ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট জুন ৩, ২০১৯

ঢাকা শুক্রবার, ৪ কার্তিক, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১৯ সফর, ১৪৪১

বিনোদন ঘোর কেটেছে পুষ্পিতা পপির

ঘোর কেটেছে পুষ্পিতা পপির

নিরাপদ নিউজ: হঠাৎ করেই বদলে গেলেন মনতাজুর রহমান আকবরের হাত ধরে চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার শুরু করা চিত্রনায়িকা পুষ্পিতা পপি। ঘোষণা দিয়েছেন এখন থেকে আর অভিনয় করবেন না। বাকি জীবনটা ইবাদত বন্দেগি করেই কাটাবেন। অবশ্য বছর দুই পুষ্পিতা চলচ্চিত্র থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছেন। এই প্রতিবেদকের সাথে প্রায়ই কথায় তিনি বলতেন চলচ্চিত্রে এসে তিনি ভুল করেছেন। তার বাবা কখনই চাননি মেয়ে ফিল্মে জড়াক। কিন্তু নেশা থেকে চলচ্চিত্রে এসেছেন। ঘোর কেটে যাওয়ার পর বুঝলেন এই জগতে আসা তার ভুল হয়েছে। তাই ফিরেও যাচ্ছেন।
পুষ্পিতা পপি বিভিন্ন সময় গণমাধ্যমের সাথে কথায় কথায় বলতেন, আমি ধার্মিক পরিবারের মেয়ে। শখ বা নেশার ঘোরে বলা যায় অভিনয়ে পা রেখেছিলাম। অভিনয়ে পা রাখার পরও আমি কিন্তু নিয়মিত নামাজ পড়তাম। সিনেমার অনেকেই তা জানেন। অভিনয়ে থাকাকালীন বারবার মনে হয়েছিল, ক্ষণিকের আনন্দের জন্য আমি সব হারাচ্ছি। একটা সময় আমার মধ্যে সে বোধটা চলে আসে। এর পরই আমি সিনেমার জীবন ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিই। উল্লেখ্য পুষ্পিতার বাবা একজন মাদ্রাসা শিক্ষক ছিলেন।
এদিকে পুষ্পিতা অভিনীত তিনটি ছবির কাজ অসমাপ্ত আছে। সেগুলোর ভবিষ্যত জানতে চাইলে বলেন, আমার অভিনীত তিনটি ছবির কাজ অসমাপ্ত আছে। এগুলো হলো- ‘ঠোকর’, ‘প্রেম হতেই পারে’ ও ‘ফাগুনের আগুন’। এই ছবির কাজ শেষ করতে নির্মাতাদের বারবার তাগাদা দিয়েছি। কিন্তু তারা ছবিগুলোর কাজ শেষ করেনি। এখন আমি কী করব। চেষ্টা করবো ছবিগুলো শেষ করে দিতে। তারজন্য নির্মাতাকেই এগিয়ে আসতে হবে। বছরের পর বছর চলে গেলে তো আমি পারবো না। সম্প্রতি পুষ্পিতা পপি অভিনীত ‘গার্মেন্টস শ্রমিক জিন্দাবাদ’ ছবিটি সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। মোস্তাফিজুর রহমান বাবু পরিচালিত এই ছবিতে পুষ্পিতা পপির বিপরীতে অভিনয় করেছেন কাজী মারুফ। ছবির কাহিনী ও সংলাপ লিখেছেন গুণী নির্মাতা কাজী হায়াৎ। নায়িকা হিসেবে তার পথচলা শুরু হয় মনতাজুর রহমান আকবরের ‘আগে যদি জানতাম তুই হবি পর’ ছবিতে। আর সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘ধূসর কুয়াশা’।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)