ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট মে ১৪, ২০১৯

ঢাকা শনিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ , গ্রীষ্মকাল, ২০ রমযান, ১৪৪০

এই দিনে ইতিহাসের এই দিনে

ইতিহাসের এই দিনে

আজ (মঙ্গলবার) ১৪ মে’২০১৯

হিজরী ৩১৯ বা ৩২০ সালের এ দিনে মহাকবি ফেরদৌসী ইরানের তুস নগরীতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। শাহনামা নামে মহাকাব্য গ্রন্থ রচনার মাধ্যমে তিনি বিশ্বখ্যাতি অর্জন করেছেন। শাহনামা রচনায় তার ত্রিশ বছর লেগেছিল। এই মহাকাব্য গ্রন্থে তিনি ইসলাম পূর্ব -ইরানের পরিচয় মনোগ্রাহী কাব্যমাধুর্যে তুলে ধরেছেন। শাহনামা রচনা করতে যেয়ে তিনি ইতিহাস ভিত্তিক কাহিনী তুলে ধরেছেন তেমনই তিনি আবার ইরানের লোকশ্রুতিকেও ব্যবহার করতে কার্পণ্য করেন নি। সব মিলিয়ে শাহানামা রচনায় মহাকবি ফেরদৌসীর শ্রম বৃথা যায়নি কারণ তার রচিত কাব্য গাথা একদিকে সাহিত্যের অমূল্য সম্পদ হয়ে উঠেছে। অন্যদিকে তার এই মহাগ্রন্থ ইরানের হাজার বছরের ইতিহাস-ঐহিত্য এবং সংস্কৃতির কালজয়ী এক জ্ঞানকোষ হয়ে আছে।

১৮১১ খ্রিস্টাব্দের এ দিনে ল্যাটিন আমেরিকার দেশ প্যারাগুয়ে স্বাধীনতা অর্জন করে এবং প্রজতন্ত্র হিসেবে বিশ্বের মানচিত্রে আবিভূর্ত হয়। ষোড়শ শতকে স্পেনের অভিযাত্রী জুয়ান ডি সালজার এই দেশটি আবিস্কার করেন এবং এটি ২ বছর স্পেনের উপনিবেশ হিসেবে ছিলো। দেশটির প্রায় মধ্যভাগ দিয়ে উত্তর থেকে দক্ষিণে বয়ে যাওয়া একটি নদীর নামে প্যারাগুয়ের নামকরণ করা হয়েছে বলে মনে করা হয়ে থাকে। প্রায় দুই শতক ধরে এটি স্পেনের উপনিবেশ হিসেবে ছিলো থাকার পর ১৮১১ খ্রিস্টাব্দে প্যারাগুয়ে স্বাধীনতা লাভ করলে দেশটিতে স্বৈরশাসন এবং তার পরিণামে সামরিক অভ্যুত্থান এবং পাল্টা অভ্যূত্থান অব্যাহত ভাবে চলতে থাকে। ১৯৮৯ খ্রিস্টাব্দে প্যারাগুয়েতে প্রথম অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ল্যাটিন আফ্রিকার সাগরের সাথে সংযোগহীন ভূমি বন্ধ দুইটি দেশের মধ্যে একটি হলো প্যারাগুয়ে।

১৯৫৫ খ্রিস্টাব্দের এ দিনে সাবেক সোভিয়েন ইউনিয়ন এবং তার ইউরোপীয় মিত্র হিসাবে পরিচিত সাতটি দেশ ওয়ারশ চুক্তি স্বাক্ষর করে। এই পারস্পারিক প্রতিরক্ষা চুক্তি অনুযায়ী সোভিয়েত ইউনিয়ন সদস্য দেশগুলোর সশস্ত্র বাহিনীর কমান্ড গ্রহণ করে। পোলান্ডের রাজধানী ওয়ারশতে চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার কারণে এর নাম ওয়ারশ চুক্তি রাখা হয়েছিলো। সোভিয়েত ইউনিয়নের আমলে এই চুক্তিকে ন্যাটোর বিপরীতে কম্যুনিষ্ট দেশগুলোর প্রতিরক্ষা চুক্তি হিসেবে তুলে ধরা হত। ১৯৯০ খ্রিষ্টাব্দে পুর্ব জার্মানি ওয়ারশ চুক্তি থেকে সরে যায় এবং পশ্চিম জার্মানীর সাথে এক হয়ে একত্রিত জার্মানির জন্ম দেয়। ১৯৯১ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত এই চুক্তি কার্যকর ছিলো।

১৩১৩ হিজরীর এ দিনে বিখ্যাত মুসলিম জ্ঞান-তাপস মির্জা মোহাম্মদ বাকের জয়নাল আবেদিন খোনসারী ইরানের ইস্পাহান নগরীতে ইন্তেকাল করেন। ইসলামী আইন শাস্ত্র বা ফিকাহ এবং হাদিসে তার অগাধ পান্ডিত্য ছিলো। হাদিস শাস্ত্রের সে যুগের নামকরা শিক্ষকরা মির্জা মোহাম্মদ বাকের জয়নাল আবেদিন খোনসারীকে হাদিস বয়ান করার অনুমতি প্রদান করেছিলেন। তিনি বেশ কয়েকবার ইস্পাহানের ইসলামী কেন্দ্রের প্রধানের দায়িত্ব পালন করেছেন।

