আপডেট মার্চ ৩০, ২০১৯

ঢাকা সোমবার, ১ শ্রাবণ, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ১২ জিলক্বদ, ১৪৪০

ফুটবল তিন পয়েন্টের লক্ষ্য নিয়ে নেপালে আবাহনী

তিন পয়েন্টের লক্ষ্য নিয়ে নেপালে আবাহনী

নিরাপদ নিউজ: এএফসি কাপের গ্রুপ পর্ব পেরুতে না পারার হতাশা দূর করতে উন্মুখ হয়ে আছে আবাহনী লিমিটেড। চাওয়া পূরণে এবারের আসরে জয়ে শুরুর লক্ষ্য দলটির। প্রথম ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ নেপালের চ্যাম্পিয়ন মানাং মার্সিয়াংদি।

আগামী বুধবার ‘ই’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে কাঠমান্ডুর আনফা কমপ্লেক্সে স্বাগতিক মানাং মার্সিয়াংর্দির মুখোমুখি হবে ফেডারেশন কাপের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে খেলার সুযোগ পাওয়া আবাহনী।

এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের তৃতীয় সারির টুর্নামেন্ট প্রেসিডেন্টস কাপে ২০০৮ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত খেলা পাঁচ আসরে গ্রুপ পর্ব পেরুতে পারেনি আবাহনী। এরপর ২০১৭ ও ২০১৮ সালে খেলা এএফসি কাপেও একই অবস্থা তাদের।

গত দুই আসরে ছয় ম্যাচে ১টি করে জয় ও ড্র এবং চার হার নিয়ে গ্রুপ পর্ব থেকে যাত্রা থামে আবাহনীর। ২০১৭ সালে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বেঙ্গালুরু এফসির বিপক্ষে ২-০ গোলে একমাত্র জয়টি পেয়েছিল তারা; সেবার একমাত্র ড্র (১-১) মোহনবাগানের সঙ্গে। পরেরবার একমাত্র জয় (১-০) বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে পাওয়া; ১-১ ড্রটি ভারতের লিগের আরেক দল আইজল এফসির সঙ্গে।

আগামী রোববার নেপালের পথে রওনা দেবে আবাহনী। চোটের কারণে দলে নেই নির্ভরযোগ্য ডিফেন্ডার তপু বর্মন। দক্ষিণ কোরিয়ার ফরোয়ার্ড মিন-হিয়োক কোর জায়গায় ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ওয়েলিংতন সিরিনো প্রিওরিকে নেওয়ার কথাও শনিবার সংবাদ সম্মেলনে জানান আবাহনী কোচ মারিও লেমোস।

“মিন-হিয়োক কো ভালো কিন্তু ওর চেয়ে ওয়েলিংতনের অভিজ্ঞতা বেশি। আইএসএলে (জামসেদপুর এএফসি) খেলেছে।  সব কিছু মিলিয়ে মনে হয়েছে ওয়েলিংতন দলের জন্য ভালো হবে।”

“তপুর না থাকাটা তেমন কোনো সমস্যা হবে না। টুটুল হোসেন বাদশা আছে। গত এএফসি অনূর্ধ্ব-২৩ চ্যাম্পিয়নশিপে সে ভালো খেলে এসেছে। তবে তপুর জায়গায় যে বা যারা সুযোগ পাবে তাদেরও পারফরম্যান্স করার সুযোগ থাকবে।”

প্রিমিয়ার লিগের প্রথম লেগের খেলা শেষের পর বিরতি চলায় গত সাত দিন দল নিয়ে কাজ করেছেন লোমোস। ম্যাচটি আনফা কমপ্লেক্সের টার্ফে বলে পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে আবাহনী এ কদিন অনুশীলনও সেরেছে কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামের টার্ফে। তাছাড়া দলের সবাই লিগে খেলার মধ্যে ছিল বলেও জয়ে শুরুর ব্যাপারে আশাবাদী লেমোস।

“খেলোয়াড়রা ফিট আছে। প্রস্তুতি ভালো। আমাদের কাছে সবার প্রত্যাশা বেশি। প্রথম ম্যাচটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। মানাংয়ের খেলা আমরা দেখেছি। সামনে আরও দুদিন সময় আছে, আরও দেখব। মানাং কঠিন প্রতিপক্ষ। তবে ইতিবাচক ফলের জন্যই আমরা যাচ্ছি।”

গোলরক্ষক ও অধিনায়ক শহীদুল আলম সোহেল জয় ছাড়া অন্য কিছু ভাবছেন না।

“প্রথম ম্যাচ গুরুত্বপূর্ণ। ৩ পয়েন্টের জন্য খেলব আমরা। এবার আমাদের দল আগের চেয়ে ভালো। সবাই ফর্মে আছে। গোল খাওয়াও চলবে না আমাদের।”

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)