ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট এপ্রিল ১৮, ২০১৭

ঢাকা সোমবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ , গ্রীষ্মকাল, ১২ রমযান, ১৪৩৯

খুলনা ‘ইসলামের সু-মধুর বানী প্রচারে দেশ বিদেশ সফর করছি’

‘ইসলামের সু-মধুর বানী প্রচারে দেশ বিদেশ সফর করছি’

নিরাপদ নিউজ সঙ্গে একান্ত সাক্ষাতকারে ভারতের মাওঃ আবুল কালাম আজাদ

এইচ,এম,শফিউল ইসলাম , ১৮ এপ্রিল, ২০১৭, নিরাপদনিউজ : ভারতীয় উপমহাদেশের প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন অনল বর্শী যুক্তি বাদী বহু ভাষা বিদ হযরত মাওঃ আলহাজ্ব মোঃ আবুল কালাম আজাদ সু দীর্ঘ ৩৩ বছর যাবদ ইসলাম প্রচারের জন্য দেশের গন্ডি পেরিয়ে এখন ভারতীয় উপমহাদেশের বিভিন্ন দেশে পদ চারণা করে চলেছেন। তিনি ভারতের বসিরহাট ফুরফুরা শরীফের আল্লামা রুহুল আমিন সাহেবের এলাকার বাসিন্ধা বহু শিক্ষা ও ধর্মীও প্রতিষ্টানের প্রতিষ্টাতা এবং সমাজ সেবক মুসলিম রেঁনেসার অগ্রদুত। তারই ধারাবাহিকতায় সাম্প্রতিক বাংলাদেশের কয়েকটি জেলায় সফর করেন তিনি। সেই সঙ্গে পাইকগাছার কপিলমুনির কানাইদিয়া গ্রামের রথখোলা ফুটবল মাঠ প্রাঙ্গণে ঐ এলাকার সর্ব কালের সেরা মুসলিম সম্মেলনে অংশ গ্রহন করেন । ভারত বর্ষের যুগউপযোগি মাওঃ আবুল কালাম আজাদ সাহেবের কিছু মতামত প্রকাশ করা হলো।
নিরাপদ নিউজ: বাংলাদেশ সফরে কেমন ভাবে কাটাচ্ছেন
মাওঃ কালাম : আলাহামদুলিল্লাহ খুবই ভাল,এর আগেও এসেছি এ দেশে সত্যই সুন্দর সুফলা শস্য শ্যমলা চমৎকার ছোট্ট্র একটি দেশ।
নিরাপদ নিউজ: বাংলাদেশে আসার ব্যপারে কিছু বলুন
মাওঃ কালাম:  দেখুন এ দেশে ইসলাম প্রচারের দায়িত্ব নিয়েছিলেন আমার দেশ ভারত থেকে আগত নাম না জানা শত শত অলি পীর আওলিয়ারা,তারা এ দেশের মাটিতেই ঘুমিয়ে আছেন এখনো । তাদেরই ধারাবাহিকতায় আমিও বছরে দু একবার আসার চেষ্টা করি কিছু বলার জন্য ও শিখার জন্য।

