আপডেট অক্টোবর ৩০, ২০১৮

ঢাকা সোমবার, ৮ মাঘ, ১৪২৫ , শীতকাল, ১৪ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪০

শিক্ষা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মুখে কালি মেখে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মুখে কালি মেখে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ

নিরাপদ নিউজ: পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটে চালক, সাধারণ মানুষ ও শিক্ষার্থীদের হয়রানির প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) মানববন্ধন করেছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধনে তারা মুখে কালো মবিল মেখে ও হাতে বিভিন্ন প্লাকার্ড  বহন করে অভিনব প্রতিবাদ জানান। গতকাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে এ মানববন্ধন পালিত হয়। এ সময় পরিবহন ধর্মঘটে নারী নির্যাতন, শিশুহত্যা (ধর্মঘটে আটকা পড়ে অ্যাম্বুলেন্সে এক শিশুর মৃত্যু) এবং শিক্ষার্থীদের ভোগান্তির প্রতিবাদ জানানো হয়। মানববন্ধন থেকে তিন দফা দাবি তুলে ধরা হয়। দাবিগুলো হলো শিক্ষার্থীদের অবাধ চলাচল নিশ্চিত করতে হবে, আন্দোলনের নামে সাধারণ মানুষের ভোগান্তি সৃষ্টি না করা এবং অ্যাম্বুলেন্সসহ অন্যান্য রোগী বহনকারী গাড়ি চলাচল করতে দিতে হবে। সাধারণ শিক্ষার্থীরা মানববন্ধনে বিভিন্ন প্লাকার্ড প্রদর্শন করেন, যাতে লেখা ছিল ‘ভর্তি পরীক্ষার্থীদের ভোগান্তি কেন?’ ‘আলকাতরা সন্ত্রাস নিপাত যাক’ ‘দেশের বুকে চুনকালি শ্রমিক নেতার নেই বুলি’ ‘স্কুল ড্রেসে কালি কেন?’ ‘কালি নাকি কলঙ্ক?’ ইত্যাদি ইত্যাদি। শিক্ষার্থীরা বলেন, সংবিধান যেকোনো রাষ্ট্রের নাগরিকদের আন্দোলন করার অধিকার দিয়েছে। এটা তাদের সাংবিধানিক অধিকার। কিন্তু নৈরাজ্য করার অধিকার সংবিধানে নেই। জনগণকে ভোগান্তিতে ফেলার অধিকার কারও নেই। পথ অবরোধ করার অধিকারও সংবিধানে দেওয়া হয়নি। তারা আরও বলেন, যে শিশুটি মারা গেছে, এটাকে আমরা মৃত্যু বলতে পারি না। এটা একটি স্পষ্ট হত্যাকাণ্ড। আমরা শ্রমিকদের আন্দোলনের বিপক্ষে না। কিন্তু এ ধরনের অরাজকতা কোনো শ্রমিক করতে পারে না। এ ধরনের অপকর্মগুলো সরকারের একটি মাফিয়া চক্র দ্বারা করা হচ্ছে। আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসেবে এসব অরাজকতা মেনে নিতে পারি না। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)