আপডেট ২৮ সেকেন্ড

ঢাকা শনিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ , গ্রীষ্মকাল, ১০ রমযান, ১৪৩৯

এই দিনে ইতিহাসের এই দিনে

ইতিহাসের এই দিনে

ইতিহাসের এই দিনে

আজ বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৭

– ১৩৬৬ হিজরীর এ দিনে ইরানের প্রখ্যাত মোফাসসেরে কোরআন অধ্যাপক মোহাম্মাদ তাক্বি শারিয়াতি ৮০ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন। তিনি ১২৮৬ হিজরীতে জন্মগ্রহণ করেন। প্রাথমিক শিক্ষা শেষে তিনি মাশহাদের মোকাদ্দাস শহরে যান এবং সেখানে ইসলামী বিষয়ে গভীর জ্ঞানার্জন করেন। ইসলামী বিষয়ে সুগভীর জ্ঞানার্জন শেষ করার কিছুকাল পর তিনি ইসলামী তৎপরতা শুরু করেন এবং ইসলামী সাংস্কৃতিক প্রকাশনার সাথে জড়িত হন। অধ্যাপক তাক্বি শারিয়াতি এ সময় মাশহাদে মুসলমি সত্য ঘটনা প্রকাশের একটি সংস্থা গঠন করেন। এখানে ধর্মীয় বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা এবং কোরআনের তাফসীর তুলে ধরা হয় ।

– ৩৮৮ হিজরীর এ দিনে প্রখ্যাত ভাষা বিজ্ঞানী এবং সাহিত্যিক আবু আলী মহম্মাদ বিন মোজাফফর ইন্তেকাল করেন। তিনি বাগদাদে হতেমী নামে সুপরিচিত ছিলেন। তিনি ভাষা বিজ্ঞান এবং সাহিত্যি বিষয়ে সুপন্ডিত ইবনে দোরিদ এবং আবু ওমরের কাছে শিক্ষালাভ করেন। এর পর তিনি বাগদাদে শিক্ষকতার কাজ শুরু করেন। তার শিক্ষাদানের বিষয় বা সারবস্তু বেশ উচ্চকিত। তিনি বেশ কয়েকটি মূল্যবান গ্রন্থ রচনা করেন।

– হিজরী ৮৩৭ বছর আগের এদিনে ইরানের প্রসিদ্ধ কবি ও সাহিত্যিক সাইয়্যেদ কসেমুল আনবার মৃত্যুবরণ করেন। তিনি তৈমুরিয়ান নামে বিশেষভাবে পরিচিত ছিলেন। উত্তর ও পশ্চিম ইরানের তাবরিজের অধিবাসী ছিলেন ।তিনি একটি প্রসিদ্ধ জ্ঞানী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি সেখানকার জ্ঞানী গুণী ও মনীষিদের কাছে শিক্ষা গ্রহণ করেন। এরপর তিনি বর্তমান আফগানিস্তানের হেরাতে চলে যান এবং সেখানের বসবাস শুরু করেন। তৈমুরিয়ান হেরাতে শিক্ষকতা পেশায় নিয়োজিত হন। বহু দূর দূরান্ত থেকে ছাত্ররা তার কাছে শিক্ষাগ্রহণের জন্যে আসতেন। তৈমুরিয়ান যখন আফগানিস্তানের হেরাতে যান তখন সেখানকার শাসন ক্ষমতায় ছিলেন তৈমুরী এবং তার ছেলে শহরুখ ।তৈমুরিয়ান আফগান শাসক শহুরুখের ষড়যন্ত্রের শিকার হন এবং হেরাত ছেড়ে যেতে বাধ্য হন। তিনি এরপর সমরাকান্দ বর্তমানে উজবেকিস্তানে চলে যান। তিনি গজলের খুব ভক্ত ছিলেন এবং তার লেখা বেশ কিছু গজল আজও তাকে স্মরণীয় করে রেখেছে। তাছাড়া তিনি বেশ কিছু গ্রন্থও রচনা করেন।