নিরাপদ নিউজ: আমাদের দেশের মানুষের কথা বলুন
মাওঃ কালাম: বাংলাদেশ ছোট রাষ্ট্র হলেও দেশের ভৌগলিক অবকাঠামো চমৎকার সেই সঙ্গে এ দেশের মানুষরাও অতিথী পরায়ন। আমার প্রত্যেকটা প্রগ্রামে উপচে পড়া ভিড় লক্ষ করি, দলমত নির্বিশেষে সকল মুসলিম ভাই বোনেরা মনে হয় ঈদের দিন পালন করছেন। এবং ইসলাম প্রচারে সবাই এক ও অভিন্ন।
নিরাপদ নিউজ: বর্তমান সময়ে সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ সম্পর্কে কিছু বলুন
মাওঃ কালাম: মুসলিম বিশ্বের সকল ভাইরা এক মত ইসলামে কোন সন্ত্রাস জঙ্গি রক্ত হানাহানির স্থান নেই। সন্ত্রাস কোন ধর্মের মতের ভিতর নয় ঐটা অন্ধকারের শয়তানের পথ,এ থেকে সকল ধর্মের মানুষকে সচেতন হতে হবে। তা ছাড়া ধর্মের নামে অপব্যখ্যাকারীরা দেশের তথা সমাজের জন্য কোন কল্যানকর কিছু করতে পারে না। তারাই এ সকল সন্ত্রাস জঙ্গিদের মদদ দেয়।
নিরাপদ নিউজ: অনলাইন সম্পর্কে বলুন
মাওঃ কালাম: বিশ্বের অনেক দেশ সম্পর্কে আমার জানা আছে বিশেষ করে মিডিয়া নিয়ে অনেক চিন্তা করি এবং নতুনত্ব কিছু জানার চেষ্টা করি,কিন্তু বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অনেক দেশে এখন হাতের মুঠোয় সব দেশের খবর পাওয়া যায়। তবে নিরাপদ নিউজ শুধু খবর নয়। বিশ্বের সড়ক আন্দোলনের ব্যপারে দুর্ঘটনা সর্ম্পেকে খবর সারা বিশ্বের মানুষ জানতে পারে শুধু মাত্র নিরাপদ নিউজ অনলাইনের মাধ্যমে। দোয়া করি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের আমি মুসাফির।
নিরাপদ নিউজ: বিদেশ সফরের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে কিছু বলুন
মাওঃ কালাম: আল্লাহ রিজিক ছড়িয়েছেন সমস্ত জায়গায়, পৃথিবীর নানা প্রান্তে ঘুরে দেখেছি ভিন্ন জাতি ভিন্ন ধমর্ পালন করতে শুধু মাত্র মুসলিমরা তাকবিরের বলে বলিয়ান হয়ে এক কাতারে সামিল হয়ে ওয়েষ্টান কান্ট্রিতে ধর্মীও স্থাপনা গড়ার প্রতিযোগিতা করছে। যেখানে কিছু দিন আগেও মুসলিম ধর্মীও প্রতিষ্টানের কোন চিহ্ন ছিল না।
নিরাপদ নিউজ: ইসলামের সমসাময়িক ব্যপারে কি বলতে চান
মাওঃ কালাম: পশ্চিমারা যে কালচারে বেড়াই বিশেষ করে মেয়েরা তার ধারাবাহিকতা মুসলিম পরিবারের মধ্যে ধীরে ধীরে প্রবেশ করছে এ জন্য ইসলামের অনেক ক্ষতি সাধিত হতে হচ্ছে বলে মনে করি। ঐ কালচারটা মুলত মিডিয়ার কল্যানে যুবক যুবতিরা আসক্ত হয়ে মুসলিম ঘরে প্রবেশ করাচ্ছে যখন তখন বাদ্য হচ্ছে তার পরিবার। এ ছাড়া পশ্চিমারা যখন দলে দলে ইসলামের ছায়া তলে আসতে শুরু করেছে সেই সময় ইহুদীদের চক্রান্তে ভিন্ন ভিন্ন নামে জঙ্গিবাদ সন্ত্রাস সৃষ্টি করে মুসলিম রাষ্টদের জন্য জাতির কাছে হেয় প্রতিপন্ন করে ভুল বোঝানোর চেষ্টা চলছে,এটা খুবই দুঃখ জনক। এর থেকে পরিত্রান পেতে দল মত নির্বিশেষে এক যোগে ইসলামের পথে বলিয়ান হয়ে সুন্দর সমাজ গঠনে ভুমিকা রাখতে হবে।
নিরাপদ নিউজ: আমাদের মা বোনদের উদ্দেশ্যে কিছু বলুন
মাওঃ কালাম: আল্লাহ নবী রাসুলের পর মায়ের স্থান। সে জন্য তাদের প্রতি উপদেশ নয় অনুরোধ যেমন আম গাছে ছবেদা হয় না তেমনি মা বোনদের মনে রাখতে হবে যে সন্তানকে ইসলামী সু শিক্ষায় শিক্ষিত না করলে তার ফল ও ভাল হবেনা। আরও বলবো যে আপনি আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত করুন আপনার সন্তানকে কিন্তুু মনে রাখতে হবে ধর্মীও শিক্ষা পরকাল ও নৈতিকতার শিক্ষাই শুধু দেয় না আরও অনেক কিছুরেই।
নিরাপদ নিউজ: আমাদের দেশের মুসলিমদের প্রতি যদি কিছু বলেন
মাওঃ কালাম: পৃথিবীর প্রত্যেক জীব জড় ধবংস ও কেয়ামত সংগঠিত হবে এটা মুসলিমরা জানে। তার পরও সজগ হয় না। তাদেরকে মনে রাখতে হবে যে আল্লাহ মানুষকে তার সমস্ত বডিকে জান্নাতের বিনিময় কিনে নিয়েছেন। আবার ঐ মানুষকে ভুল পথে চলার জন্য ও আল্লাহর পথে না থাকার জন্য মানুষ ও পাথর দিয়ে জাহান্নামে আগুনে ভাজা হবে এটা ভাবতে হবে। এখন চিন্তা করুন কোন পথে চলবেন।

নিরাপদ নিউজ: ধন্যবাদ

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)