আপডেট ১ মিনিট ৩ সেকেন্ড

ঢাকা শনিবার, ৫ কার্তিক, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ২০ সফর, ১৪৪১

লিড নিউজ, সাক্ষাৎকার এখন সুস্থ আছি: মুস্তাফিজ

এখন সুস্থ আছি: মুস্তাফিজ

এখন সুস্থ আছি: মুস্তাফিজ

এখন সুস্থ আছি: মুস্তাফিজ

ঢাকা, ২২ আগস্ট ২০১৬, নিরাপদনিউজ: ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) খেলে ভারত থেকে ইনজুরি নিয়ে দেশে ফিরেছিলেন বাংলাদেশের বিস্ময়বালক মুস্তাফিজুর রহমান। এরপর প্রায় এক মাস রিহ্যাবে থাকার পর সাসেক্সের হয়ে ন্যাটওয়েস্ট টি-টোয়েন্টি ব্লাস্ট ও রয়্যাল লন্ডন ওয়ানডে কাপ খেলতে লন্ডনে যান কাটার মাস্টার। কিন্তু সেখানেও দুর্ভাগ্য পিছু ছাড়েনি। দুই ম্যাচ খেলেই ইনজুরিতে পড়েন তিনি। আর তাতে প্রায় ছয় থেকে নয় মাসের জন্য ছিটকে যান তিনি। তবে অস্ত্রোপচারের পর এখন ভালো আছেন বলে জানান মুস্তাফিজ।
অস্ত্রোপচার শেষে গত শুক্রবার দেশে ফেরার কথা থাকলেও আজ সোমবার দেশে ফেরেন মুস্তাফিজ। লন্ডন থেকে ১১ ঘণ্টার ভ্রমণ শেষে এদিন সকাল ১১ টা ৩৫ মিনিটে ঢাকায় পা রাখেন তিনি। এরপর হজরত শাহ জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নিজের শারীরিক পরিস্থিতি নিয়ে তিনি বলেন, আলহামদুলিল্লাহ অনেক ভালো, আল্লাহ ভালো রেখেছেন। কাজ করতে আরও ভালো হবে। আপনাদের দোয়া আছে, দেশবাসীর দোয়া আছে।
দেশে ফিরলেও এখন নিজের গ্রামের বাড়ি সাতক্ষীরায় যাচ্ছেন না তিনি। আপাতত ক্যান্টনমেন্টে মামার বাসায় থাকবেন তিনি। সেখানে ইংল্যান্ডের ডাক্তার অ্যান্ড্রু ওয়ালেসের পরামর্শ অনুযায়ী কাজ করে যাবেন তিনি, অস্ত্রোপচারের পর ডাক্তার আমাকে কাজ দেখিয়ে দিয়েছে এবং দেবাশীষ দাকে বুঝিয়ে দিয়েছে। কিভাবে কি করতে হবে বুঝিয়ে দিয়েছে। সে অনুযায়ী কাজ করবো। তবে চার সপ্তাহ পর থেকে আমার কাজটা আরও বাড়তে থাকবে।
মুস্তাফিজকে পেতে বেশ কাঠখড় পুড়িয়ে ছিল সাসেক্স। কিন্তু মুস্তাফিজের মত দুর্ভাগ্য তাদেরও। প্রথম ম্যাচে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে দলকে জেতানোর পর তাদের প্রত্যাশার পারদ আরও উঁচুতে ছিল। কিন্তু অনাকাঙ্ক্ষিত ইনজুরিতে পড়ে আর খেলতে পারেননি। তাই স্বাভাবিকভাবেই খেলতে না পারায় খারাপ লাগছে বলে জানান মুস্তাফিজ।
হযরত শাহজালাল আর্ন্তজাতিক বিমান বন্দরে পৌঁছে খুব বেশি সময় নেননি মুস্তাফিজ। ২/১ মিনিট সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন। এরপর গাড়িতে উঠে যান তিনি। দীর্ঘ ভ্রমণে অনেকটা ক্লান্ত তিনি। সঙ্গে অস্ত্রোপচারের ধকল তো আছেই।
উল্লেখ্য গত ২০ জুলাই লন্ডনে যান মুস্তাফিজ। সাসেক্সের হয়ে ন্যাটওয়েস্ট টি-টোয়েন্টি ব্লাস্ট ও রয়্যাল লন্ডন ওয়ানডে কাপে বেশ কয়েকটি ম্যাচ খেলার কথা ছিল তার। কিন্তু ন্যাটওয়েস্ট টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টে নিজের দ্বিতীয় ম্যাচেই কাঁধে চোট পান তিনি। যা তাকে বাধ্য করেছে কাঁধে অস্ত্রোপচার করাতে। ম্যাচগুলো খেলতে না পারার আক্ষেপ নিয়ে মুস্তাফিজ বলেন, আশা করেছিলাম, সাসেক্সের হয়ে বাকি ম্যাচগুলো খেলতে পারব। কিন্তু ইনজুরির কারণে সেটা পারিনি। খুব খারাপ লাগছে।
বর্তমানে শারীরিক অবস্থা কেমন? এই প্রশ্নে জবাবে মোস্তাফিজ বলেন, এখন সুস্থ আছি। আগের চেয়ে অনেক উন্নতি হয়েছে। সার্জন আমাকে কিছু বিষয় মানতে বলেছেন। তার নির্দেশনাগুলো মেনে চলব।
প্রসঙ্গত, কাউন্টি খেলতে গিয়ে কাঁধের পুরোনো ইনজুরিতে নতুন করে ব্যথা পাওয়ায় শেষ পর্যন্ত অস্ত্রোপচার করাতে হয় মুস্তাফিজুর রহমানকে। প্রখ্যাত সার্জন অ্যান্ড্রু ওয়ালেসের তত্ত্বাবধানে ১১ আগস্ট (বৃহস্পতিবার) বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় (ইংল্যান্ডের স্থানী সময় বিকেল ৪টা) লন্ডনের ক্রমওয়েল হাসপাতালে ভালোভাবেই সম্পন্ন হয় কাটার মাস্টারের কাঁধের অস্ত্রোপচার।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)