আপডেট ৫৮ মিনিট ৪৩ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ৪ পৌষ, ১৪২৫ , শীতকাল, ১০ রবিউস-সানি, ১৪৪০

সাহিত্য কবিতা: ‘সংগ্রাম’

কবিতা: ‘সংগ্রাম’

জাহাঙ্গীর আলম
—————————————
আমি প্রস্তর নির্মিত ভূধরে ভাস্কর,
আমি জয়নুল আবেদিনের রং তুলির আঁচর।
আমি বঙ্গবন্ধুর জ্বালাময়ী সে ভাষণ,
আমি এই বাংলার স্বাধীনতার ডাক শনশন..
আমি ’৭১ এর বিদ্রোহী বীর সৈনিক,
আমি ১৬ ডিসেম্বর স্বাধীনতার প্রতিক।
আমি ২১ শে ফেব্রুযারী অর্জিত বাংলা বুলি,
আমি বীর বাংলার, বাংলায় কথা বলি।
আমি অন্যায়ের ত্রাস, বিদ্রোহী বলিষ্ঠ কন্ঠ,
আমি সন্ত্রাসীদের ধ্বংসে আর এক সৃষ্টি ধ্বংস।
আমি এটম, দূর্নীতি ধ্বংসের নতুন মন্ত্র,
আমি কাঙ্গালের পাশে বন্ধু, শান্ত বড় শান্ত।
আমি বর্ষার মতো বয়ে চলি বুকে ব্যাথা যদিও শত,
আমি মেনে নেই ব্যাথিত হৃদয়ের আকুতি আছে যথ।
আমি কাঙ্গাল, ঘর ছাড়া, একা পথে ফেরা,
আমি জরিয়ে ধরি ক্রন্দিত যে আমার মতো হেলা।
আমি নতুন উদ্যমে এগিয়ে চলার শপথ,
আমি পথহারা পথিকের শান্তনা, সত্যের সত্য দাপট।
আমি দিগন্ত বিস্তৃত সবুজ শ্যামল বাংলার মাঠ-ঘাঠ,
আমি পদ্মা, মেঘনা, যমুনার মতো উম্মাদ।
আমি গীষ্মের দাবদাহ, আমি বর্ষা শরতে ফোটা ফুল
আমি খড়কুটোর ফুটো চালে চাঁদের হাঁসি, ব্রম্মপুত্রের দু’কুল।
আমি নজরুল, রবিন্দ্রনাথ, চাষার হাতে লাঙ্গল,
আমি ধানভরা ক্ষেতে কৃষকের হাঁসি বয়ে চলা নদীর কলকল।
আমি গেয়ো কিশোরীর বাঁকা ঠোটের হাঁসি, রাখালের বাঁশির সুর,
আমি দিগন্তে উড়া স্বাধীন পাখি, স্বাধীনতার সেই সুর।
আমি বন্ধন ছিড়ে চলমান সন্ধানে….
আমি মত্ত বড়ই সত্যের অন্বেষনে।

***********************************

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)