ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট জুন ২৫, ২০১৯

ঢাকা শুক্রবার, ৪ কার্তিক, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১৯ সফর, ১৪৪১

এই দিনে ইতিহাসের এই দিনে

ইতিহাসের এই দিনে

আজ (মঙ্গলবার) ২৫ জুন’২০১৯

১৮২২ সালের এই দিনে এক দল কৃষ্ণাঙ্গ দাস শেতাঙ্গ মালিকদের কাছ থেকে মুক্ত হয়ে আমেরিকা থেকে আফ্রিকায় ফিরে যায় এবং বর্তমান লাইবেরিয়ায় বসবাস শুরু করে। কৃষ্ণাঙ্গরা উনবিংশ শতাব্দির প্রথম দিকে শেতাঙ্গ মালিকদের কাছ থেকে মুক্ত হয়ে কৃষ্ণাঙ্গ অধ্যুষিত একটি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলন শুরু করে। এ লক্ষ্যে এক দল মার্কিন কৃষ্ণাঙ্গ বছরের পর বছর ধরে অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করার পর যাযাবর সমিতির সহায়তায় পশ্চিম আফ্রিকায় সমবেত হয়ে লাইবেরিয়া রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করে। লাইবেরিয়া প্রথম দিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি অঙ্গরাজ্য হিসেবে পরিচালিত হতো কিন্তু পরবর্তীতে ১৮৪৭ সালে দেশটিকে প্রজাতন্ত্র হিসেবে ঘোষণা করা হয় এবং ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের সাবেক দাস জোসেফ রবার্টস লাইবেরিয়ার প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হন।

১৯৫০ সালের এই দিনে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাপক উস্কানিমূলক তৎপরতার পর উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়ায় হামলা শুরু করে এবং যুদ্ধে ব্যাপক সফলতা অর্জন করতে থাকে। কিন্তু জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে অনুমোদিত ইশতেহারের ভিত্তিতে যুক্তরাষ্ট্রসহ ১৬ টি দেশ, উত্তর কোরিয়ার মোকাবেলায় সৈন্য প্রেরণ করে। মার্কিন বাহিনী, দক্ষিণ কোরিয়ার সৈন্যদের সহায়তায় উত্তর কোরিয়ার অগ্রযাত্রা রুখে দেয় এমনকি উত্তর কোরিয়ায় দখলদারিত্ব প্রতিষ্ঠায় সক্ষম হয়। কিন্তু চীন, উত্তর কোরিয়ার পক্ষে যুদ্ধে অবস্থান নেয়ার পর দেশটি মার্কিন দখলমুক্ত হয়। পাশাপাশি যুদ্ধ বিরতির জন্য আলোচনা শুরু হয় এবং ১৯৫৩ সালে যুদ্ধ বিরতি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। ঐ চুক্তির ভিত্তিতে উত্তর কোরিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়ার আগের সীমানা বহাল থাকে। তবে উত্তর কোরিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়া এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে যুদ্ধ বিরতিতে স্বাক্ষর করে নি।

আজ মুজাম্বিকের স্বাধীনতা দিবস। ৩৩ বছর আগে ১৯৭৫ সালের এই দিনে দেশটিতে স্বাধীনতা ঘোষণা করা হয়। প্রতি বছর দেশটিতে ব্যাপক ধুমধামে স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত হয়। পঞ্চদশ শতকের শেষ দিকে ভাস্কো দ্যা গামার নেতৃত্বে এক দল পর্তুগীজ নাগরিক মুজাম্বিকে পৌঁছে। আর এরমধ্য দিয়েই দেশটিতে ঔপনিবেশিক শাসনের সূচনা ঘটে এবং তা প্রায় পাঁচ’শ বছর ধরে অব্যাহত ছিল। প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর এই দেশটিতে পর্তুগীজরা শত শত বছর ধরে লুটপাট চালায়, আর এ ক্ষেত্রে বাধা দিতে গিয়ে অসংখ্য মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। তবে ব্যাপক হত্যা-নির্যাতনের মাধ্যমেও তারা স্থানীয় জনগণের প্রতিরোধ সংগ্রাম স্তব্ধ করতে পারে নি। এরই ধারাবাহিকতায় স্বাধীনতাকামী সংগঠন ফ্রেলিমো পর্তুগীজদের বিরুদ্ধে সশস্ত্র সংগ্রাম জোরদার করে। দীর্ঘ সংগ্রামের পর অবশেষে ১৯৭৫ সালের ২৫শে জুন মুজাম্বিক পূর্ণ স্বাধীনতা অর্জন করতে সক্ষম হয়।

