ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট আগস্ট ২৬, ২০১৯

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৩ কার্তিক, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১৭ সফর, ১৪৪১

এক্সক্লুসিভ ‘পশু-পাখিরা যতটা সহযোগিতা প্রবণ, আজকাল মানুষের মাঝেও তা দেখা যায় না’

‘পশু-পাখিরা যতটা সহযোগিতা প্রবণ, আজকাল মানুষের মাঝেও তা দেখা যায় না’

নিরাপদ নিউজ: খালের পাশে বসে আছে একটি ছোট বাচ্চা। তার একপায়ে আছে স্যান্ডেল, অপর পাটি খালি। সেই বাচ্চার এক পাটি চটি পড়ে গিয়েছিলে রাস্তার ধারে খালে। ওই টুকু বাচ্চার পক্ষে ঢালে নেমে চটি তুলে আনা সম্ভব ছিল না। তাই সে রাস্তার উপর বসেই ছিল। এই দৃশ্যটি চোখে পড়ে ফিলিপিন্সের সান ফ্রান্সিসকোর একজন সরকারী নার্স মাইলা আগুইলার। তখন তিনি কাজ থেকে বাড়িতে ফিরছিলেন। তারপর যা ঘটল, তা রীতিমতো অবিশ্বাস্য!

বাচ্চাটির জন্য খাঁড়া ঢাল বেয়ে নিচে নেমে চটি তুলে আনা কঠিন কাজ ছিল। ওই রাস্তার ধারের ঢালে ছিল একটি হাঁস। হ্যাঁ, ঠিকই পড়েছেন- হাঁস। সেই হাঁসটি বারবার চেষ্টা করছিল মুখে করে স্যান্ডেলটি তোলার জন্য। কিন্তু যতবারই স্যান্ডেলটি সে খাল থেকে তুলে আনছিল, ততবারই পিছলে পড়ে যাচ্ছে। শেষ পর্যন্ত ঠোঁটে করে স্যান্ডেলটি ঢাল থেকে তুলে বাচ্চাটিকে দেয় হাসঁটি। সেই চটি পায়ে দিয়ে ছুট লাগায় বাচ্চাটি।

রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় এই ঘটনা আকৃষ্ট করে মাইলাকে। তিনি দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে দেখার পাশাপাশি পুরো ঘটনার ভিডিও ধারণ করেন।এরপর যথারীতি সেই ভিডিও তিনি পোস্ট করেন নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে। গত ১৫ অগস্ট এই ভিডিও পোস্ট করার পর রীতিমতো তা ভাইরাল হয়ে যায়। একটি হাঁসের মাঝে এমন বুদ্ধিবৃত্তিক সত্তা দেখতে পেয়ে সোশ্যাল সাইট ব্যবহারকারীরা প্রশংসায় মেতেছেন। তারা বলছেন, পশু-পাখিরা যতটা সহযোগিতা প্রবণ; আজকাল মানুষের মাঝেও তা দেখা যায় না।

দেখুন সেই ভিডিও :

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)