ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট জুলাই ৮, ২০১৯

ঢাকা রবিবার, ৪ ভাদ্র, ১৪২৬ , শরৎকাল, ১৭ জিলহজ্জ, ১৪৪০

রাজশাহী, সড়ক সংবাদ ধুনট সোনাহাটায় সড়কের কাদা পানিতে বিপর্যয়

ধুনট সোনাহাটায় সড়কের কাদা পানিতে বিপর্যয়

কারিমুল হাসান লিখন, নিরাপদ নিউজ: বগুড়ার ধুনটে শুধুমাত্র সড়কের কাদা পানিতেই নিমগাছী ইউনিয়নের সোনাহাটা বাজারে জনজীবনে নেমে এসেেছ বিপর্যয়। সড়কে হাটু পানি ও পিচ্ছিল কাদার করনে ক্রেতা না আসায় ব্যবসায়ীরা বিপাকে পড়েছে। বিপর্যয়ে পড়েছে শিক্ষক শিক্ষার্থীসহ নানা শ্রেনী পেশার মানুষ। উপজেলার এ ব্যস্ততম বাজারে ব্রাক, গ্রামীন ব্যাংক, আশাসহ বিভিন্ন এনজিও অফিস রয়েছে। রয়েছে বাজার সংলগ্ন সোনাহাটা ডিগ্রি কলেজ, উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাদ্রাসা, বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, ক্যাডেট মাদ্রাসা, কেজি স্কুল, ফার্মেসী ও বাসাবাড়ী। এসবকে  ঘিরে গড়ে উঠেছে ব্যবস্ততম বাজার। বাজারের এ ব্যস্ততম সড়কে সামান্য বৃষ্টিতে পায়ে হাটার মত অবস্থাও থাকেনা।

বিভিন্ন ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানের মালিকরা মনে করেন বাজারের সড়ক সংস্কার করে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় আমাদের ব্যবসায়ের চরম ক্ষতি হচ্ছে। বৃষ্টি বর্ষার সময় ক্রেতার সংখ্যা কম হওয়ায় আমাদের ব্যবসায়ীক ক্ষতিটা পুষে নিতে অনেক সময় লেগে যায়।

এক সবজি ব্যবসায়ী জানান, সপ্তাহে বুধবার ও শনিবার এখানে বড় বাজার বসে। এ এলাকার চাহিদা অনুযায়ী বাজারে সবজি বিক্রি করতে আসি। কিন্তু সামান্য বৃষ্টিতে যখন সড়কের বেহাল অবস্থা হয়। তখন সবজি বহনের ভাড়া গাড়ি বাজারের ভিতরে আসতে চায়না। তখন কষ্ট করে সবজি বিক্রি করতে হয়। সড়কের বেহাল অবস্থার জন্য ক্রেতার সংখ্যা কম থাকায় অনেক সময় আমাদের সবজিতে লোকসান গুনতে হয়।

স্থানীয় এক মৎস ব্যবসায়ী জানান ধুনট বাজার থেকে পাইকারী দরে মাছ কিনে সোনাহাটা বাজারে বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করি। শুধুমাত্র সড়কের কারনে ক্রেতা কম হওয়ায় দিন শেষে অনেক মাছ নষ্ট হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় একজন জানান বছরের পর বছর ধরে এ বাজারের সড়কে বৃষ্টি জনিত কারনে ক্রেতা, বিক্রেতা ও সাধারন মানুষ দুর্ভোগে পড়েছে। এ সড়কে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, দলীয় নেতা কর্মী, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ সড়ক সংশ্লিষ্ট অনেক কর্মকর্তা যাতআত করে। তাদের চোখে পড়ার পরেও বছরের পর বছর এভাবেই দূর্ভোগে পড়ে আছে সোনাহাটা বাজারের ক্রেতা, বিক্রেতা ও সাধারন মানুষ। সড়কের কারনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের উপস্থিত সংখ্যা কমে যাচ্ছে। যানবাহনের ত্রæটি দেখা দিচ্ছে, সড়কের জলাবদ্ধতা ও পিচ্ছিল কাদার কারনে দুর্ঘটনা ঘটছে প্রতিদিনই। কখনো কখনো শিক্ষার্থীদের গায়ে দেখা যায় কাদা পানি। এ বাজারকে ঘিরে রয়েছে মানুষের মৌলিক চাহিদা খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান, চিকিৎসা, শিক্ষা ও বিনোদন। শুধুমাত্র সড়কের বেহাল অবস্থার কারনে এসকল মৌলিক দাহিদা বর্ষার সময় চরম হুমকির মুখে পড়ে।

নিমগাছী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজাহার আলী পাইকার জানান সড়কের বেহাল অবস্থার কথা উপজেলা সড়ক সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগন অবগত আছেন। সড়কের উন্নয়নের জন্য টেন্ডারও হয়েছে বলে জানান ইউপি চেয়ারম্যান।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)