১৯৯১ সালের এই দিনে ক্রোয়েশিয়া, ইউগোস্লাভিয়া ফেডারেশন থেকে বেরিয়ে স্বাধীনতার ঘোষণা দেয়। ফেডারেশনে সার্বরা একক কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করায় ক্রোয়েটরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠে। এক পর্যায়ে কেন্দ্রীয় সরকার বাধ্য হয়েই ক্রোয়েটদের সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধির ব্যাপারে আলোচনায় বসে। কিন্তু সে আলোচনা বেশি দূর এগোয় নি। এ কারণে ক্রোয়েশিয়ার নেতারা সেদেশে একটি গণভোটের আয়োজন করে। গণভোটে জনগণ স্বাধীনতার পক্ষে রায় দেয়। এরপর ইউগোস্লাভিয়া, ক্রোয়েশিয়ায় হামলা চালায়। পাশ্চাত্যের সহায়তায় ক্রোয়েশিয়া, ইউগোস্লাভিয়াকে হামলা বন্ধে বাধ্য করতে সক্ষম হয়। ইউগোস্লাভিয়া পরে ক্রোয়েশিয়ার স্বাধীনতাকে মেনে নেয়। এই একই দিন ক্রোয়েশিয়ার প্রতিবেশি স্লোভেনিয়াও ইউগোস্লাভিয়া ফেডারেশন থেকে বেরিয়ে স্বাধীনতার ঘোষণা দেয়।

ফার্সি ১৩৭১ সালের এই দিনে ইরানের বিশিষ্ট আলেম আয়াতুল্লাহ মাদানি কাশানি ৯৩ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন। তিনি ধর্ম বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অর্জনের পর কোমের ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হন এবং সেখানে আয়াতুল্লাহ হায়েরি ইয়াজদির মতো বিশিষ্ট শিক্ষকদের কাছে শিক্ষা গ্রহণ করেন। তিনি নিজেও পরবর্তীতে ধর্মীয় শিক্ষা প্রদানের কাজে মনোনিবেশ করেন। শিক্ষকতার পাশাপাশি সমাজের নানা সমস্যা সমাধানে তিনি সদা সোচ্চার ছিলেন। তার লেখা অসংখ্য বইয়ের মধ্যে ফারায়েযুল মোকাল্লেদিন বা অনুসারীদের ধর্মীয় কর্তব্য এবং কাশফুল হাকোয়েক্ব বা সত্য উদঘাটন অন্যতম।

রাশিয়ার জার প্রথম নিকোলাসের জন্ম (১৭৯৬)
ভারতীয় সংবাদপত্রের ওপর ব্রিটিশরাজের সেন্সর আরোপ (১৮৯১)
রাইডুর অধিনায়কত্বে ভারতীয় ক্রিকেট দলের লর্ডস-এ প্রথম টেস্ট ক্রিকেটে অংশগ্রহণ (১৯৩২)
নওয়াব বাহাদুর ইয়ার জঙ্গের ইন্তেকাল (১৯৪৪)
উত্তর কোরীয় সেনাবাহিনীর দক্ষিণ কোরিয়া আক্রমণ। কোরিয়া যুদ্ধ শুরু (১৯৫০)
ভারতে জরুরি অবস্থা জারির মধ্য দিয়ে ইন্দিরা গান্ধী হটাও আন্দোলন দমন । বিরোধী দলীয় বহু নেতা, লেখক, বুদ্ধিজীবী গ্রেফতার (১৯৭৫)
পর্তুগালের কাছ থেকে মোজাম্বিকের স্বাধীনতা লাভ (১৯৭৫)
যুগোশ্লাভিয়ার প্রজাতন্ত্র ক্রোয়েশিয়া ও স্লোভেনিয়ার স্বাধীনতা ঘোষণা (১৯৯১)
তুরস্কে প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী তানসু সিলার জোটের সরকার গঠন (১৯৯৩)
পুত্র শেখ হামাদ কর্তৃক কাতারের আমির শেখ খলিফা উৎখাত (১৯৯৫)

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)