ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট এপ্রিল ২৭, ২০১৭

ঢাকা মঙ্গলবার, ৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ২১ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১

বিনোদন, লিড নিউজ জীবিত থেকেও তারা নাকি আজ মৃত! তারকাদের নিয়ে মৃত্যুর গুঞ্জন বন্ধ হোক

জীবিত থেকেও তারা নাকি আজ মৃত! তারকাদের নিয়ে মৃত্যুর গুঞ্জন বন্ধ হোক

তারকাদের নিয়ে মৃত্যুর গুঞ্জন বন্ধ হোক

এনএসসি-সোহাগ, নিরাপদনিউজ : বর্তমান সময়ে গুজব ছড়ানোর প্রধান রাস্তা হিসেবে বলা চলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক! নানান ধরনের গুজব এই ফেসবুকে ছড়াতে সক্ষম প্রতারক চক্র। নেই কোন বাধা নেই কোন নিয়মনীতি। যার যা ইচ্ছা হলো ফেসবুকের পাতায় তা প্রকাশ করতে পারেন। এরপর সেখান থেকেই শুরু সত্য মিথ্যা যাচাই বাছাই না করে লাইক কমেন্ট শেয়ার এরপর বিন্দু বিন্দু কনা থেকে সাগড়ের পানিতে পরিনত!

ফেসবুকে ভালো কিছু প্রচারের থেকে বর্তমান সময়ে অপপ্রচারটাই যেন বেশী লক্ষ করা যাচ্ছে। ইদানিং সমাজের বিভিন্ন স্তরের সম্মানিত ব্যক্তিদের নিয়ে নানা অপপ্রচার শুরু হয়েছে। ফেসবুকে লাইক,অনলাইন নিউজ পোর্টালে ভিউ, ইউটিউব চ্যানেলে ভিউ সংখ্যা বাড়াতে নানান জন নানান ভাবে বিভ্রান্তিমুলক প্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। তারকাদের নিয়ে অপপ্রচার সামাজিক মাধ্যমে নতুন নয়। তবে কোন মানুষের জীবন মরণ নিয়ে গজব সত্যি দু:খজনক। বিশ্বাস যোগ্য না হলেও আজ এটাই সত্যি যে,ফেসবুকে অনেকের কাছে রাজ্জাক,কবরী,ইলিয়াস কাঞ্চন, আলমগীর, পবীরমিত্র, আলীরাজ, রিয়াজ, শাবনুর, খল নায়ক ডন সহ অসংখ্য প্রায় বাংলা চলচ্চিত্রের প্রতিটি শিল্পি আজ মৃত! অনলাইনে প্রায় কিছু দিন পরপরই আমরা দেখছি আজ এ তারকা মারা গেছেন কাল আরেক তারকা মারা গেলেন যদিও এসবই মিথ্যা এবং ভূয়া সংবাদ। যা কিনা এক শ্রেণীর অসাধু প্রতারকচক্ররা করেছে।

কিছু দিন আগে  মেহের আফরোজ শাওন পরিচালিত একটি সিনেমায় চিত্রনায়ক রিয়াজের মৃত্যুর দৃশ্যের ছবি ব্যবহার করে কিছু অনলাইন নিউজ পোর্টাল পাঠকদের সাথে প্রতারণামূলক একটি নিউজ প্রকাশ করে ফেললো। যে নিউজটি কিনা খুব অল্প সময়ে ভাইরাল হয়ে যায়। আর কেনইবা হবে না। নিউজটির শিরোনাম দেখে যে কেউ আঁতকে উঠাটাই স্বাভাবিক। শিরোনামটি এমন ‘দূর্ঘটনায় নিহত চিত্রনায়ক রিয়াজ| নিরাপদ সড়কের দাবীতে মানববন্ধনের ডাক’ অনেকেই এই ছবিটি সত্য মনে করে তার নামে ভূয়া মৃত্যুর সংবাদটি বিশ্বাসও করেন।

