আপডেট ডিসেম্বর ৮, ২০১৭

ঢাকা রবিবার, ৭ শ্রাবণ, ১৪২৫ , বর্ষাকাল, ৭ জিলক্বদ, ১৪৩৯

এই দিনে ইতিহাসের এই দিনে

ইতিহাসের এই দিনে

ইতিহাসের এই দিনে

১৯০৩ সালের ৮ই ডিসেম্বর খ্যাতনামা বৃটিশ চিন্তাবিদ ও দার্শনিক হার্বাট স্পেনসার মৃত্যুবরণ করেন। তিনি ১৮২০ খ্রীষ্টাব্দে জন্ম গ্রহণ করেন এবং তার পিতার কাছে জ্ঞানে বিভিন্ন শাখায় পড়ালেখা করেন। এরপর তিনি অভিজ্ঞ ও খ্যাতনামা ব্যক্তিত্বদের কাছ থেকে আরো গভীর জ্ঞানার্জন করেন। স্পেনসার বিশ্বাস করতেন, প্রত্যক্ষ দর্শন ও অভিজ্ঞতার মাধ্যমে শিক্ষা অর্জন করা উচিত। তিনি আরো বলেন, মানুষের চিন্তাশক্তি সীমিত এবং অধিকাংশ মানুষ আত্মার অস্তিত্বকে অস্বীকার করে। একই সাথে বৃটিশ এই দার্শনিক সৃষ্টিকর্তাকে স্বয়ং সম্পূর্ণ ও পরিপূর্ণ সত্ত্বা বলে মনে করতেন। তার লেখা কয়েকটি গ্রন্থের মধ্যে মনবিজ্ঞানের মূলনীতি, সমাজ বিজ্ঞানের মূলনীতি ও পরিবেশ বিজ্ঞানের মূলনীতি গ্রন্থগুলো অন্যতম।

১৯১৪ সালের ৮ই ডিসেম্বর আর্জেন্টিনার উপকণ্ঠে একটি দ্বীপপুঞ্জের কাছে ফাল্কল্যান্ড সাগরে বৃটিশ ও জার্মানীর মধ্যে বড় ধরণের যুদ্ধ সংঘটিত হয়েছিল। ঐ যুদ্ধে জার্মানীর নৌ বাহিনী বৃটিশ নৌ বাহিনীর কাছে পরাজিত হলে বৃটিশরা ঐ দ্বীপপুঞ্জের উপর আবারও দখলদারিত্ব প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়। উল্লেখ করা যায় ১৬শ’ শতাব্দীর শেষের দিকে ঐ দ্বীপপুঞ্জ আবিস্কার হয় এবং ১৭৬৪ খ্রীষ্টাব্দে প্রথমে ফরাসী বাহিনী তার উপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করে। কিন্তু ফল্কল্যান্ড দ্বীপপুঞ্জে তেলের খনি আবিস্কৃত হওয়ার পর বৃটিশ সেনারা ঐ এলাকা দখল করে নেয়।

১৯৪৯ সালের এই দিনে চীনের জাতীয়তাবাদী নেতা চিয়াং কাইশেক/ মাওসেতুংএর নেতৃত্বে কমিউনিষ্ট দলের সমর্থকদের কাছে পরাজিত হওয়ার পর কিছু সংখ্যক সমর্থক নিয়ে তাইওয়ানে পলিয়ে যান। তাইওয়ানে গিয়ে সেখানে তারা জাতীয় চীন সরকার গঠন করেন। সে সময় যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন নিয়ে চিয়াং কাইশেক তাইওয়ানকে চীন থেকে আলাদা করার ঘোষণা দেন এবং যুক্তরাষ্ট্র তাইওয়ানকে জাতিসঙ্ঘের সদস্য পদ দেয়র ব্যবস্থা করে। কিন্তু ১৯৭১ সালে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে এক সমঝোতার পর জাতিসঙ্ঘের সাধারণ পরিষদে সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটে চীন নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য পদ লাভ করে এবং তাইওয়ানকে জাতিসঙ্ঘের সদস্য পদ থেকে খারিজ করা হয়।

