সংবাদ শিরোনাম

২৬শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং

00:00:00 বৃহস্পতিবার, ১৪ই বৈশাখ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ , গ্রীষ্মকাল, ১লা শাবান, ১৪৩৮ হিজরী
চট্টগ্রাম, সড়ক সংবাদ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ট্রাক-কাভার্ড ভ্যানের বাম্পার অপসারণ অভিযান

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ট্রাক-কাভার্ড ভ্যানের বাম্পার অপসারণ অভিযান

পোস্ট করেছেন: Nsc Sohag | প্রকাশিত হয়েছে: এপ্রিল ১৯, ২০১৭ , ৩:৪৩ অপরাহ্ণ | বিভাগ: চট্টগ্রাম,সড়ক সংবাদ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ট্রাক-কাভার্ড ভ্যানের বাম্পার অপসারণ অভিযান

শফিক আহমেদ সাজীব, ১৯ এপ্রিল, ২০১৭, নিরাপদনিউজ : ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ট্রাক-কাভার্ড ভ্যানের সামনের বিপজ্জনক বাম্পার অপসারণে অভিযান শুরু হয়েছে। এ লক্ষে গতকাল (মঙ্গলবার) সীতাকুণ্ডের বড়দারোগারহাটে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথারিটির উদ্যোগে ও জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয়। এতে ৭টি ট্রাক-কাভার্ড ভ্যানের বাম্পার অপসারণ, ১১টি গাড়িকে মামলা ও ১১ হাজার টাকা জরিমানাও আদায় করা হয়। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ট্রাক-কাভার্ড ভ্যানসহ যানবাহনের সামনে লাগানো অনুমোদনবিহীন বাম্পার, এঙ্গেল, হুক অপসারণের জন্য বারবার সময় দেওয়ার পরও বহু গাড়ি থেকে এসব অপসারণ করা হয়নি। ফলে বিআরটিএ এদের বিরুদ্ধে কঠোর অভিযান শুরু করেছে। নগরীতে বাম্পার, এঙ্গেল-যুক্ত গাড়ির বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনার পর গতকাল ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কেও মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। অভিযানকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, চট্টগ্রামের ডেপুটি কমিশনার কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবদুস সামাদ শিকদারের নেতৃত্বে বিআরটিএ’র সহকারী পরিচালক (প্রকৌশল) কে.এম মাহাবুব কবির ও মোটরযান পরিদর্শক মো. রবিউল ইসলাম হাইওয়ে পুলিশের সহযোগিতায় অনুমোদনবিহীন যানবাহনগুলোকে আটক করে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছেন। এ অভিযানে ৭টি গাড়ির সামনে থেকে বাম্পার মেশিন দিয়ে কেটে সম্পূর্ণরুপে অপসারণ করা হয়। একই সময়ে আরো ১১টি গাড়ির বিরুদ্ধে মামলা করে ১১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। বিআরটিএ’র সহকারী পরিচালক (প্রকৌশল) কে.এম মাহাবুব কবির ও মোটরযান পরিদর্শক মো. রবিউল ইসলাম প্রতিবেদককে বলেন, যানবাহনের সামনের এসব বাম্পার, এঙ্গেল ও ধারালো হুক খুলে নেওয়ার জন্য গাড়ি মালিকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রথম দফায় ৩০ নভেম্বর ২০১৬ পর্যন্ত সময় দেওয়া হয় তাদের। এরপর আরো দুই দফা সময় বাড়ানো হয়। সর্বশেষ বিপজ্জনক বাম্পারগুলো খুলতে গত ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত সময় বেঁধে দেওয়া হয়। সর্বশেষ সময়ের মধ্যেও যারা বাম্পার খোলেনি তাদের বিরুদ্ধে এখন অভিযান শুরু হয়েছে। সারাদেশেই মহাসড়কে অভিযান চলছে। চট্টগ্রাম অংশে গত ১৬ ও ১৭ এপ্রিল আমরা অভিযান পরিচালনা করে গাড়িচালক ও মালিকদের সতর্ক করার পর ১৮ এপ্রিল থেকে বাম্পার অপসারণ শুরু করেছি। যানবাহনের এসব বাম্পার ও এঙ্গেল অপসারণে চলমান এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান তারা।

Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn2Digg thisShare on Tumblr0Email this to someonePin on Pinterest0Print this page

comments

Bangla Converter | Career | About Us