ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ৩১ সেকেন্ড

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৭ ভাদ্র, ১৪২৬ , শরৎকাল, ২০ জিলহজ্জ, ১৪৪০

জীবনযাপন, রাজশাহী ধামইরহাটে দুই ভিক্ষুখের আর্তনাদ: ‘ঈদে-চাঁন্দেও বেটা-বেটিরা চাইয়া দেখেনা’

ধামইরহাটে দুই ভিক্ষুখের আর্তনাদ: ‘ঈদে-চাঁন্দেও বেটা-বেটিরা চাইয়া দেখেনা’

ধামইরহাটে দুই ভিক্ষুখের আর্তনাদ

আবুমুছা স্বপন, নিরাপদ নিউজ : “ঈদে-চান্দেও বেটা-বেটিরা চাইয়া দেখেনা, সারা দিন ভিক্ষা করে ৩ পোয়া চালও হয়না, ৩টা বেটা (ছেলে) ১টা বেটি (মেয়ে) থাকার পরও মোককেহ এক সনজা (একবেলা) ভাতও দেয় না বাবা, সমাজসেবা থেকে ৩ মাস ৫ মাস পর কিছু টাকা পাই, তা না হলে ছেড়া কাপড় দিয়ে ঈদ করতে হতো।” ২০ অক্টোবর বিকেল ৪ টায় নওগাঁর ধামইরহাটে ক্যান্টিন মোড়ে দুই ভিক্ষুখের আর্তনাদ শুনতে গিয়ে তাদের মধ্যে একজন ভিক্ষুক ১নং ধামইরহাট ইউপির বাদদিঘী গ্রামের মৃত রহিমুদ্দিন মন্ডলের ছেলে মফিজ উদ্দিন (৯০) কাঁদো কাঁদো কণ্ঠে এসব কথা বলতে থাকেন।

তিনিও আরও বলেণ, আজকে ৫০ টাকার মত পাইছি এটা দিয়ে কেজি চাল কিনে স্ত্রীকে নিয়ে পাক করে খাব। ছেলে মেয়ে-কেউ তার খোজ-খবর নেয় না। সঙ্গে থাকা অপর ভিক্ষুক শারীরিক প্রতিবন্ধী মৃত মজো মন্ডলের ছেলে আকমদ্দিন (৬০) বলেন, আমার ৪টি সন্তান জন্মের পর পরই মারা গেছে, অসুস্থ শরীর নিয়ে কাজ করতে পারি, কি কারণে মারা গেছে জিজ্ঞাসা করলে আকমদ্দিন বলেন, উপরা রোগে (জ্বিন-ভূত) তারা মারা গেছে। আজকে ৪০ টাকা পোরেনি ৩ পোয়া চাল কিনে আজকের দিনটা পার করব। মেম্বার-চেয়ারম্যানরা প্রতিবন্ধী ভাতা-বয়স্ত ভাতা করে দেবার নাম করে ভোট নিয়ে আর খোজ নেয় না।

এ বিষয়ে উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মো. তারিকুল ইসলাম, বলেন, বাদ পড়া প্রতিবন্ধী ব্যক্তিকে সমাজসেবা অফিসে আসা মাত্রই তাকে তালিকাভুক্ত করা হবে, আর বিভিন্ন ভাতা ভোগীদের টাকা প্রত্যেক মাসে মাসে নিয়মিত প্রদানের বিষয়টি সরকারীভাবে প্রক্রিয়াধীন আছে, এটি বাস্তবায়ন হলে তাদের দুঃখ দুর্দশা দূর হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সফিউজ্জামান ভুইয়া বলেন, সন্তানরা স্বাবলম্বী হওয়া সত্বেও যদি কোন পিতা-মাতার ভরণ-পোষন না দেয়, অবহেলা করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে পিতা-মাতার ভরণ-পোষন আইন ২০১৩ এর আওতায় পিতা-মাতা মামলা করতে পারবেন, আর সরকারের ভিক্ষুক জরিপ কর্মসূচি চলমান আছে, এ কর্মসূচির মাধ্যমে তাদের পূনর্বাসন করাও সম্ভব।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)