ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট সেপ্টেম্বর ২, ২০১৯

ঢাকা শুক্রবার, ৪ কার্তিক, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১৮ সফর, ১৪৪১

ঢাকা ‘কম্পোস্ট প্লান্ট প্রকল্পে শহরে পলিথিন থেকে জলাবদ্ধতা দূর হবে’

‘কম্পোস্ট প্লান্ট প্রকল্পে শহরে পলিথিন থেকে জলাবদ্ধতা দূর হবে’

নিরাপদ নিউজ: নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের তত্বাবধানে মেঘা অর্গানিক বাংলাদেশ কর্তৃক বাস্তবায়িত প্লাস্টিক ও পলিথিন হতে ডিজেল ও পেট্রোল উৎপাদন প্রকল্প উদ্বোধন করেছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় পঞ্চবটিস্থ কম্পোস্ট প্লান্টে (জৈব সার উৎপাদন কেন্দ্রে) এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

তিনি বলেন, ‘জ্বালানি তেল উৎপাদনের প্রকল্প একবারে নতুন নয়। এর আগেও এ প্রকল্প শুরু হয়েছিলো আর এ প্রকল্প প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সর্বপ্রথম অনুদান প্রদান এর মাধ্যমে এই কার্যক্রম শুরু করেন। প্লাস্টিক ও পলিথিন শহরে জলাবদ্ধতা সৃষ্টির অন্যতম কারণ। এই প্রকল্প সফলভাবে চলমান থাকলে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ৫০ ভাগেরও বেশি পলিথিন জ্বালানি তেল উৎপাদনে ব্যবহৃত হবে। ফলে সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিতসহ জলাবদ্ধতা নিরসন করা সম্ভব হবে। তাই সিটি করপোরেশনের সকল কাউন্সিলরগণের দায়িত্ব হবে নিজ নিজ ওয়ার্ডে পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করার পাশাপাশি এই প্রকল্পে প্লাস্টিক পলিথিন সরবরাহ করে শহরকে জলাবদ্ধতার অভিশাপ থেকে মুক্ত করা।’

এর আগে, মেঘা অর্গানিক বাংলাদেশ-এর নির্বাহী পরিচালক মো. মিজানুর রহমান জানান, জ্বালানি তেল উৎপাদন প্রকল্পে প্রতিদিন প্রায় ৫০০ কেজি প্লাস্টিক পলিথিন হতে ডিজেল, পেট্রোল, অকটেন ও কার্বন উৎপাদিত হবে। যার পরিমাণ পরবর্তীতে প্লাস্টিক পলিথিনের প্রাপ্যতা সাপেক্ষে আরও বৃদ্ধি করা হবে। প্রতি কেজি পলিথিন ও প্লাস্টিক তিনি মান অনুযায়ী ২০ থেকে ৩০ টাকা কেজি হিসেবে কিনে নিবেন।আলোচনা পর্ব শেষে মিলাদ মাহফিল, দোয়া মোনাজাত ও ফলক উন্মোচন করে মেয়র অতিথিদের নিয়ে জ্বালানি তেল উৎপাদন প্রকল্প পরিদর্শন করেন। সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ এফ এম এহতেশামূল হকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, মেঘা অর্গানিক বাংলাদেশ এর নির্বাহী পরিচালক মো. মিজানুর রহমান, পরিবেশ আন্দলন নারায়ণগঞ্জ এর সভাপতি এ বি সিদ্দিক, প্যানেল মেয়র আফসানা আফরোজ বিভা, সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী মো. আশরাফুল ইসলাম, সংরক্ষিত কাউন্সিলর মনোয়ারা বেগম, আয়শা আক্তার দিনা, হোসনে আরা বেগম, শিউলি নওশাদ, ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম মোহাম্মদ সাদরিল, ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রুহুল আমিন মোল্লা, ১০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইফতেখার আলম খোকন, ১১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জমসের আলী ঝন্টু, ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, ১৪ নং কাউন্সিলর শফিউদ্দিন প্রধান, ১৫ নং কাউন্সিলর অসিত বরণ বিশ্বাস, ১৭ নং কাউন্সিলর আব্দুল করিম বাবু, ১৮নং কাউন্সিলর কবির হোসাইন, ১৯ নং কাউন্সিলর ফয়সাল মোহাম্মদ মো. সাগর, নগর পরিকল্পনাবিদ মো. মঈনুল ইসলাম, মেডিকেল অফিসার ডা. শেখ মোস্তফা আলী, পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা আবুল হোসেন ও পরিচ্ছন্ন পরিদর্শক শ্যামল পালসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা প্রমুখ।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)