ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ২২ মিনিট ২৯ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ১ কার্তিক, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১৬ সফর, ১৪৪১

চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম পটিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত শ্যালক ও দুলাভাইকে একই জায়গায় শায়িত

চট্টগ্রাম পটিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত শ্যালক ও দুলাভাইকে একই জায়গায় শায়িত

শফিক আহমেদ সাজীব,নিরাপদ নিউজ:  সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত শ্যালক ও দুলাভাইকে একই জায়গায় শায়িত করা হয়েছে। সোমবার রাত সাড়ে ১০টায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরাকান মহাসড়কের পটিয়া উপজেলার আমজুরহাট স্বপ্নপুরী কমিউনিটি সেন্টারের সামনে একটি ট্রাক কেড়ে নিয়েছে শ্যালক রফিকুল ইসলাম আরজু (৩০) ও দুলা ভাই মো. শাহজানের (৪৫) প্রাণ।

গতকাল বাদ আছর শ্যালক ও দুলাভাইয়ের মরদেহ পটিয়া পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাগজীপাড়া এলাকায় আনা হলে বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন মরদেহ দেখতে ভিড় জমায়। আরজু ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক প্রধান কার্যালয়ে অভ্যর্থনাকারী হিসেবে ২০১৪ সাল থেকে কর্মরত ছিলেন। তিনি কাগজীপাড়া এলাকার জহির আলমের পুত্র। তার দুলাভাই একজন পল্লী চিকিৎসক। তিনি পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের সুচক্রদন্ডী গ্রামের বাসিন্দা আবদুল মালেকের পুত্র। ৬ বোনের একমাত্র ভাই ছিলেন আরজু। বোনদের মধ্যে তিন বোন বিবাহিত ও তিন বোন বর্তমানে অবিবাহিত। মা-বাবা, বোন ও আত্মীয়স্বজনের আহাজারিতে এলাকার বাতাস ভারী হয়ে ওঠেছে। আরজুর পিতা জহির আলমের অনুরোধে গতকাল জানাজা শেষে তাদের পারিবারিক কবরস্থানে শ্যালক-দুলাভাইকে পাশাপাশি শায়িত করা হয়েছে।

জানা গেছে, গত ঈদুল আজহার ছুটিতে নিয়ে আরজু গ্রামের বাড়ি পটিয়ায় আসেন। ঈদের ছুটি শেষে গত সোমবার রাত সাড়ে ১১টায় ট্রেনে ঢাকায় ফেরার কথা ছিল। কিন্তু আর ফেরা হলো না। মোটরসাইকেলে শ্যালককে চট্টগ্রাম রেল স্টেশনে নিয়ে যাচ্ছিলেন দুলাভাই। রাত সাড়ে ১০টায় পটিয়ার আমজুর হাট এলাকায় পৌঁছুলে ট্রাকের ধাক্কায় শ্যালক ও দুলাভাই প্রাণ হারান। গতকাল সকালে দুটি ফ্রিজার এম্বুলেন্সে বাড়িতে আনা হয় শ্যালক আরজু ও দুলাভাই মোহাম্মদ শাহজাহানের মরদেহ।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)