ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ডিসেম্বর ১, ২০১৪

ঢাকা মঙ্গলবার, ১২ আষাঢ়, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ২২ শাওয়াল, ১৪৪০

ফুটবল খেলা সময়মত শুরু না হওয়ায় পুলিশের উপস্থিতিতে মঞ্চ ও বিদ্যালয়ে হামলা চালিয়েছে দর্শকরা

খেলা সময়মত শুরু না হওয়ায় পুলিশের উপস্থিতিতে মঞ্চ ও বিদ্যালয়ে হামলা চালিয়েছে দর্শকরা

Mamun Pic (01-12-2014)
নিরাপদ নিউজ,সোনাতলা প্রতিনিধিঃ বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার কর্পূর দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রমীলা ফুটবল খেলা সময়মত শুরু না হওয়ায় পুলিশের উপস্থিতিতে খেলার মঞ্চ ও বিদ্যালয়ে হামলা চালিয়েছে দর্শকরা। এসময় আহত হয়েছে ৩ দর্শক।
দর্শকদের ধাওয়া খেয়ে পালিয়ে যায় আয়োজক কমিটি।
স্থানীয়রা জানিয়েছে, আজ সোমবার স্থানীয় শিবলু মিয়া সহ কিছু যুবক কর্পূর দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এক প্রীতি প্রমীলা ফুটবল খেলার আয়োজন করে। উক্ত খেলায় অংশগ্রহনের কথা ছিল ঢাকা মোহামেডান প্রমীলা ফুটবল দল বনাম গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ প্রমীলা ফুটবল দল। বেলা ৩ টায় খেলা শুরু করার কথা থাকলেও সাড়ে ৪ টার পরও খেলা শুরু না হওয়ায় দর্শক উত্তেজিত হয়ে ওঠে। পরে দর্শকরা খেলার মঞ্চে হামলা চালায়। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন থানা ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ সেলিম হোসেন, উপজেলা আনছার ভিডিপি কর্মকর্তা মোঃ তাজিনুর রহমান, সাবেক দিগদাইড় ইউপি চেয়ারম্যান আলী তৈয়ব শামীমসহ অনেকে।
জানাগেছে, প্রমীলা ফুটবল খেলার কারনে সোনাতলা থানা পুলিশ ও বগুড়া থেকে অতিরিক্ত বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েত করা হয়। তাদের উপস্থিতিতেই হামলা চালায় দর্শক। এসময় পুলিশ নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করে বলে জানাগেছে।
খেলা নির্ধারিত সময়ে শুরু না হওয়ায় উত্তেজিত দর্শকরা মঞ্চ ভাংচুর করে আগুন ধরিয়ে দেয়। এসময় বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর, জানালা -দরজা, মাইক, গেট, চেয়ার টেবিল ভাংচুর করে।
খেলা আয়োজক কমিটির সাথে কথা বলে জানাগেছে, খেলা দেখার জন্য প্রতি দর্শকের ২০ টাকা টিকেট নির্ধারন করা হয়।
প্রায় ১০ হাজার দর্শক ২০ টাকায় টিকিট সংগ্রহ করে মাঠে ঢোকানো হয় বলে আয়োজক কমিটি জানান।
সোনাতলা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ সেলিম হোসেনের সাথে কথা বলার চেস্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)