– ৯৯৩ হিজরীর এ দিনে বিখ্যাত আলেম অধ্যাপক মহম্মদ বিন মহম্মদ সাদেকী মিশরে পরলোকগমন করেন। তিনি ধামির্ক ও জ্ঞানী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন এবং গভীরভাবে ধর্মীয় শিক্ষা গ্রহণ করে জ্ঞানী আলেম হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন। তিনি ফিকাহ, হাদীস এবং তাফসীর সম্পর্কে বিশেষ জ্ঞানের অধিকারী ছিলেন এবং এসব বিষয়ে তিনি খুব চমৎকার ব্যাখ্যা দিতেন। তিনি খুব সুন্দর কবিতা আবৃত্তি করতে পারতেন। এবং তার লেখা কবিতাই তিনি আবৃত্তি করতেন। তিনি তার কর্ম জীবনে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বই লেখেন ।

– জার্মান একনায়ক এডলফ হিটলার ১৮৮৯ খৃষ্টাব্দের ২০ শে এপ্রিল অষ্ট্রিয়া জার্মান সীমান্তে জন্ম গ্রহণ করেন। ১৯২১ সালে বর্তমান ন্যাশনালিস্ট সোসালিস্ট জার্মান ওয়ার্কাস পার্টি বা ন্যাৎসী পার্টির নেতা হিসেবে বিবেচিত হন। ১৯৩২ সালের নির্বাচনে তার ন্যাৎসী দল সংখ্যাগরিষ্ট দল হিসেবে আবির্ভূত হয় এবং চ্যান্সেলর হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। সে তার বর্ণবাদী লক্ষ্য অর্জনের জন্যে এস এস বাহিনীর দ্বারা বিরোধীদের জোর করে গোপন নির্যাতন ক্যাম্পে প্রেরণ করত এবং এভাবে লক্ষ লক্ষ মানুষকে হত্যা করে। ১৯৪১ সালের ডিসেম্বর মাসে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেন। সেই যুদ্ধে জার্মানী ও মিত্রদের পরাজয় হয়। আর সেই পরাজয়ের পরিপ্রেক্ষিতে ১৯৪৫ সালের ৩০ শে এপ্রিল হিটলার আত্মহত্যা করেন ।

– এদিনে সংঘটিত আরো কিছু ঘটনা তুলে ধরছি।

-১৭৭০ খৃষ্টাব্দে ব্লাক নিউ সাউথ ওয়েলস আবিষ্কার করেন ।
-১৯০২ খৃষ্টাব্দের এ দিনে কিউবা থেকে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহার করে নেয় ।
– ১৯৭৬ সালের এ দিনে জেরুজালেমে ইসরাইল বিরোধী দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ে ।

– পানিপথের যুদ্ধে আফগানদের কাছে মোগলদের পরাজয় (১৫২৬)
– অস্ট্রিয়াতে জার্মান স্বৈরশাসক এডলফ হিটলারের জন্ম (১৮৮৯)
– কিউবা থেকে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহার (১৯০২)
– মন্টিনিগ্রোর রাজা নিকোলাস সিংহাসনচ্যুত (১৯১৯)
– দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে ব্রিটিশ ব্রিগেডের ফ্রান্সে পদার্পণ (১৯৪০)
– ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর বার্লিনে প্রবেশ (১৯৪৫)
– নদার্ন রোডেশিয়ায় নির্বাচনে ইউনাইটেড ফেডারেল পার্টির জয় (১৯৫৯)
– লাওসে সামরিক অভ্যুত্থান ব্যর্থ (১৯৬৪)
-যুক্তরাষ্ট্রের এ্যাপোলো-১৬’র নভোচারীরা নিরাপদে চাদে অবতরণে সফল (১৯৭২)
-শ্রীলংকায় একটি বিশাল সেচ মজুদাগারে ফাটল ধরে বিরাট এলাকা জুড়ে প্লাবন । দুশতাধিক প্রাণহানি। ২০ হাজার পরিবার গৃহহীন (১৯৮৬)
– ইকুয়েডরের যাত্রীবাহী বিমান কলম্বিয়ার পার্বত্যাঞ্চলে বিধ্বস্ত হয়ে ৫৩ আরোহীর সবাই নিহত (১৯৯৮)

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)