আর কত প্রতারনার শিকার হবে পাঠক

এর কিছুদিন পর আবার দেখা যায়  ‘রাজধানীর আতংক ডন, ৪ সহযোগীসহ নিহত’। প্রকাশিত সংবাদের সঙ্গে ছাপা হয়েছে বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় খলনায়ক ডনের ছবি। ছবিটির দিকে একটু ভালো করে তাকালে দেখা যায়, প্রথম আলোর গেটআপে পত্রিকাটির নাম ‘দেশের আলো’। বোঝা গেল, মজা করার জন্যই কেউ প্রথম আলো পত্রিকায় এডিট করে ডনের ছবি বসিয়ে ‘দেশের আলো’ নাম দিয়ে অভিনেতা ডনের এ সংবাদটি প্রকাশ করেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছবিটি নিয়ে চলেছে নানা রকম চটকদার মন্তব্য।

এছাড়াও দেশীয় চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি নায়ক রাজ রাজ্জাক মাস খানের আগে অসুস্থ্য ছিলেন ঠিক সে সময় কে বা কারা হঠাৎ অনলাইনে নিউজ করে দিলেন নায়ক রাজ্জাক আর নেই তিনি মারা গেছেন! শুরু হলো ফেসবুকে শেয়ার তারপর জানা গেলো বিষয়টি নিয়ে নায়ক রাজ রাজ্জাক নিজেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

গত ৪দিন আগের কথা হঠাৎ নিরাপদ নিউজ অফিসে দেশ বিদেশ থেকে ফোনের ওপর ফোন ভক্তদের আনাগোনা কারণ হিসেবে জানা গেলো কে বা কারা অনলাইনে একটি ভিডিও শেয়ার করেছে যার টাইটেল দেয়া হয়েছে ‘ইন্না নিল্লা- নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন আর নেই- তিনি মারা গেছেন !


ঘটনাটি কারা ঘটাচ্ছে তা এখনো পরিস্কার ভাবে জানা না গেলেও চিত্র নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন এর ভক্ত এবং দেশ বিদেশের নিরাপদ সড়ক চাই এর কর্মিরা বিষয়টি জানার পর ক্ষোভে ফেটে পড়েন। সবাই ক্ষোভ প্রকাশ করে এই মিথ্যা অপপ্রচারকারীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানিয়েছেন।

সর্বশেষ গতকাল রাত থেকে আবারও শুরু হয়েছে নায়িকা শাবনুরের মৃত্যুর গুঞ্জন!

মানুষের বিবেকের কাছে প্রশ্ন এভাবে আমরা আর কত প্রতারিত হব? এমন বিভ্রান্তিমূলক ছবি বা সংবাদ কেন আমরা প্রতিনিয়ত দেখছি। এগুলো বন্ধ না হবার কারণ কি। জীবিত তারকাদের এভাবে মৃত বলে যারা ঘোষনা দিচ্ছে এই খুনীদের কি শাস্তি হবে না? দেশ বিদেশে থাকা অনেকে আজ এসব ভূয়া সংবাদে প্রতারনার শিকার হচ্ছেন। তারকাদের নিয়ে তাদের জনপ্রিয়তাকে পুঁজি করে লাইক কমেন্ট বাড়ানোর নেশায় এসব বিভ্রান্তিকর অপপ্রচার যারা চালাচ্ছ তাদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমুলক ব্যবস্থা গ্রহন করা হোক এটা আজ সচেতন মহলের দাবি। এসব বন্ধে দ্রুত কার্যকরি পদক্ষেপ গ্রহনে কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করছি। সেই সাথে পাঠকদের প্রতি অনুরোধ আপনারা ঐসব ভূয়া সংবাদে কখনো সত্যতা যাচাই না করে তাদের পোস্টে কখনো লাইক কমেন্ট দেবেননা বা শেয়ার করবেন না। যারা এসমস্ত অপপ্রচার চালায় তাদের থেকে সতর্ক থাকবেন নয়তো বারবার প্রতারিত হবেন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)