ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ২৪ মিনিট ৪০ সেকেন্ড

ঢাকা বুধবার, ১৩ আষাঢ়, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ২২ শাওয়াল, ১৪৪০

রাজশাহী ধানসহ সকল কৃষি পণ্যের নায্য মূল্যের দাবিতে নওগাঁয় মানববন্ধন

ধানসহ সকল কৃষি পণ্যের নায্য মূল্যের দাবিতে নওগাঁয় মানববন্ধন

রায়হান আলম,নিরাপদ নিউজ:  “বাঁচলে কৃষক বাঁচবে দেশ,গড়বো সোনার বাংলাদেশ”এই স্লোগাণকে সামনে রেখে নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার মধইল বাজারে প্রগতি স্যোসাল ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন এর উদ্যোগে এলাকার কৃষকদের নিয়ে মানব বন্ধন কর্মসুচী ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মানব বন্ধনে ধানসহ সকল কৃষি পণ্যের ন্যায্য মূল্যে নির্ধারণ কৃষিখাতে পর্যাপ্ত ভর্তুকি প্রদান ও ধানের ন্যায্য মজুরির দাবি জানানো হয়।

শুক্রবার বিকেলে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানব বন্ধনে বক্তব্য রাখেন প্রগতি স্যোসাল ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন এর প্রধান উপদেষ্টা বিশিষ্ট সমাজসেবক সাইদুর ইসলাম চৌধুরী বাদল, সংগঠনের চেয়ারম্যান মানবাধিকার কর্মী বিশিষ্ঠ সমাজসেবক আবু হোসেন, সম্পাদক জিয়াউল হক, সংগঠনের ভাইস চেয়ারম্যান সুলতান মাহমুদ, যুগ্ন মহাসচিব শহিদুল ইসলাম রুপক, শিক্ষা সম্পাদক সামিউল ফারুক,তারেক প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, কৃষক মাথার ঘাম পায়ে ফেলে যে ধান উৎপাদন করেন সেখানে বিশেষত শ্রমব্যয় ও অন্যান্য উপকরণের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে সঙ্গত কারণে ধান উৎপাদন ব্যয় বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু কৃষক ন্যায্য মূল্যে ধান বিক্রি করতে পারছেন না তাই কৃষকের ন্যায্য মূল্যে ধান সহ কৃষি পণ্য সরকারকে ক্রয় করার আহ্বান জানান।

বক্তারা আরও বলেন, সরকার যে দর নির্ধারণ করে দিয়েছে সে দরেও যদি ধান বিক্রি করে টাকা হাতে পেতেন তা হলেও কৃষকের কিছুটা লাভ থাকতো। কিন্তু কৃষক কম দরে বাকিতে ধান বিক্রি করে ক্রেতার কাছে ধর্ণা দিয়েও টাকা পাচ্ছেন না। এটা কৃষকের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উপর বড় ধরনের চাপ। কৃষক যদি লাভ না পান, উৎসাহ না পান, তাহলে তারা ধান উৎপাদনে আগ্রহ হারাবেন।

আমাদের খাদ্য নিরাপত্তা হুমকিগ্রস্থ হলে অনেক কিছুর উপরই তার নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে। তাই কৃষককে বাঁচাতে ধানের ন্যায্য মূল্য বৃদ্ধি করা দরকার। মানববন্ধন থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি ধানের মূল্য বৃদ্ধির জন্য পদক্ষেপ গ্রহণের অনুরোধ জানানো হয়। উক্ত মানব বন্ধনে প্রগতি ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন এর সকল সদস্য ও বিভিন্ন গ্রামের ভূক্তভুগি কৃষক ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)