ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ১ মিনিট ২ সেকেন্ড

ঢাকা রবিবার, ৩ আষাঢ়, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ১৩ শাওয়াল, ১৪৪০

আইন-আদালত, চট্টগ্রাম দক্ষিণ চট্টগ্রামের সড়কে অভিযান: বাড়তি ভাড়ার অভিযোগে ৬ পরিবহনকে ৯৩ হাজার টাকা জরিমানা

দক্ষিণ চট্টগ্রামের সড়কে অভিযান: বাড়তি ভাড়ার অভিযোগে ৬ পরিবহনকে ৯৩ হাজার টাকা জরিমানা

শফিক আহমেদ সাজীব,নিরাপদ নিউজ: বাড়তি ভাড়ার অভিযোগে দক্ষিণ চট্টগ্রামগামী বাসগুলোতে সাঁড়াশি অভিযান পরিচালনা করেছেন বিআরটিএ’র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস, এম, মনজুরুল হক। মিডিয়ার প্রতিবেদন ও দক্ষিণ চট্টগ্রামের রুটগুলোর যাত্রীদের অভিযোগের ভিত্তিতে নতুন ব্রিজ ও মইজ্জারটেক এলাকায় ১১ জন ২০১৯ মঙ্গলবার এ অভিযান পরিচালিত হয়।

অভিযানে দেখা যায়, ঈদের এক সপ্তাহ পার হয়ে গেলেও ঈদ বকশিশের নামে এখনো বিভিন্ন রুটের বাসগুলো যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে। পটিয়া-সাতকানিয়া-লোহাগাড়া রুটের বাসগুলো আমিরাবাদ থেকে নতুন ব্রিজের
ভাড়া নিচ্ছে ১৫০ টাকা করে যেখানে বর্ণিত দূরত্বের নির্ধারিত ভাড়া ১০০ থেকে ১২০ টাকা। অপর একটি বাস পটিয়া থেকে নতুন ব্রিজের ভাড়া আদায় করছে ৫০ টাকা করে, অথচ পটিয়া থেকে নতুন ব্রিজের নিয়মিত ভাড়া হলো ২০ টাকা। একইভাবে বাঁশখালী রুটের বাসগুলোও এখনো বাড়তি ভাড়া আদায় করছে। এ রুটের কয়েকটি বাসের যাত্রীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, বাঁশখালী সদর থেকে নতুন ব্রিজের ভাড়া ৬৫ টাকা হলেও কোন কোন ১২০ টাকা পর্যন্ত নিয়ে ফেলছে। আবার কোন কোনটা সিট ক্যাপাসিটির কথা বলে অতিরিক্ত ভাড়া নিয়ে বাসভর্তি দাঁড়িয়ে যাত্রী নিচ্ছে।

বাস যাত্রীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, চালক-হেলপাররা এখনো ঈদ বকশিশের কথা বলে তাদেরকে জিম্মি করে নির্ধারিত ভাড়ার অনেক বেশি ভাড়া আদায় করছে। এর প্রতিবাদ করতে গেলে তারা যাত্রীদের সাথে অশালীন আচরণ করে। এ ধরনের বাড়তি ভাড়া আদায় ও যাত্রী হয়রানির অপরাধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে পটিয়া-সাতকানিয়া-লোহাগাড়া ও বাঁশখালী রুটের ৫টি বাসকে মোট ৭৩ হাজার টাকা জরিমানা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস, এম, মনজুরুল হক। অপর দুটি বাস ও ম্যাক্সিমার যাত্রীদের কাছ থেকে নেয়া বাড়তি ভাড়া তাৎক্ষণিক যাত্রীদের ফিরিয়ে দিতে বাধ্য করা হয়। পরবর্তীতে অপর এক অভিযানে গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রুটের শ্যামলী পরিবহনের ঢাকামেট্রো ব ১১-১৪৮১ নম্বরের বাসটির বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

অভিযোগ রয়েছে, শ্যামলী পরিবহনের উক্ত বাসটি গত ৯ জুন তারিখে বাড়তি ভাড়া আদায় করলে যাত্রীরা তার প্রতিবাদ করেন। পরবর্তীতে বাসটি নতুন ব্রিজ পৌঁছালে বাসের সুপারভাইজার এক যাত্রীকে বাস থেকে নামিয়ে মারধর করেন। মারধরের ভিডিওসহ গণমাধ্যমে উক্ত ঘটনার সংবাদ প্রকাশিত হয় এবং বাসটির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য যাত্রীদের পক্ষ থেকে দাবি উঠে।

ঘটনাটি আমলে নিয়ে যাত্রী হয়রানির অপরাধে ম্যাজিস্ট্রেট এস, এম, মনজুরুল হক আজ উক্ত বাসের মালিককে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন এবং অভিযুক্ত সুপারভাইজারের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মালিকপক্ষকে এক সপ্তাহ সময় বেঁধে দেন। পরবর্তীতে এ ধরনের যাত্রী হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেলে আরও কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে হুশিয়ার করে দেন বিআরটিএ’র এ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)