ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ১ মিনিট ২৮ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ১১ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ , গ্রীষ্মকাল, ৯ই শাবান, ১৪৩৯ হিজরী

চট্টগ্রাম, সড়ক সংবাদ ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে দ্রুতগামী ট্রেন চালুর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে: ফজলে করিম চৌধুরী

ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে দ্রুতগামী ট্রেন চালুর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে: ফজলে করিম চৌধুরী

ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে দ্রুতগামী ট্রেন চালুর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে

শফিক আহমেদ সাজীব, ১৯ মে ২০১৭, নিরাপদ নিউজ : বর্তমানে বাংলাদেশ রেলওয়ে প্রকৃত গণপরিবহনে রূপ নিয়েছে উল্লেখ করে রেলপথ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী বলেছেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে দ্রুতগামী ট্রেন চালুর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। এতে করে ঢাকা-চট্টগ্রামে দ্রুত যাওয়া-আসা সম্ভব হবে। গতকাল পিএইচপি ভিআইপি লাউঞ্জে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব আয়োজিত ‘নান্দনিক চট্টগ্রামের নন্দিত নাগরিক’ শীর্ষক মতবিনিময় অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে তিনি চট্টগ্রামসহ সারাদেশের রেল ব্যবস্থার উন্নয়নে নেয়া গুচ্ছ পরিকল্পনা তুলে ধরে রেলের সেবা আরও বাড়ানোর ঘোষণাও দেন। এছাড়া চট্টগ্রামকে নান্দনিক হিসেবে গড়ে তুলতে বিভিন্ন উদ্যোগের কথাও জানান। চট্টগ্রামের উন্নয়ন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি চট্টগ্রামের মানুষ, দেশকে ভালোবাসি, চট্টগ্রামকেও ভালোবাসি। চট্টগ্রামের উন্নয়নে সমন্বিত পরিকল্পনা নেই। উন্নয়নে আমরা অনেক পিছিয়ে আছি। চট্টগ্রামের সকল মন্ত্রী ও এমপিরা মিলে চট্টগ্রামের সমন্বিত উন্নয়নের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিশাল ফান্ড চাইব। আন্তরিকভাবে কাজ করলে দুই-তিন বছরে চট্টগ্রামকে সিঙ্গাপুর শহরের আদলে করা যায়। তবে এক্ষেত্রে ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা প্রয়োজন। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সংবাদপত্র দৈনিক আজাদী সম্পাদক এম এ মালেক, দৈনিক বীর চট্টগ্রাম মঞ্চের সম্পাদক সৈয়দ উমর ফারুক, দৈনিক নয়াবাংলার সম্পাদক জিএম এনায়েত উল্লাহ খান, রাউজানের উপজেলা চেয়ারম্যান এহসানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, চট্টগ্রাম টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আলী আব্বাস। চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব সভাপতি কলিম সরওয়ারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ মতবিনিময় অনুষ্ঠানে দেশব্যাপী উন্নয়ন কার্যক্রম চললেও চট্টগ্রামে কাঙ্খিত উন্নয়ন না হওয়ায় এ জন্য সমন্বয়হীনতাকে দায়ী করে এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী বলেন, চট্টগ্রামে আসলে অনেক কিছু দরকার। সিআরবিতে এখন যে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড দেখছেন- তা খণ্ডিত, অর্ধেক মাত্র। এখানে বিশাল এলাকা জুড়ে আধুনিক হাসপাতাল গড়ে তোলা হবে। সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি কাজী আবুল মনসুর, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ। ফজলে করিম চৌধুরীর জীবনী পাঠ করেন প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মিন্টু চৌধুরী। শুরুতে প্রধান অতিথিকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি মনজুর কাদের মনজু। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রেস ক্লাবের অর্থ সম্পাদক দেবদুলাল ভৌমিক, সাংস্কৃতিক সম্পাদক শহীদুল্লাহ শাহরিয়ার, ক্রীড়া সম্পাদক নজরুল ইসলাম, গ্রন্থাগার সম্পাদক রাশেদ মাহমুদ, সমাজসেবা ও আপ্যায়ন সম্পাদক রোকসারুল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য ম. শামসুল ইসলাম, হেলাল উদ্দিন চৌধুরী ও মোয়াজ্জেমুল হক। অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের জন্য ২৫০ কেভি জেনারেটরের রেপ্লিকা হস্তান্তর করেন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)