ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট এপ্রিল ১১, ২০১৯

ঢাকা মঙ্গলবার, ১১ বৈশাখ, ১৪২৬ , গ্রীষ্মকাল, ১৮ শাবান, ১৪৪০

স্বাস্থ্য কথা তুরস্কের উপ-স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ইনসেপ্টার ফ্যাক্টরি পরিদর্শন

তুরস্কের উপ-স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ইনসেপ্টার ফ্যাক্টরি পরিদর্শন

জাহিদ রহমান, নিরাপদনিউজ: সম্প্রতি তুরস্কের স্বাস্থ্য মন্ত্রাণালয়ের মাননীয় উপ-স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রফেসর ডঃ ইমায়নে আলপ মেজি ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড-এর সাভারস্থ’ ফ্যাক্টরি পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে তিনি ইনসেপ্টা ভ্যাকসিন এবং ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালস্ লিমিটেড এর বায়োটেক ঔষধ উৎপাদনের ফ্যাক্টরি পর্যবেক্ষণ করেন। তিনি ফ্যাক্টরির উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহার দেখে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। বাংলাদেশ সরকারের পাশাপাশি বেসরকারী পর্যায়ে দেশের স্বনামধন্য ঔষধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ইনসেপ্টা সাথে যৌথ সহযোগিতায় আগ্রহী তুরস্ক। ঐ সহযোগিতার মাধ্যমে তুরস্ক-তার দেশের জনগনের স্বাস্থ্যসেবা উন্নয়নে ফার্মাসিউটিক্যাল বিষয়ক প্রযুক্তি ও তথ্য আদান প্রদানে করবে। শীঘ্রই বিশেষজ্ঞ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দল বাংলাদেশে আসবে বলেও জানিছেন, সফররত তুরস্কের উপ-স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইমায়নে আলপ মেজি। তুরস্কের টিএমএমডিএ এর প্রেসিডেন্ট বলেন, ইনসেপ্টার তৈরী এন্টি আলসারেন্ট ইঞ্জেকশন ‘প্যান্টোনিক্স ’ তুরস্কে বাজারের বহুল জনপ্রিয়। সেই সুবাদে তারা ইনসেপ্টা ঔষধ সম্পর্কে অবহিত। তবে এবারের সফরে তারা ইনসেপ্টার ভ্যাকসিন ও বায়োটেক জাতীয় ঔষধ সম্পর্কে তাদের আগ্রহ প্রকাশ করেন। ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল মুক্তাদির প্রতিষ্ঠানটির বিশ্ব মানের বায়োটেক এবং ভ্যাকসিন উৎপাদনে সক্ষমতার কথা তুলে ধরেন, ‘ ইনসেপ্টা ২০০০ সাল থেকে কারেন্ট গুড ম্যানুফ্যাকচারিং প্র্যাকটিস (সিজিএমপি) অনুযায়ী ঔষধ উৎপাদন করে আসছে। দেশীয় ঔষধ বাজারের পাশাপাশি ২০০৬ সাল থেকে বিশ্বের ৬৭টি দেশে সুনামের সঙ্গে ঔষধ রপ্তানি করছে। ইনসেপ্টা ২০১০ সালে দেশের প্রথম ও একমাত্র ডব্লিউ এইচ ও জিএমপি মানের হিউম্যান ভ্যাকসিন ফ্যাক্টরি স্থাপন করে। এই কারখানার প্রতিদিন ২.৪ লক্ষ এম্পুল ও ৩.৬ লক্ষ ভায়াল উৎপাদনে সক্ষমতা রয়েছে এবং বিশ্বমানের এনিমেল ল্যাব হাউস রয়েছে যেখানে ভ্যাকসিনের এর কার্যকরিতা সুচারুরূপে পরীক্ষা করা হয়।’ তিনি আরও বলেন, আগামী ৪/৫ বছরের মধ্যে আমেরিকাসহ বিশ্বের প্রায় সবক’টি দেশে আমরা ঔষধ রপ্তানি করতে সক্ষম হব। ’ সকাল সাড়ে ৯.৩০ টায় প্রতিনিধিদল ইনসেপ্টা ভ্যাকসিন লিমিটেডের উৎপাদন কারখানা পরিদর্শনে যান। উপ-স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাননীয় প্রফেসর ডঃ ইমায়নে আলপ মেজি এর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন টিএমএমডিএ এর প্রেসিডেন্ট, ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল মুক্তাদির, টিএমএমডিএ এর বিভিন্ন বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এবং তুরস্কের ঔষধশিল্পের বেসরকারী প্রতিনিধিদল।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)