আপডেট ২০ সেকেন্ড

ঢাকা শনিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ , গ্রীষ্মকাল, ১০ রমযান, ১৪৩৯

চট্টগ্রাম, ব্যবসা-বাণিজ্য চট্টগ্রামে রমজানের আগেই নিত্যপণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে মনিটরিং: সিটি মেয়র

চট্টগ্রামে রমজানের আগেই নিত্যপণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে মনিটরিং: সিটি মেয়র

চট্টগ্রামে রমজানের আগেই নিত্যপণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে মনিটরিং

শফিক আহমেদ সাজীব, ১৮ এপ্রিল, ২০১৭, নিরাপদনিউজ : আসন্ন পবিত্র রমজান মাসের আগেই নিত্যপণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণ, খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধে মনিটরিং করা হবে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন। গতকাল সোমবার চসিকের কনফারেন্স হলে সিটি করপোরেশন এলাকায় নিত্য প্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের বাজার স্থিতিশীল, বাজার তদারকি, খাদ্য ও পণ্যে ভেজাল রোধে কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) চট্টগ্রাম বিভাগ ও নগর কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন,আগামী রমজানের পূর্বে নিত্য প্রয়োজনীয় ভোগ্য পণ্যের বাজার স্থিতিশীল রাখা, বাজারগুলো তদারকির আওতায় আনা, খাদ্যে ভেজাল, নকল, মাছ, মাংস ও ফলমূলে ফরমালিনসহ বিভিন্ন ক্যামিকেল মিশ্রণরোধে ভ্রাম্যমাণ মোবাইল কোর্টের সংখ্যা বাড়ানো হবে। নিত্য প্রয়োজনীয় ভোগ্য পণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে আমদানিকারক, খুচরা ও পাইকারী ব্যবসায়ীসহ ট্রেড বডির নেতাদের সাথে সভা করা, সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন ২১টি বাজারে ওয়ার্ড কাউন্সিলর, চেম্বার, বাজার সমিতি, আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার প্রতিনিধি, ক্যাব, সাংবাদিক প্রতিনিধি সমন্বয়ে মনিটরিং কমিটি, ওয়ার্ড পর্যায়ে ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ নিয়ে সচেতনতা সভা আয়োজন করা হবে। এছাড়াও সিটি কর্পোরেশনের সিভিল সোসাইটি উপদেষ্টা কমিটি, নাগরিক ও ভোক্তা স্বার্থ সংশ্লিষ্ট কমিটিতে ক্যাব প্রতিনিধি অর্ন্তভুক্ত করা, সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে অভিভাবক ফোরাম গঠন ও শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে অভিভাবক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের মাঝে নিয়মিত সংলাপ আয়োজন করা ও ভোক্তাদের সচেতন করার জন্য ক্যাব এবং সিটি কর্পোরেশন যৌথভাবে বিভিন্ন প্রচারণা কর্মসূচি গ্রহণ করার ঘোষণা প্রদান করেন।

মেয়র নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্য পণ্যের বাজার তদারকি ও খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধে চসিকের উদ্যোগ জোরদার করতে সিটি কর্পোরেশন প্রশাসনকে নির্দেশনা প্রদান করেন। একই সাথে নাগরিক ভোগান্তি রোধে বিশেষ করে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, শিক্ষা বিস্তার, জলাবদ্ধতা নিরসন ও যানজট নিরসনে ইতিমধ্যে গৃহিত কর্মসূচির বৃত্তান্ত উপস্থাপন করে এসমস্ত কাজে ক্যাব নেতৃবৃন্দের সহযোগিতা কামনা করেন।

সভায় ক্যাবের পক্ষ থেকে চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাধারণ সম্পাদক কাজী ইকবাল বাহার ছাবেরী ১৩ দফা প্রস্তাবনা উপস্থাপন করেন। প্রস্তাবনার মধ্যে আছে, আগামী রমজান মাসে নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্য পণ্যের বাজার স্থিতিশীল রাখার জন্য খুচরা ও পাইকারি ভোগ্যপণ্য ব্যবসায়ী এবং ট্রেড বডির নেতাদের সাথে মতবিনিময় সভার আয়োজন করা, সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত নিরাপদ খাদ্য পরীক্ষাগার পরিচালনায় ক্যাবের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা, মোবাইল কোর্টে ক্যাব প্রতিনিধি থাকার নিশ্চিত করা ও খাদ্য ও জনভোগান্তি বিষয়ে মোবাইল কোর্টের সংখ্যা বাড়ানো, নগরীর যানজট ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনায় ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের সম্পৃক্ততা বাড়ানো, ক্লিন সিটি ও গ্রিণ ময়লা-আবর্জনা পরিস্কার ও পরিছন্নতা অভিযান জোরদার করতে বিন বিতরণ ও জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে প্রচারণা কর্মসূচিতে ক্যাবের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা অন্যতম।

আলোচনায় সভায় অংশ নেন, ক্যাব কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এস এম নাজের হোসাইন, ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম হায়দার মিন্টু, আঞ্জুমান আরা, সাইফুদ্দিন খালেদ, বেভী দোভাষ, ক্যাব মহানগর সভাপতি জেসমিন সুলতানা পারু, সাধারণ সম্পাদক অজয় মিত্র শংকু, যুগ্ন সম্পাদক এ এম তৌহিদুল ইলসাম, ক্যাব নেতা হাজী আবু তাহের, দক্ষিণ জেলা সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল মান্নান, জানে আলম, শাহীন চৌধুরী, হারুন গফুর ভূইয়া, জান্নাতুল ফেরদৌস, মোনায়েম বাপ্পি, মিলি চৌধুরী, ফারহানা জসিম, কামরুন্নাহার শম্পা, জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)