সংবাদ শিরোনাম

১৭ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং

00:00:00 বুধবার, ৩রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ , হেমন্তকাল, ২৮শে মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী
মতামত, লিড নিউজ, সড়ক সংবাদ প্রতিকূল পরিবেশেও দায়িত্বে অনঢ় থাকা ট্রাফিক পুলিশের এই ছবিটি এখন আলোচনার শীর্ষে

প্রতিকূল পরিবেশেও দায়িত্বে অনঢ় থাকা ট্রাফিক পুলিশের এই ছবিটি এখন আলোচনার শীর্ষে

পোস্ট করেছেন: Nsc Sohag | প্রকাশিত হয়েছে: জুন ১৬, ২০১৭ , ৭:২২ অপরাহ্ণ | বিভাগ: মতামত,লিড নিউজ,সড়ক সংবাদ

প্রতিকূল পরিবেশেও দায়িত্বে অনঢ় থাকা ট্রাফিক পুলিশের এই ছবিটি এখন আলোচনার শীর্ষে

সানজিদা, নিরাপদ নিউজ : একবার একটি বাড়ির পেছন দিয়ে একজন পুলিশ হেঁটে যাচ্ছিলেন। ঘরের ভেতর থেকে এক বাবা তার সন্তানকে বললেন- দেখ্‌ তো- বাড়ির পেছন দিয়ে কোন লোক হেঁটে যায়? সন্তান দেখে এসে উত্তর দিলো- আব্বা, মানুষ না, পুলিশ যায়। অর্থাৎ পুলিশকে মানুষের শ্রেণি থেকে পৃথক করে দিয়েছিল সন্তানটি। আজও বাংলাদেশের অনেক মানুষ আছেন, যারা নিরপরাধী হয়েও- পুলিশ নাম শুনলেই আতঙ্কিত হয়ে ওঠেন। এর কারণ আর নতুন করে বলার কিছুই নেই। তাই বলে কী গোটা পুলিশ বাহিনীই মন্দ? না, হাতে গোনা দুই একজনের জন্য বাকি সবার বদনাম হয়। শুধু পুলিশ সেক্টর কেন, সব সেক্টরেই রয়েছে ভালো মন্দ। এই যে উপরের ছবিটায় হাঁটু পানিতে দাঁড়িয়েও একজন ট্রাফিক পুলিশ যে নিজের কর্তব্য ঠিকভাবে পালন করে যাচ্ছেন- তাঁকে কি আমরা মন্দ পুলিশের শ্রেণিতে ফেলতে পারি? না, ফেলতে পারি না।

দৃশ্যটি চট্টগ্রামের বড়পোল নামক একটি জায়গায়। ভারি বর্ষণে পানি জমে গিয়েছে সড়কে। সেই সরকের উপর দাঁড়িয়ে কর্তব্য পালন করছেন একজন পুলিশ। এমন মানবিক একটি দৃশ্যকে তৎক্ষণাৎ ক্যামেরা বন্দী করেছেন আল নাসিম তালুকদার রাজীব নামক একজন।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ পেজে আপ করা হয়েছে ছবিটি।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) এর ফেসবুক পেজে মাত্র ৪ ঘণ্টা আগে আপ করা হয়েছে ছবিটি। ইতোমধ্যে ৪১৬ বার শেয়ার হয়ে এই ছবিটি বর্তমানে ফেসবুকে ভাইরাল। পোস্টের নিচে পাওয়া গিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। কেউ একে সাধুবাদ জানিয়েছেন, কেউ বা বলেছেন- এতে সাধাবুদ জানানোর কিছুই নেই, কারণ- জলাবদ্ধতার অন্যতম কারণ হিসেবে তারা যথাযথ কর্তৃপক্ষের দায়িত্বহীনতাকে দোষারোপ করেছেন।

কেউ কেউ আবার মতামত দিয়েছেন- পুলিশের এমন সদাচরণ মাঝে মাঝে দেখা যায়, কিন্তু তার চেয়ে বেশি দেখা যায় অসদাচরণ। অনেকে মতামত দিয়েছেন- অল্পসংখ্যক পুলিশের কারণে গোটা পুলিশ বাহিনীকে দোষারোপ করা অনুচিত।

সালেহ ইমরান নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারি এই ছবিটি পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, এই সেই পুলিশ যাকে পান থেকে চুন খসলে অকথ্য ভাষায় গালি দিতে কার্পণ্য করিনা। অথচ প্রতিদিন সবচেয়ে প্রতিকূল পরিবেশে এরাই সবচেয়ে সীমিত সুযোগ সুবিধার মধ্যে আমাদের সেরা সেবাটাই দেওয়ার চেষ্টা করে।

এদের অমানবিক পরিশ্রম বা সীমিত সুযোগ সুবিধা কোনটাই কি আমরা কখনো অনুধাবন করার চেষ্টা করেছি?

করলে এদের নিয়ে দু চার কথা নেগেটিভ কিছু লেখার আগে তাদের অমানবিক পরিশ্রম এবং সীমিত সুযোগ সুবিধার কথাটাই বলতেন।

আসুন দৃষ্টিভংগি পাল্টাই। যারা দেশটাকে গিলে খাচ্ছে তাদের দিকে ক্যামেরাটা তাক করাই। নিচের পদের এসব সদস্যদের সুযোগ-সুবিধা বাড়াই। দেখবেন পুরো দেশের চিত্রটাই পালটে যাবে।

১০-২০ টাকার পেছনে না ছুটে যারা দুর্নীতি করে দেশটাকে গিলে খাচ্ছে তাদের পেছনে ছুটেন। তাদের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেন। দেখবেন এর সুফল পাবে পুরো জাতি। ভালো থাকবেন আপনি, আমি আমার এই ভাইটি এক কথায় পুরো জাতি।

হৃদি রুবি নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারি এই ছবিটি পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, রাস্তা ভর্তি পানি দেখবেন নাকি কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশের কর্তব্য নিষ্ঠা? পানি দেখতে গিয়ে আমরা এই পুলিশের কর্তব্য নিষ্ঠা যেন ভুলে না যাই।নিজে যদি ন্যায়পরায়ন হয় এবং নিষ্ঠার সাথে নিজের কর্তব্য পালন করে তবে কোন কিছুই যে বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারে না এই ছবিটিই তার প্রমান। শেয়ার করুন আর নিজ দেশের মানুষের ভাল কাজগুলো প্রচার করুন।

যা হোক, সব মিলিয়ে বর্তমানে এই ছবিটিই ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে রয়েছে।

Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Digg thisShare on Tumblr0Email this to someonePin on Pinterest0Print this page

comments

Bangla Converter | Career | About Us