ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ৮ সেকেন্ড

ঢাকা সোমবার, ৭ কার্তিক, ১৪২৫ , হেমন্তকাল, ১২ সফর, ১৪৪০

রাজশাহী প্রেমের কলঙ্ক মোচনে মা-মেয়ের আত্মহনন!

প্রেমের কলঙ্ক মোচনে মা-মেয়ের আত্মহনন!

নিরাপদনিউজ : প্রেমিকের মায়ের ডাকে তার বাড়িতে যাওয়ায় স্থানীয় বখাটেরা প্রেমিকা ও প্রেমিকের মাকে একঘরে আটকে রাখে। পরে মেয়ের পরিবারের লোকজন তাকে বাড়িতে নিয়ে গেলেও এলাকাবাসী তাদের কপালে জুড়ে দেয় নানা কলঙ্ক। কলঙ্ক মোচনে মা-মেয়ে নিজ ঘরে একসাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।

মৃত্যুর আগে স্কুলছাত্রী চিরকুটে লিখে গেছেন ‘এমন প্রেম করলাম যার জন্য নিজেকে ও মেয়ের জন্য মাকেও পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করতে হল’।

আজ বুধবার বিকেল পাঁচটার দিকে সিরাজগঞ্জ পৌরশহরের রেলওকলোনী মহল্লায় এঘটনা ঘটে। নিহতরা হলো- রেলওয়ে কলোনী মহল্লার রিকাচালক আব্দুল মান্নানের স্ত্রী শাহিদা (৪০) খাতুন ও তার মেয়ে রেলওয়ে কলোনী স্কুল এন্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্রী মালা খাতুন (১৪)। সংবাদ পেয়ে রাতে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, রেলওয়ে কলোনীর ভাড়াটিয়া বাসিন্দা দুলালের ছেলে মানিকের সাথে স্কুলছাত্রী মালা খাতুনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সোমবার বিকেলে প্রেমিক মানিক প্রেমিকা মালা খাতুনকে মা তাকে দেখবে বলে তাদের বাড়িতে ডেকে নেয়। এসময় এলাকার কিছু বখাটে ছেলে তাদের তিনজনকে ঘরে আটকে রাখে। পরে মালার বাবাসহ স্থানীয় মাতব্বরা মেয়েটিকে উদ্ধার করে বাবার বাড়িতে নিয়ে আসে। ঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে নানা জনে নানা কথা রটনা করতে থাকে। মা ও মেয়েকে নানা অপকথা শুনতে হয়।
এ অবস্থায় বুধবার বিকেল পাঁচটার দিকে মা ও মেয়ে এক সাথে দরজা আটকে ঘরের ধর্নার সাথে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে। তবে মৃত্যুর আগে স্কুলছাত্রী একটি চিরকুট লেখে গেছেন।

মেয়েটি চিরকুটে উল্লেখ করেছেন, আমি এমনই প্রেম করলাম যার জন্য নিজেকেও মরতে হলো, সাথে আমাকে যে সবচাইতে ভালোবাসে আমার মা তাকেও মেয়ের ভুলের জন্য পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে মেয়ের সাথে চলে যেতে হলো। আত্মহত্যা করে এ জীবনও হারাইলাম আখিরাতও হারাইলাম।’ ‘সে তার বাবার উদ্দেশ্যে আরো উল্লেখ করে, আমাদের মা ও মেয়েকে কাটাছেড়া না করা হয়। সুন্দরভাবে মালসাপাড়া কবর মাঝে পাশাপাশি কবর দিও। আব্বা থানার ভেজাল মিটাইয়া আমাদের মাটি দিও’। এদিকে মা ও মেয়ের এমন মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমেছে।

অন্যদিকে সিরাজগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার স্নিগ্ধ আখতারসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

সদর থানার উপ-পরিদর্শক মোকরম হোসেন জানান, রাত সাতটার দিকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মেয়ের প্রেমিক মানিককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেয়া হয়েছে। মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলেও তিনি জানান।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)