ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ৭ মিনিট ১৪ সেকেন্ড

ঢাকা বুধবার, ৫ পৌষ, ১৪২৫ , শীতকাল, ১১ রবিউস-সানি, ১৪৪০

চট্টগ্রাম নোয়াখালীর সুবর্ণচরের প্রতিহিংসায় পুড়লো দুইশ মণ ধান!

নোয়াখালীর সুবর্ণচরের প্রতিহিংসায় পুড়লো দুইশ মণ ধান!

মুজাহিদুল,নিরাপদনিউজ : নোয়াখালী জেলার সুবর্ণচর উপজেলার খেলার মাঠে দুই কৃষকের স্তুপ করে রাখা পাকা ধানে আগুন ধরিয়ে দেয়েছে দুর্বৃত্তরা।গত শুক্রবার দুপুরে জুম্মার নামাজের সময় এ ঘটনা ঘটে। স্তুপে থাকা প্রায় ২০০মণ ধান আগুনে পুড়ে যাওয়ার অভিযোগ করেন কৃষকেরা।ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক মোহাম্মদ উল্যাহ ও আবদুল হক। মোহাম্মদ উল্যাহ উপজেলা কৃষক দলের প্রচার সম্পাদক। তাই ঘটনাটি সম্পত্তির কিংবা রাজনৈতিক প্রতিহিংসা সঠিক ধারণা দিতে পারছেনা তারা।

ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক মোহাম্মদ উল্যাহ বলেন,কয়েকদিন আগে আড়াই একর জমির পাকা ধান কেটে স্তুপ করে রাখেন।তিনি ধান কাটা পরপরই প্রতিপক্ষের লোকেরা ওই জমি দখল করেন এবং ধানের স্তুপে আগুন ধরিয়ে দেন। তিনি আরো বলেন,তারা রাজনৈতিক ভাবে আওয়ামীলীগের অনুসারী।

মোহাম্মদ উল্যাহ আরো বলেন,তার ধানের স্তুপের পাশে কৃষক আবদুল হক আড়াই একর জমির ধান কেটে স্তুপ করে রাখেন। জুম্মার নামাজ চলাকালীন সময়ে দুর্বৃত্তরা আগুন ধরিয়ে দিলে তার পাশের স্তুপের ধানও সম্পূর্ণ পুড়ে যায়।ঘটনার সময়ে চর জব্বার থানা পুলিশকে ঘটনাটি জানালে পুলিশ ঘটনার স্থলে আসেনি বা পরে কোন খোঁজ খবর নেয়নি। পরে শনিবার বিকেল পর্যন্ত আগুনের ধোঁয়া বের হতে দেখা যায়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান,জুম্মার নামাজের সময় আগুন দেয়ায় কেউ আগুন নিভাতে পারেনি ফলে পুরো ধান পুড়ে যায়।

স্থানীয় একাধিক কৃষক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন,জমি জমা নিয়ে বিরোধ প্রায় সব জায়গায় দেখা যায় কিন্তু ধানে আগুন ধরিয়ে দেয়া অমানবিক।এর সাথে রাজনৈতিক যোগসূত্র থাকতে পারে। চর জব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানান,চরজুবিলীতে ধানের স্তুপে আগুনের ধরিয়ে দেয়ার বিষয়ে এক ব্যক্তি তাকে ফোনে জানিয়েছেন। পরে ঐব্যক্তি আর থানায় জানায় নি।অভিযোগ আসলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)