ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট জুন ২৯, ২০১৯

ঢাকা মঙ্গলবার, ২ শ্রাবণ, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ১৩ জিলক্বদ, ১৪৪০

রাজশাহী, শিক্ষা ধুনটের শ্রেষ্ঠ শিক্ষক আবু জাফর এবং সাজিয়া আফরিন

ধুনটের শ্রেষ্ঠ শিক্ষক আবু জাফর এবং সাজিয়া আফরিন

কারিমুল হাসান লিখন, নিরাপদ নিউজ: বগুড়ার ধুনট উপজেলায় শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক নির্বাচিত হয়েছেন কলেজ পর্যায়ে এস.এম আবু জাফর সিদ্দিক এবং স্কুল পর্যায়ে সাজিয়া আফরিন। জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে তারা এ স্বীকৃতি পেয়েছেন। শুক্রবার আনুষ্ঠানিক ভাবে তাদের শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক হিসেবে সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়েছে।

এস.এম আবু জাফর সিদ্দিক ধুনট সরকারি ডিগ্রি কলেজের ইংরেজী বিভাগের প্রভাষক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। ২০১৫ সালের ২৭ এপ্রিল তিনি ধুনট সরকারি ডিগ্রি কলেজে যোগদেন। এরআগে তিনি চিকাশী টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজে ৪ বৎসর ইংরেজী বিষয়ে শিক্ষকতা করেছেন। এস.এম আবু জাফর সিদ্দিক ধুনট উপজেলার চৌকিবাড়ী ইউনিয়নের সরোয়া গ্রামের আবু বকর সিদ্দিকের ছেলে।

ধুনট সরকারি ডিগ্রি কলেজে যোগদানের পর থেকেই তিনি সুনামের সহিত পাঠদান করে আসছেন। এছাড়াও সৃজনশীল কর্মকান্ডে তার বিশেষ ভ‚মিকা রয়েছে। জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০১৯ উপলক্ষ্যে ধুনট উপজেলার শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক (কলেজ পর্যায়) নির্বাচিত হোন।

সাজিয়া আফরিন ধুনট উপজেলার গোসাইবাড়ী এ.এ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক। তিনি ২০০৩ সালের ১৫ মার্চ ওই বিদ্যালয়ে যোগদান করেন। সে বিদ্যালয়ে সামাজিক বিজ্ঞান বিষয়ে শিক্ষকতা করেন। এছাড়া সামাজিক বিজ্ঞানের মাস্টার ট্রেইনার হিসেবেও কাজ করছেন। বিদ্যালয়ে বিষয় ভিত্তিক পাঠদান ছাড়াও শিক্ষার্থীদের নাচ, গান, আবৃত্তিসহ সৃজনশীল শিক্ষায় সহযোগিতা করেন। তিনি গোসাইবাড়ী ইউনিয়নের চিথুলিয়া গ্রামের জহুরুল ইসলামের কন্যা।

বিদ্যালয়ের বাহিরে নিজ গ্রামে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় সহযোগিতা করেন তিনি। ২০১৯ সালের জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক (বিদ্যালয় পর্যায়ে) তিনি নির্বাচিত হয়েছেন। এরআগে ২০১৭ সালে মেয়ে নূর আফসানা মাহজাবীন মাইশা শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী এবং একই সঙ্গে সাজিয়া আফরিন শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত হোন। ওই সময় মা-মেয়ে একই সঙ্গে শ্রেষ্ঠ হয়ে সবাকেই তাক লাগিয়ে দেন। সাজিয়া আফরিন এবছর দ্বিতীয় বারের মত শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত হলেন।

এছাড়াও চলতি বছর শ্রেষ্ঠ স্কাউট শিক্ষক হিসেবে ধুনট সরকারি এনইউ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের বিএম আশরাফুল ইসলাম এবং শ্রেষ্ঠ গার্লস গাইড শিক্ষক হিসেবে ধুনট পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শান্তনা খাতুন নির্বাচিত হয়েছেন।

অন্যদিকে বিদ্যালয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী নির্বাচিত হয়েছে ধুনট সরকারি এনইউ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী সুমাইয়া নুর। সে গোসাইবাড়ী কেও বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক নূর মোহাম্মদ এবং ভান্ডারবাড়ী ছালেহা জহুরা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা সাজেদা খাতুনের মেয়ে। অন্যদিকে কারিগরি পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী নির্বাচিত হয়েছে ধুনট পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী রাবেয়া খাতুন।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এস.এম জিন্নাহ জানান, জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে বিভিন্ন ইভেন্টে বিজয়ী ৩৬জন শিক্ষার্থীকে পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন ক্যাটগরী বিবেচনা করে শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান, শ্রেষ্ঠ শিক্ষক, শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী নির্বাচিত করা হয়। নির্বাচিতদের মাঝে শুক্রবার আনুষ্ঠানিক ভাবে সম্মাননা ক্রেষ্ট বিতরণ করা হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)