হিজরী ১৩৭০ সালের এই দিনে জাতিসঙ্ঘের এক প্রতিবেদনে ইরাকের বাথ সরকারকে ইরানের উপর চাপিয়ে দেয়া আট বছর ধরে চলা যুদ্ধের সুচনাকারী হিসাবে উল্লেখ করা হয়। সেসময় জাতিসঙ্ঘের মহাসচিব জ্যাভিয়ার প্যারেয দ্যা কুয়েলার তার প্রতিবেদনে স্পষ্ট ঘোষণা করেন, ইরাকের সাদ্দাম সরকার ১৯৮০ সালের ২২শে সেপ্টেম্বর ইরানে প্রথম হামলা শুরু করে। উল্লেখ করা যায় ফার্সী ১৩৫৯ সালের ৩১শে শাহরিভার মাসে ইরাকী সেনা বাহিনী স্থল ও আকাশ পথে ব্যাপক হামলা চালিয়ে ইরানের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিকভাবে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের সূচনা করেছিল। কয়েকটি পশ্চিমা দেশের সমর্থনে ইরাক ইরানের সীমান্তবর্তী বেশ কয়েকটি শহর ও গ্রাম দখল করে নিয়েছিল এবং নারী,পুরুষ, শিশু নির্বিশেষে বহু লোককে পাইকারিভাবে হত্যা করেছিল। কিন্তু আট বছর পর ইরাক ইরান থেকে পিছু হটে যায় এবং আজকের এই দিনে জাতিসঙ্ঘের প্রতিবেদনে ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করার জন্য সাদ্দামকে অভিযুক্ত করা হয়।

ফার্সী ১৩৭২ সালের এই দিনে মুসলিম বিশ্বের খ্যাতনামা আলেম ও ফকিহ আয়াতুল্লাহিল উজমা সাইয়্যেদ মোহাম্মদ রেজা গুলপাইগানি পরলোক গমন করেন। তিনি মধ্য ইরানের গুলপাইগান এলাকায় জন্ম গ্রহণ করে। পবিত্র কোরআন শরীফ শিক্ষার মাধ্যমে তিনি তার শিক্ষা জীবন শুরু করেন। তার সময়কার প্রখ্যাত আলেম আয়াতুল্লাহ হায়েরির মত ব্যক্তিত্বদের কাছে থেকে তিনি ধর্মীয় বিষয়ে গভীর জ্ঞানার্জন করেন। ধর্মীয় নগরী কোমে ধর্মতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার পর তিনি সেখানে শিক্ষাদানে আত্ম নিয়োগ করেন। আয়াতুল্লাহ বুরুজার্দির ইন্তেকালের পর তিনি কোমের শ্রেষ্ঠ আলেম হিসাবে পরিচিতি পান। আয়াতুল্লাহ গুলপাইগানি ইরানে ইসলামী বিপ্লবের নেতা হযরত ইমাম খোমেনী(র:) এর ঘনিষ্ঠ সহযোগি ছিলেন।

লন্ডনের ওয়েস্ট মিনিস্টারে প্রথম সড়ক বাতি প্রজ্জ্বলিত (১৮৬৮)
কবি সমালোচক হাৰ্বাটি স্পেন্সারের মৃত্যু (১৯০৩)
ফকল্যান্ড যুদ্ধে জার্মান নৌবহর নিমজ্জিত (১৯১৪)
ব্রিটেনের জেরুজালেম দখল (১৯১৮)
সাংবাদিক এম এস আলীর জন্ম (১৯২৮)
জাপানের বিরুদ্ধে গ্রেট ব্রিটেন, অষ্ট্রেলিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধ ঘোষণা (১৯৪১)
সংবিধান রচনার জন্যে দিল্লিতে ভারতের গণপরিষদের প্রথম সভা (১৯৪৬)
মিশরের কর্নেল নাসের কর্তৃক শহীদ আবদুল কাদের আওদাহসহ ইখওয়ানুল মুসলেমিনের ৫ নেতাকে ফাঁসি (১৯৫৪)
গ্রিসে রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে গণরায় (১৯৭৪)
ইসরাইলের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী গোল্ড মেয়ারের মৃত্যু (১৯৭৮)
দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থা (ঝঅঅজঈ) গঠিত (১৯৮৫)
আর্মেনিয়ায় ভূমিকম্পে লক্ষাধিক নিহত (১৯৮৮)
শিক্ষাবিদ আনাম বজলুর রশীদের মৃত্যু (১৯৯৬)

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)