সংবাদ শিরোনাম

২০শে অক্টোবর, ২০১৭ ইং

00:00:00 শুক্রবার, ৫ই কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ , হেমন্তকাল, ১লা সফর, ১৪৩৯ হিজরী
ব্যবসা-বাণিজ্য, লিড নিউজ কারখানা স্থাপনে অনুমোদন মিলবে দুই মাসেই

কারখানা স্থাপনে অনুমোদন মিলবে দুই মাসেই

পোস্ট করেছেন: মোবারক হোসেন | প্রকাশিত হয়েছে: অক্টোবর ৭, ২০১৭ , ৫:১৯ অপরাহ্ণ | বিভাগ: ব্যবসা-বাণিজ্য,লিড নিউজ

ফাইল ফটো

০৭ অক্টোবর, ২০১৭, নিরাপদ নিউজ : শিল্প কারখানায় বিনিয়োগ করার প্রক্রিয়াকে সহজ করা হয়েছে। এখন থেকে কারখানা স্থাপনে অনুমোদন মিলবে দুই মাসেই। দেশীয় শিল্পকে এগিয়ে নিতে কাজ করছে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। দেশের পাশাপাশি বিদেশি উদ্যোক্তাদেরও বিনিয়োগে আগ্রহী করে তুলতে সরকার নানা সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে। কিন্তু একটি কারখানা নির্মাণে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) অনুমতি নিতে ২০০৮ সালের বিধিমালা অনুযায়ী ১৫০ দিন সময় নির্ধারণ করা থাকলেও বাস্তবে সময় লেগে যেত এক বছরের ও বেশি । সঙ্গে ছিল নানা জটিলতা। ফলে এখানে বিনিয়োগে আগ্রহ হারিয়েছেন অনেকে।

এ বিষয়ে সম্প্রতি রাজউক ও বাংলাদেশে বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এমন সিদ্ধান্তের ফলে উদ্যোক্তাদের জন্য কারখানা নির্মাণে কনস্ট্রাকশন অনুমোদন পাওয়া সহজ হয়েছে।

রাজউক এলাকায় শিল্প কারখানা নির্মাণ করতে হলে ভূমি ছাড়পত্র, নকশা অনুমোদন ও সনদ নিতে হয়। আইন অনুযায়ী এসবের জন্য ৫ মাস সময় লাগার কথা থাকলেও নানা কারণে এক বছরের ও বেশি সময় লেগে যেত। তবে এখন থেকে শিল্প কারখানা নির্মাণে ছাড়পত্রসহ আনুষঙ্গিক অনুমোদন মাত্র দুই মাসের মধ্যেই পাওয়া যাবে।

এ বিষয়ে রাজউক পরিচালক (উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ) ড. মুহাম্মদ মোশারফ হোসেন বলেন, রাজউকের প্রক্রিয়াগুলো যেমন- ছাড়পত্র, নকশা অনুমোদন, অকুপেশন সার্টিফিকেট এসব সম্পন্ন হতে ১৫০ দিন সময় দরকার হয়। কিন্তু সম্প্রতি রাজউকের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে বাংলাদেশে বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের। এর ফলে কলকারখানার ক্ষেত্রে মাত্র ৬০ দিনের মধ্যে সকল অনুমোদন দেয়া হবে।

রাজউকের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মো. আবদুর রহমান বলেন, রাজউক এলাকায় কোনো ভবন নির্মাণ করতে হলে প্রথমে ভূমি ছাড়পত্র, এরপর নকশা অনুমোদন নিতে হয়। এ ছাড়া রাজউকের কাছে ম্যাপ আছে, কোথায় বাড়ি, কোথায় কারখানা, কোথায় জলাশয় হবে সব কিছুর। কেউ কিছু করতে চাইলে তার ওই স্থানে তা করা যাবে কি না সে বিষয়ে রাজউক থেকে পূর্বেই সম্মতি নিতে হবে।

তিনি বলেন, রাজউককে সহায়ক সংস্থা হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা চলছে। মানুষের দুর্ভোগ দূর করতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। – ইত্তেফাক

Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Digg thisShare on Tumblr0Email this to someonePin on Pinterest0Print this page

comments

Bangla Converter | Career | About Us