১৩২৩ হিজরীর এ দিনে ইসলামী বিশ্বের অন্যতম সংগ্রামী ব্যক্তিত্ব শেখ মোহাম্মদ আবদুহ মিসরের আলেকজান্দ্রিয়া নগরীতে ইন্তেকাল করেন। তিনি মিসরের বিশ্বখ্যাত ইসলামী বিশ্ববিদ্যায় আল আজহারে অধ্যায়ন করেছেন। তারপর তিনি তৎকালীন স্বাধীনচেতা জামাল উদ্দিন আসাদাবাদীর কাছ থেকে শিক্ষা লাভ করেন। স্বাধীনচেতা এবং ইসলামী জ্ঞান সাধক জামাল উদ্দিন আসাদাবাদীর শিক্ষার আলোয় শেখ মোহাম্মদ আবদুহ উদ্ভাসিত হয়ে উঠেন। জামাল উদ্দিন আসাদাবাদীকে নির্বাসন দেয়ার পর শেখ মোহাম্মদ আবদুহ তার স্থলাভিষিক্ত হন। কিন্তু বৃটিশ সা¤্রাজ্যবাদীর প্রবল প্রভাব থাকার কারণে শেখ আবদুহকেও পরে সিরিয়ায় নির্বাসনে পাঠানো হয়। শেখ আবদুহ সেখানে ৬ বছর অধ্যায়নের পর প্যারিসে গমন করেন এবং সেখান থেকে একটি দৈনিক পত্রিকা বের করার কাজে জামাল উদ্দিন আসাদাবাদীকে সহযোগিতা করেন। দ্বিতীয় দফায় তিনি মিসরে প্রত্যাবর্তনের পর বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন। শেখ মোহাম্মদ আবদুহ এবং জামালউদ্দিন আফগানী সা¤্রাজ্যবাদী শক্তির বিরুদ্ধে সমগ্র মুসলিম বিশ্বকে সংঘবদ্ধ করার স্বপ্ন দেখেছেন। নিজেদের মাজহাবগত ক্ষুদ্র পার্থক্য ভুলে বিশ্বের মুসমান একদিন কাফের শক্তির বিরুদ্ধে বৃহৎ ঐক্য গড়ে তুলবে।

১৯৪৮ সালের এ দিনটি মানব ইতিহাসের কালিমা লিপ্ত একটি দিন হয়ে থাকবে। কারণ এ দিন ফিলিস্তিনের পবিত্র ও ঐতিহাসিক ভূমির উপর ইসরাইল প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেয়া হয়। বিশ্ব যায়নবাদের চেয়ারম্যান ডেভিড বেন গুরিয়ন ইসরাইল প্রতিষ্ঠার এই ঘোষণা দেন। রাতারাতি ফিলিস্তিনের ভূমিতে ইসরাইল প্রতিষ্ঠা করা হয়নি। এর পেছনে রয়েছে সা¤্রাজ্যবাদী ইঙ্গ-মার্কিন সরকারের দীর্ঘ প্রচেষ্টা এবং ইহুদিবাদীদের নানা রক্তাক্ত অপচেষ্টা। ১৯১৭ সালে প্রথম যুদ্ধে ওসমানিয়া সা¤্রাজ্যের পরাজয় ঘটে বৃটিশদের হাতে। এরপর বৃটিশরা ফিলিস্তিন করায়ত্ত করে। বৃটিশ প্রভাবিত সে দিনের নাম মাত্র জাতিপুঞ্জ ওই এলাকায় একটি ফিলিস্তিনি এবং একটি ইহুদিবাদী রাষ্ট্র গঠনের ব্যাপারে মেনে নেয়। ফিলিস্তিনে বিশ্বের বিভিন্ন স্থান থেকে ইহুদিদের জড়ো করা হতে থাকে। দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের পর হিটলারের হাতে ইহুদি গণহত্যার সন্দেহভাজন কাহিনী ব্যাপকভাবে প্রচার পায় এবং ইহুদিরা এর উপর ভিত্তি করে বিশ্ববাসীর করুণা কুড়ানোর চেষ্টা করে।

তৃতীয় শিক্ষাগুরু অমরদাশের মৃত্যু (১৫৭৪)
মৌলবাদী রোমান ক্যাথলিক ফ্রাঙ্কো রাভাইলাক কর্তৃক ফ্রান্সের চতুর্থ রাজা হেনরি খুন (১৬১০)
এডওয়ার্ড জেনার পরীক্ষামূলকভাবে টাকা দানের ক্ষেত্রে সফলতা অর্জন (১৭৯৬)
স্পেনের কাছ থেকে প্যারাগুয়ের স্বাধীনতা লাভ (১৮১১)
বাংলা ব্যঙ্গ সাহিত্যের পথিকৃৎ ইন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্ম (১৮৪৯)
পাকিস্তানের সামরিক শাসক আইয়ুব খানের জন্ম (১৯০৭)
চিত্র পরিচালক মূনাল সেনের জন্ম (১৯২৩)
ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠন (১৯৪৮)
আদমজী পাটকলে ভয়াবহ বাঙালি-অবাঙালি দাঙ্গা (১৯৫৪)
রাশিয়া ও পূর্ব ইউরোপের সমাজতান্ত্রিক দেশগুলোর মধ্যে ওয়ারশ চুক্তি স্বাক্ষর (১৯৫৫)
ফিজিতে পার্লামেন্টে সৈন্যদের হামলা। প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিসভাকে অপহরণ করে সামরিক শাসন জারি (১৯৮৭)
আর্জেন্টিনায় প্রেসিডেন্ট কার্লোস মেনেম দ্বিতীয় মেয়াদে নির্বাচিত (১৯৯৫)

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)