ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ৩০ মিনিট ৪ সেকেন্ড

ঢাকা সোমবার, ৩ আষাঢ়, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ১৩ শাওয়াল, ১৪৪০

শিল্প-সংস্কৃতি পদাতিকের ৪১ বছর পূর্তিতে ‘জমজমাট উৎসবের আয়োজন

পদাতিকের ৪১ বছর পূর্তিতে ‘জমজমাট উৎসবের আয়োজন

আহমেদ সাব্বির রোমিও,নিরাপদনিউজ :  আগামী ২১ জানুয়ারি পদাতিক নাট্য সংসদ, টি এস সি-এর ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। এই উপলক্ষে আগামীকাল ১৮ জানুয়ারী শুক্রবার বেলা ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মহিলা সমিতি মঞ্চে বেইলী রোডে জমজমাট উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। এই আয়োজনে প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকে আজ অবধি সব সদস্যের উপস্থিতি একান্তভাবে কামনাকরেছে সংগঠনটির সংশ্লিষ্ট জন । দেশের অন্যতম জনপ্রিয় নাট্য সংগঠন পদাতিক নাট্য সংসদ টি এস সি । “নাটক হোক জীবন যুদ্ধের হাতিয়ার, নাটক হোক জীবনের প্রকাশিত সত্য ” এই স্লোগান কে সামনে রেখে ১৯৭৮ সালের এই দিনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে পদাতিকের প্রতিষ্ঠা হয়। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিশেষ অনুষ্ঠানসূচীর মধ্যে রয়েছে বিকেল ৪টায় মহিলা সমিতি থেকে আনন্দ র‌্যালি, অতিথিবৃন্দের সঙ্গে চা চক্র, সন্ধ্যা ৫-৩০ মিনিটে বিভিন্ন সংগঠনের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আনন্দ র‌্যালী এবং সব শেষে বাংলাদেশ মহিলা সমিতি ভবনের নীলিমা ইব্রাহীম মিলনায়তনে ‘গুণজান বিবির পালা’ নাটকের বিশেষ মঞ্চায়ন হবে। ‘গুণজান বিবি’ নাটকটি রচনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন সায়িক সিদ্দিকী।

নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেন মমিনুল হক দীপু, মশিউর রহমান, সৈয়দা শামছি আরা সায়েকা, জয় ম-ল, সালমান শুভ, ইকরাম, শরীফুল ইসলাম, মোঃ ইমরান, জিতু, আবু সাইদ, পৃথা, জীবন, শোভন, প্রান্ত, কনিকাসহ আরও অনেকে। নাটকের নেপথ্য শিল্পীরা হলেন মঞ্চ সঞ্জীব কুমার দে, আলো আতিকুল ইসলাম জয়, পোশাক, দ্রব্য ও কোরিওগ্রাফি সৈয়দা শামছি আরা সায়েকা, সঙ্গীত হুমায়ন আজম রেওয়াজ, জামান, অমল, ফয়েজ। প্রযোজনা অধিকর্তা সৈয়দ ইশতিয়াক হোসাইন টিটো। ‘গুণজান বিবির পালা’ নাটকের গল্পে তুলে ধরা হয়েছে একটি থিয়েটার দল যারা কিনা বিভিন্ন সমস্যার মধ্য দিয়ে পথচলা দীর্ঘদিনের। সেই দলের প্রধান নাটক প্রেমিক। নাটকের জন্য সর্বোচ্চ ত্যাগ করতে রাজি তিনি। দলটির একটি নাটক পালা আকারে মঞ্চায়ন করা হবে, যা ‘সাত ভাই চম্পা’ অবলম্বনে ‘গুণজান বিবির পালা’ নামে দর্শকদের কাছে মঞ্চায়িত হবে। তবে শেষ পর্যন্ত এ কার গল্প তুলে ধরা হল দর্শকদের কাছে? এ কোন গুণজান এসে দাঁড়াল আপনাদের মাঝে? নাটকে অনেকটা অংশ ঐতিহ্যবাহী পালার আঙ্গিকে নির্মাণের করার চেষ্টা করা হয়েছে। যে পালা থাকে গ্রামের আসরে আসরে বয়াতিদের এক শৈল্পিক নাট্য বয়ান।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)