আপডেট ৪ মিনিট ১১ সেকেন্ড

ঢাকা শনিবার, ৩ ভাদ্র, ১৪২৬ , শরৎকাল, ১৬ জিলহজ্জ, ১৪৪০

অপরাধ, রাজশাহী বগুড়ার গাবতলীর ইয়াছিন আলী মোল্লা হত্যা মামলা: পিতা–পুত্রসহ ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

বগুড়ার গাবতলীর ইয়াছিন আলী মোল্লা হত্যা মামলা: পিতা–পুত্রসহ ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

নিরাপদ নিউজ: বগুড়ার গাবতলীর ইয়াছিন আলী মোল্লা হত্যা মামলায় পিতা-পুত্র, সহোদর দুই ভাইসহ ৫ জনের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত।  আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক নরেশ চন্দ্র সরকার এ আদেশ দেন। একই সাথে আসামিদের প্রত্যেকের ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে আদালত।

এছাড়া, আদালত মামলার সাক্ষীদের মারপিটের দায়ে কারাদণ্ড ও জরিমানা করেছে। মামলা সম্পৃক্ততা প্রমাণ না হওয়ায় ১০ জনকে খালাস দিয়েছে আদালত।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০০৬ সালের ১৭ জুন বিকাল সাড়ে ৬ টার দিকে বগুড়ার গাবতলীর বাহাদুরপুর গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ইয়াছিন আলী মোল্লাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে হামলা চালায় দন্ডপ্রাপ্তরা। তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এসময় ইয়াছিন আলীকে রক্ষার জন্য তার ভাই সিদ্দিক, জলিল, দুদু মিয়া, মন্টু মিয়া এগিয়ে আসলে তাদেরকেও মারপিট করে হামলাকারীরা। গুরুত্বর আহত ইয়াছিন আলী মোল্লাকে গাবতলী থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মারা যায়। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে এদিনই থানায় মামলা দায়ের করে।

এ মামলায় ১৯ জনকে অভিযুক্ত করে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সানোয়ার হোসেন আদালতে চার্জশিট দাখিল করে। সেই মামলায় বৃহস্পতিবার জেলা জজ আদালতের বিচারক রায় প্রদান করেন।

এতে ইয়াছিন আলী মোল্লাকে হত্যার দায়ে রমজান আলীর দুই ছেলে ইসমাইল হোসেন (৫৫) ও আব্দুর রহিম, দন্ডপ্রাপ্ত ইসমাইল হোসেনের ছেলে মামুন ও জুলফিকার আলী টুটুল এবং ময়েজ মোল্লার ছেলে সিরাজুল ইসলামকে ফাঁসির আদেশ এবং ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। একই সাথে মামলার সাক্ষীদের মারপিট করার দায়ে শাজাহান আলী সাজু ও মো. শিপনকে ৭ বছর কারাদন্ড, ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ের ১ বছর কারাদন্ড, সোহাগকে ৩ বছরের কারাদন্ড, ৫ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে ৬ মাসের কারাদন্ড, রওশন আলীকে ১ বছরের কারাদন্ড, ১ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ের ৩ মাসের কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছে বিচারক। রায় প্রদানকালে মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত ২ আসামি ছাড়া সকলেই উপস্থিত ছিলেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি এড. আব্দুল মতিন, অতি. পিপি ফেরদৌস আলম, বিবাদী পক্ষে ছিলেন এড. রেজাউল করিম মন্টু।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)