আপডেট ২১ মিনিট ৪ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ১ কার্তিক, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১৬ সফর, ১৪৪১

ভ্রমন ওমান সালালাহ্ খারিফের সৌন্দর্য দেখতে পর্যটকদের ভিড়

ওমান সালালাহ্ খারিফের সৌন্দর্য দেখতে পর্যটকদের ভিড়

মোঃতাজুল ইসলাম মিয়াজী, ওমান,নিরাপদনিউজ: ওমানে একি দেশে দুই ঋতু, ওমান সালালাহ্ এই প্রাকৃতিক দৃশ্য দেখতে সালালাহ্তে সারা বিশ্বের পর্যটকরা ভিড় করেছেন সালালাহ্তে। সালালাহ্ ধোপার অঞ্চল সালালাহ্ নামেই খুব পরিচিত, সালালাহ্ খারিফের মৌসুমে সালালাহ্ “র তাপমাত্রা থাকে ২০ থেকে ২২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সেই সঙ্গে রয়েছে মন কাড়ানো ঘণো কুয়াশা রিমিঝিমি বৃষ্টি, অত্যয় ওমান মাস্কাটে এ সময় তাপমাত্রা রয়েছে ৫০ থেকে ৫৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
সালালাহ্ পাহাড়ের চূড়া আর নিচে সাদা মেঘের ডাকা। সেই সাথে চারদিকে হালকা ঝিরিঝিরি বৃষ্টি, সবমিলিয়ে কল্পলোকের খুব কাছাকাছি এই সৌন্দর্য। ওমান সালালাহ্ উত্তপ্ত মরুভূমির এমন আবহাওয়া দেখতে প্রতি বছর জুন জুলাইতে সারা বিশ্বের পর্যটকরা ভিড় করেন, তিনদিকে পাহাড় আর একদিকে আরব সাগর, এই সুন্দর ধোফার অঞ্চলই সালালাহ্ নামে পরিচিত।
জুনের মধ্যভাগ থেকে আগস্টের শেষ পর্যন্ত বর্ষাকালজুড়ে দেখা মেলে এই সৌন্দর্যের। এই সৌন্দর্য দেখতে শুধু বিদেশিরা নয় বাংলাদেশিরা ও আসেন পরিবার এই সৌন্দর্য দেখতে বাংলাদেশি পর্যটকরা বলেন, এখানের পরিবেশটা অনেক ভালো, মনে হচ্ছে বাংলাদেশের চট্টগ্রামের পাহাড় অঞ্চলের মতো, তাই পরিবার নিয়ে ঘুরতে এসেছি, অনেক ভালো লাগছে সালালাহ্ “র এই মৌসুম।
ওমানের অন্যান্য জায়গায় তাপমাত্রা যখন ৫০-৫৫ ডিগ্রি, তখন সালালাহ্য় মাত্র ২০-২২ ডিগ্রি, শুধুমাত্র বৈচিত্র্যময় এই ঋতুই সালালাহ্কে করেছে মধ্যপ্রাচ্যের এক টুকরো স্বর্গোদ্যান। বৃষ্টির পরশে পাহাড়ের ধূসর অঞ্চলে প্রাণের ছোঁয়া জেগেছে পর্যটকদের। সুবিস্তৃত পাহাড়রাজি সবুজের এক বিশাল চাদরে নিজেকে ঢেকে ফেলে এই সময়, যা ওমানের অন্য কোথাও দেখা যায় না।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)