে রেড ব্রিগেড আলদো মোরোকে হত্যার হুমকি দিয়েছিল।

আজ থেকে ১৪ বছর আগে অর্থাৎ ফার্সী ১৩৭৩ সালের ২৬শে ইস্ফান্দ ইরানের ইসলামী বিপ্লবের রূপকার মরহুম ইমাম খোমেনী (রহঃ) এর পুত্র হুজ্জাতুল ইসলাম সাইয়েদ আহমদ খোমেনী পরলোকগমন করেন। তিনি ফার্সী ১৩২৪ সালে ইরানের কোমে জন্মগ্রহণ করেন। পিতার কাছ থেকেই তিনি বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ এবং দ্বীনি শিক্ষা লাভ করেন। গ্রাজুয়েশন ডিগ্রি লাভের পর তিনি কোমের ধর্মতত্ত্ব কেন্দ্রে ভর্তি হন এবং ধর্মীয় বিভিন্ন বিষয়ে পা-িত্য অর্জন করেন। ইরানের ইসলামী বিপ্লবের আগে তিনি ইমাম খোমেনীর সাথে বিপ্লবী নেতৃবৃন্দের যোগাযোগ স্থাপনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। ইসলামী বিপ্লবের পর তাকে রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ পদে নিয়োগের প্রস্তাব করা হলেও তা গ্রহন না করে তিনি ইমামের সংস্পর্শে সময় কাটান। সাইয়েদ আহমদ খোমেনী তার পিতার মৃত্যুর ছয় বছর পর পরলোকগমন করেন।

আজ থেকে ১৬২ বছর আগে অর্থাৎ হিজরী ১২৬৮ সালের ১৮ই রবিউল আউয়াল ইরানের কাজার শাসনামলের প্রধানমন্ত্রী ও বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ মীর্জা তাকি খান আমীর কাবিরকে স¤্রাট নাসিরুদ্দিন শাহের নির্দেশে হত্যা করা হয়। মীর্জা আমীর কাবির ১৮০৭ সালের ১১ই জানুয়ারি তৎকালীন পারস্যের আরাক অঞ্চলের হাজাবেহ গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। অসম্ভব মেধার অধিকারী আমীর কাবির পড়াশুনা শেষ করে সরকারী চাকুরীতে যোগ দেন এবং অল্পদিনের মধ্যে নিজ দক্ষতা ও যোগ্যতার বলে প্রশাসনের উচ্চপদ লাভ করেন। স¤্রাট নাসিরুদ্দিন শাহ তাকে প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ দেয়ার পর তিনি প্রশাসন, শিল্প ও শিক্ষাক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন ও সংস্কার শুরু করেন। এসময় তিনি দারুল ফুনুন নামে একটি পলিটেকনিক কলেজ প্রতিষ্ঠা করেন। এছাড়া গুরুত্বপূর্ণ বই অনূবাদের জন্য অনুবাদ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা এবং বিজ্ঞান ও শিক্ষা বিষয়ক পত্রিকা প্রকাশ করেন। প্রশাসনের অভ্যন্তরে ঘুষ, দুর্নীতি ও অপচয় রোধ এবং বিদেশী হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে তিনি পদক্ষেপ নেয়া শুরু করায় স্বার্থানেষী মহল তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করে। তারা স¤্রাট নাসিরুদ্দিন শাহ কাজারকে আমির কাবিরের বিরুদ্ধে ক্ষেপিয়ে তোলে। অবশেষে স¤্রাট নাসির উদ্দিন তাঁকে কাশানে নির্বাসন দেন। নির্বাসনে এক বছর পর স¤্রাটের নির্দেশে তাকে সেখানেই হত্যা করা হয়।

ইংল্যান্ডের ২০ বছর স্থায়ী দীর্ঘতম পার্লামেন্ট বিলুপ্ত (১৬০০)
মার্কিন প্রেসিডেন্ট জেমস মেডিসনের জন্ম (১৭৫১)
সুইডেনের রাজা দ্বিতীয় গুস্তাভ স্টক হোমে রয়েল অপেরায় এক নাচের অনুষ্ঠানে গুলিতে নিহত (১৭৯২)
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক একাডেমী প্রতিষ্ঠিত (১৮০২)
ব্রিটেন প্রথম ফুয়াদের নেতৃত্বাধীন মিশরকে স্বীকৃতি দান (১৯২২)
ভার্সাই চুক্তি ভঙ্গ করে হিটলারের বাধ্যতামূলক সামরিক নিয়ােগ পুনঃপ্রবর্তন (১৯৩৫)
এক প্লাটুন মার্কিন সৈন্য কর্তৃক ভিয়েতনামের মাই লাই-এ ১শ বন্দীকে হত্যা (১৯৬৮)
শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশে দ্বিতীয়বার সরকার গঠন (১৯৭৩)

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)