ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ২৬ মিনিট ২৯ সেকেন্ড

ঢাকা সোমবার, ৩ পৌষ, ১৪২৫ , শীতকাল, ৯ রবিউস-সানি, ১৪৪০

চট্টগ্রাম জাতীয় নির্বাচনে সাম্প্রদায়িক উসকানি নিয়ে সজাগ থাকার আহ্বান

জাতীয় নির্বাচনে সাম্প্রদায়িক উসকানি নিয়ে সজাগ থাকার আহ্বান

শফিক আহমেদ সাজীব,নিরাপদনিউজ:  আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় সাম্প্রদায়িক উসকানি নিয়ে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান।

৪ নভেম্বর রবিবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সম্প্রীতি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই আহ্বান জানান। সম্প্রীতি বাংলাদেশ নামে একটি সংগঠন এই সমাবেশের আয়োজন করে।

আবদুল মান্নান বলেন, সামনে নির্বাচন আসছে। কোনো সাম্প্রদায়িক উসকানিতে কান দেওয়া যাবে না। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের ইতিবাচক-নেতিবাচক দু’টি দিক আছে। তাই সজাগ থাকতে হবে। অতীতে ক্ষমতাকে পাকাপোক্ত করতে কিছু দল ধর্মকে ব্যবহার করেছে। ২০০১ সালে নির্বাচনের আগে বিএনপি প্রচার করেছিল আওয়ামী লীগ আসলে মসজিদে উলুধ্বনী শোনা যাবে। শুধু বাংলাদেশ নয়, বিভিন্ন দেশে ধর্মকে সব সময় বিভাজনের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে।

‘শুধু নির্বাচন নয়, যে কোনো পূজায় আমরা শঙ্কায় থাকি। ছোটবেলায় দেখতাম পূজায় কোনো পুলিশ নেই। নির্বিঘ্নে পূজা হচ্ছে। এখন নিরাপত্তার জন্য পুলিশ দিতে হয়। তেমন পয়লা বৈশাখের অনুষ্ঠানেও পুলিশ দিতে হয়। এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণের জন্য সম্প্রীতি দরকার’, বলেন তিনি।

পীযূষ বন্দোপাধ্যায়
সভাপতির বক্তব্যে নাট্যজন পীযূষ বন্দোপাধ্যায় বলেন, চট্টগ্রাম সব সময় ভালো কাজ এবং প্রগতির সঙ্গে ছিল। এই চট্টগ্রাম বীরের চট্টগ্রাম। যারা দেশে সম্প্রীতি বিনষ্ট করে তাদের বিরুদ্ধে আমাদের ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। তাদের বিষদাঁত ভেঙে দিতে হবে। মানুষের চেয়ে বড় শক্তি কিছু নেই। সামনের নির্বাচনের জন্য সম্প্রীতি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপচার্য ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, সামনে নির্বাচন আসছে। তাই ঐক্য এবং সম্প্রীতি বজায় রাখতে হবে।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন সিডিএ মসজিদের খতিব অধ্যাপক গিয়াস উদ্দিন তালুকদার, সীতাকুণ্ড শংকর মঠের সভাপতি তপনানন্দ মহারাজ এবং ক্যাথলিক চার্চের সদস্য এলড্রিন বিশ্বাস।

সম্প্রীতি সমাবেশ
এছাড়া চট্টগ্রাম চারুকলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ রীত দত্ত, লেখিকা অধ্যাপক আনোয়ারা আলম, প্রথম আলোর উপ বার্তা সম্পাদক ওমর কায়সার, কবি ও সাংবাদিক রাশেদ রউফ, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের মহাব্যবস্থাপক নিতাই কুমার ভট্টাচার্য, চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, ওয়ার্ড কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন, বিএফইউজে‘র সহ-সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম, আবৃত্তিকার অঞ্চল চৌধুরী সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন।

সমাবেশের শুরুতে সঙ্গীত পরিবেশন করে নজরুল সংগীত শিল্পী সংস্থা, তারুণ্যের উচ্ছ্বাস ও শিল্পকলা একাডেমির শিক্ষার্থীরা।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)