ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ১৩ মিনিট ৬ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ২ শ্রাবণ, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ১৩ জিলক্বদ, ১৪৪০

মিডিয়া পিআইবি-এটুআই গণমাধ্যম পুরস্কার ২০১৮ প্রদান

পিআইবি-এটুআই গণমাধ্যম পুরস্কার ২০১৮ প্রদান

নিরাপদ নিউজ: ডিজিটাল বাংলাদেশ বিষয়ে প্রতিবেদন, ফিচার ও ছবির জন্য টেলিভিশন, সংবাদপত্র, বেতারসহ ছয়টি ক্যাটাগরিতে বিভিন্ন মাধ্যমে কর্মরত সাতজন সাংবাদিককে ‘পিআইবি-এটুআই গণমাধ্যম পুরস্কার ২০১৮’ পুরস্কৃত করা হয়েছে। আজ ২২ মে সকালে বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে পুরস্কারের ক্রেস্ট, সনদ ও চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সরকারের মন্ত্রী, এটুআই প্রকল্পের প্রতিনিধি, জুরিবোর্ডের সদস্যসহ অন্যান্যরা। তথ্য প্রযুক্তির বিভিন্ন মাধ্যম ব্যবহারের করে তৃনমূলের মানুষ ঘরে বসেই নাগরিক সেবাসহ সবধরনের সেবা গ্রহন করছে। ডিজিটাল বাংলাদেশের এই অগ্রযাত্রা সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে সাংবাদিকদের অবদানকে মূল্যায়ন করতে এই আয়োজন বলে জানান আয়োজকরা।
পিআইবি পরিচালনা বোর্ডের চেয়ারম্যান আবেদ খানের সভাপতিত্বে এটুআই ও পিআইবি’র যৌথ আয়োজনে ৩য় বারের মতো এই পদক প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ। তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নের ছোঁয়া ও তথ্য প্রযুক্তি সেবা তৃনমূলে পৌছে দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে ডিজিটাল প্রযুক্তি। আর সাধারণ মানুষ সাংবাদিকদের মাধ্যমে এই বিষয়গুলো জানতে পারছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন- এটুআই এর পলিসি অ্যাডভাইজার আনীর চৌধুরী বলেন, এটুআই ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে বিভিন্ন ধরণের কাজ করছে। সাংবাদিকরা এসব কাজের সংবাদ পরিবেশন করে তৃণমূল মানুষকে তা জানাতে ভূমিকা রাখতে পারে। অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তফা জব্বার বলেন, সাংবাদিকদের আরো তথ্য সমৃদ্ধ, সাহসি ও সৎ হতে সহায়তা করবে এই ধরনের আয়োজন। জুরিবোর্ডের সদস্য ও ভোরের কাগজ সম্পাদক শ্যামল দত্ত বলেন, এই পুরস্কারের জন্য বিপুল সারা পেয়েছেন তারা। অনেক ভালো কাজের মধ্য থেকে সবচেয়ে ভালো প্রতিবেদনটিই তারা পুরস্কারের জন্য মনোনীত করেছেন।
বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট-পিআইবি এবং প্রধানমন্ত্রীর অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন-এটুআই প্রকল্পের আওতায় প্রবর্তিত এ বছর চুড়ান্তভাবে বিজয়ী হয়েছেন টেলিভিশন ক্যাটাগরিতে বৈশাখী টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার বুদ্ধদেব কুণ্ডু। ‘বাংলাদেশের স্যফটওয়্যার শিল্পের সমস্যা ও সম্ভাবনা’ শিরোনামে বিশেষ সিরিজ চারটি প্রতিবেদনের জন্য এই পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। অনলাইন সংবাদপত্রের জন্য রাইজিং বিডির রফিকুল ইসলাম মন্টু, জাতীয় পত্রিকা ক্যাটাগরিতে ইংরেজী দৈনিক ঢাকা ট্রিবিউন ও বাংলা দৈনিক এর জন্য মনোনীত হয়েছেন দৈনিক শেয়ার বিজ এর মোহাম্মদ ওয়ালী উল্লাহ। এছাড়া বেতার ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশ বেতারের মো মোস্তাফিজুর রহমান এবং আঞ্চলিক সংবাদপত্রের জন্য যশোরের দৈনিক গ্রামের কাগজের উজ্জ্বল বিশ্বাস পুরস্কার পান। এছাড়া ফটোগ্রাফি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন ঢাকা ট্রিবিউন এর সৈয়দ জাকির হোসেন।
পুরস্কার প্রাপ্তির পর বাংলাদেশ বেতারের মো মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আলহামদুলিল্লাহ। আরেকটি স্বীকৃতি। কোটি-কোটি শুকরিয়া আল্লাহর দরবারে। সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের এটুআই কর্তৃক কল সেন্টার ‘৩৩৩-তথ্য ও সেবা সবসময় সবখানে’ বিষয়ক জনসচেতনতামূলক প্রামাণ্য প্রতিবেদনের জন্যে বেতার ক্যাটাগরিতে প্রথম স্থান লাভ করেছি। এই ৩৩৩-কল সেন্টারের মাধ্যমে সরকারি সেবা প্রাপ্তির পদ্ধতির তথ্য, সরকারি কর্মকর্তাদের যোগাযোগের তথ্য, পর্যটন ও জেলা সম্পর্কিত তথ্য, ইসলামিক মাসআলা মাসায়েল, ই-টিন সংক্রান্ত তথ্য জানার বিষয়টি সরেজমিনে তুলে ধরা হয়। এছাড়া সামাজিক সমস্যার মধ্যে ভোক্তা অধিকার, বাল্যবিবাহ, যৌতুক, ইভ টিজিং,পরিবেশ দূষণ, মাদক, জুয়া ইত্যাদি প্রতিকারে জেলা প্রশাসক ও ইউএনও কিভাবে ভূমিকা রাখছে তা মাঠ পর্যায়ে কেস স্টাডির মাধ্যমেও তুলে ধরা হয় এ অনুষ্ঠানে। ফলে ৩৩৩ নম্বরের কল সেন্টারে ফোন করে তথ্য সেবার পাশাপাশি নানা নাগরিক সমস্যার প্রতিকারও মিলছে প্রতিনিয়ত। সেরা পুরস্কার প্রাপ্তিতে যাদের কাছে কৃতজ্ঞ- সম্মানিত ৮ সদস্যের জুরীবোর্ডের প্রতি, ৩৩৩ কল সেন্টার কর্তৃপক্ষ, এটুআই’র সার্ভিস স্পেশালিস্ট মোহাম্মদ আশরাফুল আমিন, গাজীপুর জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মো.হুমায়ুন কবীর, সদর ইউএনও, বিভিন্ন উপকারভোগী, অনুষ্ঠানের প্রাণ প্রতিবেদক শফিকুল ইসলাম বাহার, সম্পাদক মাহমুদ রেজা এবং সার্বিক নির্দেশনা প্রদানকারী আঞ্চলিক পরিচালক জনাব সায়েদ মোস্তফা কামাল স্যারের প্রতি।
ছবি: মোস্তাফিজুর রহমান মিন্টু

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)