ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট আগস্ট ২৫, ২০১৯

ঢাকা সোমবার, ২ আশ্বিন, ১৪২৬ , শরৎকাল, ১৭ মুহাররম, ১৪৪১

চট্টগ্রাম দেশের উন্নয়নকে থামিয়ে দিতে ২১ আগস্ট হত্যাকান্ড ঘটিয়েছিলো: ভূমিমন্ত্রী জাবেদ

দেশের উন্নয়নকে থামিয়ে দিতে ২১ আগস্ট হত্যাকান্ড ঘটিয়েছিলো: ভূমিমন্ত্রী জাবেদ

মালেক রানা,নিরাপদ নিউজ: চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

শনিবার (২৪ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৫টায় উপজেলার শিকলবাহা ক্রসিং এলাকায় একটি কমিউনিটি সেন্টারে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি আ.ম.ম টিপু সুলতান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক পার্থ সারথীর সঞ্চালনায় জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা আরম্ভ হয় ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় ভূমিমন্ত্রী আলহাজ্ব সাইফুজ্জমান চৌধুরী জাবেদ বলেন, ১৫ আগষ্ট আমরা হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ পরিবারের সকল সদস্যকে হারিয়েছি। পিতা মুজিবের অসমাপ্ত স্বপ্ন পূরণের জন্য নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তাঁরই সুযোগ্য দেশরত্ন শেখ হাসিনা।

আমাদের সবার উচিত মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া করা যাতে তিনি দীর্ঘদিন আমাদের মাঝে বেঁচে থেকে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার স্বপ্ন পূরণ করতে পারেন। বক্তব্যে তিনি জননেত্রীর একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প ও গুচ্ছ গ্রামের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা জাতির পিতার হত্যাকারীদের আইনের আওতায় এনেছেন আর দেশকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। এ দেশের উন্নয়নকে থামিয়ে দিতে ২১ আগস্ট হত্যাকা- ঘটিয়েছিল খালেদা জিয়া ও তার ছেলে তারেক। এরা চেয়েছিল বাংলাদেশের উন্নয়নের মা শেখ হাসিনাকে হত্যা করে এ দেশের উন্নয়নকে থামিয়ে দিতে।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধক চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দীন বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশের জন্ম হতোনা, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে পরিচয় দিতে পারত না। আমাদের প্রিয় স্বদেশ বাংলাদেশ পেতাম না। জীবিত বঙ্গবন্ধুর চেয়ে মৃত বঙ্গবন্ধু অনেক বেশি শক্তিশালী-আজকে সেটা প্রমাণিত হয়েছে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে দক্ষিণ জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বলেন, ১৫ আগষ্ট বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর যখন বঙ্গবন্ধুর লাশ টুঙ্গিপাড়ায় নিয়ে যাওয়া হয় তখন তারা তৎকালিন ইমাম সাহেবকে ডেকে বলেন জানাজায় কেউ আসতে পারবেনা এবং ১০ মিনিটের মধ্যেই লাশ দাফন করতে হবে।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আ’লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ও কর্ণফুলী উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক চৌধুরী, প্রচার সম্পাদক নুরুল আবছার চৌধুরী, উপজেলা আ.লীগের সভাপতি অধ্যাপক এম.এ মান্নান চৌধুরী, আনোয়ারা উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী, কর্ণফুলী উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক হায়দার আলী রনি, আনোয়ারা উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক এম.এ মালেক, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার ইসলাম আহমদ, দক্ষিণ জেলা যুবলীগের সহ সভাপতি যথাক্রমে দিদারুল ইসলাম চৌধুরী, শহিদুল ইসলাম, দিদারুল আলম চেয়ারম্যান, যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ সোলাইমান, যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জাহেদুর রহমান সোহেল, জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক কৃষ্ণ প্রসাদ ধর, কর্ণফুলী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি সোলায়মান তালুকদার, বোয়ালখালী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আবদুল মান্নান, বাশঁখালী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি অধ্যাপক তাজুল ইসলাম, সাতকানিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি একেএম আসাদ, পটিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি বেলাল উদ্দিন, চন্দনাইশ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি তৌহিদুল আলম চৌধুরী, পটিয়া পৌরসভা যুবলীগের সভাপতি নুরুল আলম সিদ্দিকী, পটিয়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এম.এ রহিম, আনোয়ারা উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এইচ.এম ওসমান গণি রাসেল, কর্ণফুলী উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সেলিম হক, পটিয়া পৌরসভা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলম,চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্র লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের প্রমুখ।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)