ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ৫ মিনিট ৪৬ সেকেন্ড

ঢাকা বুধবার, ৫ পৌষ, ১৪২৫ , শীতকাল, ১১ রবিউস-সানি, ১৪৪০

অর্থনীতি, লিড নিউজ জাতীয় আয়কর দিবসে রাজস্ব ভবন প্রাঙ্গণ শোবিজ তারকাদের মিলনমেলা

জাতীয় আয়কর দিবসে রাজস্ব ভবন প্রাঙ্গণ শোবিজ তারকাদের মিলনমেলা

নিরাপদ নিউজ : ৩০ নভেম্বর, আজ জাতীয় আয়কর দিবস। ‘আয়কর প্রবৃদ্ধির মাধ্যমে সামাজিক ন্যায়বিচার ও ধারাবাহিক উন্নয়ন নিশ্চিতকরণ’ প্রতিপাদ্য নিয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) সারাদেশে দিবসটি উদযাপনের কর্মসূচি নিয়েছে। দিবসটির উদ্বোধন উপলক্ষে আজ সকালে কাকরাইল রাজস্ব ভবন প্রাঙ্গণ শোবিজ তারকাদের মিলনমেলায় পরিণত হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, আমরা সবাই মিলে কর দিলে, রাষ্ট্রের উন্নয়ন হবে। দেশের অর্থশালী প্রতিটি পরিবারে এমন কর দেয়াকে গর্বের বিষয় হিসেবে নিলে দেশের উন্নয়ন বহুগুণে বেড়ে যাবে।

অভিনেতা রিয়াজ বলেন, দেশের পদ্মাসেতুর নির্মাণে যত সিমেন্ট ব্যবহার হচ্ছে। কর প্রদানের কারণে আমি মনে করি আমিও পদ্মাসেতু নির্মাণে এক ব্যাগ সিমেন্টের গর্বীত অংশীদার। কারণ আমার করের টাকা মানে রাষ্ট্রের টাকা। আর রাষ্ট্রের টাকা মানেই পদ্মাসেতুর মতো অভাবনীয় উন্নয়ন।

অভিনেতা ফেরদৌস বলেন, প্রথম প্রথম আমার মনে হতো আমার টাকা কেন এনবিআরকে দিব। এখন সেটা অভ্যাস হয়ে গেছে। আমার মতো এখন অনেকেরই আয়কর প্রদান অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। তাই দেশে উন্নয়নের জোয়ার বয়েছে। আয়কর যত আদায় হবে উন্নয়ন তত ত্বরান্বিত হবে। তাই বলবো আসুন আমরা আয়কর দেয়, উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখি।

অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী বলেন, আজ আমার শুটিং শিডিউল ব্রেক করে এখানে এসেছি। কারণ আমি মনে করি এটা আমার রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব। প্রতিবারেই আসি এ অনুষ্ঠানে। তাই এটা ঘরের মতো আপন অনুষ্ঠান হয়ে গেছে। আমরা সবাই মিলে কর দিলে, রাষ্ট্রের উন্নয়ন হবে বহুগুণে বাড়বে।

শিল্পী কুমার বিশ্বজিত বলেন, কর দিবস আজ উৎসবে পরিণত হয়েছে।ধনবানরা আজ ভাবেন যে তার রাষ্ট্রের জন্য অবশ্যই কিছু করণীয় আছে।যার প্রথম ধাপ নিয়মিত কর দেয়া।

অভিনেত্রী চম্পা বলেন, আমার স্বামী নিয়মিত কর দেয়।এটা আমার গর্বের বিষয়। আমি মনে করি দেশের অর্থশালী প্রতিটি পরিবারে এমন কর দেয়াকে গর্বের বিষয় হিসেবে নিলে দেশের উন্নয়ন বহুগুণে বেড়ে যাবে।

অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস বলেন, কর প্রদান গর্বের বিষয়। এক সময় এটা বিড়ম্বনার থাকলেও এখন অনেক সহজ হয়ে গেছে। কর প্রদান করে এখন আমরা বলতে পারি রাষ্ট্রের উন্নয়নে আমিও একজন অংশীদার।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)