ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ৩৪ মিনিট ৩৪ সেকেন্ড

ঢাকা বুধবার, ২৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ , হেমন্তকাল, ৩ রবিউস-সানি, ১৪৪০

খুলনা, সড়ক সংবাদ পাইকগাছায় শিবসা ব্রীজের এ্যাপ্রোস সড়কে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা: দ্রুত সংস্কারের দাবী

পাইকগাছায় শিবসা ব্রীজের এ্যাপ্রোস সড়কে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা: দ্রুত সংস্কারের দাবী

দ্রুত সংস্কারের দাবী

এইচ,এম,শফিউল ইসলাম,১৪ নভেম্বর, ২০১৭, নিরাপদ নিউজ : পাইকগাছায় এ্যাপ্রোস সড়কের চেয়ে শিবসা ব্রীজের উচ্চতা বেশি হওয়ায় ব্রীজের উঠার সময় পাল্টি খেয়ে খাদে পড়ছে ছোট ছোট মালবাহি যানবহন। মঙ্গলবার সকালে বালু ট্রলি পাল্টি খেয়ে খাদে পড়ে যায়। এ সময় সাদেক মোল্লা (৭২) নামে এক বৃদ্ধপথচারী গুরুতর আহত হয়। প্রতিনিয়ত ঘটছে এ ধরণের দূর্ঘটনা। এতে প্রতিদিন কোন না কোন চালক কিংবা পথচারী আহত হয়ে পঙ্গুত্ববরণ করতে হচ্ছে। কর্তৃপক্ষ কোন পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় জীবনের ঝুকি নিয়ে চলাচল করছে যানবাহন ও পথচারীরা। পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ মাহাবুবর রহমান রনজু জানান, উপজেলার জনগুরুত্বপূর্ণ সড়ক গুলোর মধ্যে পাইকগাছা- বেতবুনিয়া সড়ক অন্যতম। প্রতিদিন কয়েকটি ইউনিয়ন সহ সুন্দরবনের পর্যটকরা এ সড়ক দিয়ে যাতায়াত করে থাকে। কিন্তু শিবসা ব্রীজের পৌরসভার অংশের এ্যাপ্রোস সড়কটি ব্রীজের থেকে অধিক নিচু হওয়ায় মালবাহি ছোট ছোট যানবাহন এমনকি যাত্রীবাহী নছিমন, করিমন, ভ্যান ব্রীজে ওঠার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ছে। আর ধরণের দূর্ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটেই চলেছে। ট্রলিচালক আফসার আলী গাজী জানান, এমনিতেই ব্রীজের থেকে এ্যাপ্রোস সড়ক অনেক নিচু এবং ঢালু। এরপর রয়েছে সড়কের বিভিন্ন স্থানে বড় বড় গর্ত। সড়কের দুই পাশে নেই কোন দূর্ঘটনা রোধে পিলার অথবা গাইড ওয়াল। ফলে ব্রীজে ওঠার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে অধিকাংশ যানবাহন পাল্টি খেয়ে সরাসরি নীচে খাদে পড়ে যায়। ব্রীজে ওঠার স্থানটি এখন মরণফাদে পরিণত হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সচেতন এলাকাবাসী। সড়কটি মেরামতের বিষয়টি জেলা মিটিংএ অনুমোদন হয়েছে এবং চলতি অর্থবছরে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে এটি টেন্ডার হবে বলে উপজেলা প্রকৌশলী আবু সাঈদ জানান।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)