আপডেট ২৭ মিনিট ১১ সেকেন্ড

ঢাকা শনিবার, ১০ ভাদ্র, ১৪২৬ , শরৎকাল, ২৩ জিলহজ্জ, ১৪৪০

দুর্ঘটনা সংবাদ, রাজশাহী বগুড়ায় মাইক্রোবাসের সাথে সংঘর্ষে বেপরোয়া মোটরসাইকেল চালক কলেজ ছাত্রের ‍মৃত্যু!

বগুড়ায় মাইক্রোবাসের সাথে সংঘর্ষে বেপরোয়া মোটরসাইকেল চালক কলেজ ছাত্রের ‍মৃত্যু!

নিরাপদ নিউজ: বগুড়ায় মাইক্রোবাসের সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৬ জুন) সন্ধ্যায় বগুড়া-রংপুর মহাসড়কে বগুড়া শহরতলীর ঠেঙ্গামারা এলাকায় হোটেল মম ইন এর সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরণকারীর নাম আইনুর ইসলাম (২০)। তিনি গাবতলী উপজেলার নসকরী পাড়া গ্রামের ভিকু প্রাং এর ছেলে। আ্তইনুর বগুড়া শহরের করনেশন ইন্সটিটিউটের ছাত্র।

আইনুরের চাচা বজলু শাকিদার বৃহস্পতিবার রাতে তার মৃত্যুর বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, আইনুর তার বন্ধুদের সঙ্গে বৃহস্পতিবার বিকেলে মোটরসাইকেলযোগে পাঁচ তারকা হোটেল মম ইন ও ইকোপার্কে বেড়াতে যায়। সন্ধ্যার দিকে মম ইন থেকে বেপরোয়া গতিতে মোটরসাইকেল চালিয়ে মহাসড়কে ওঠার সময় একটি মাইক্রোবাসের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে আইনুর গুরুতর আহত হয়। তাকে উদ্ধার করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী বৃহস্পতিবার তার ফেসবুকে লিখেছেন, ‘জেলা পুলিশের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা সত্ত্বেও মোটরবাইক দুর্ঘটনা আমরা রোধ করতে পারিনি। যে দুর্ঘটনাগুলো ঘটেছে তার পেছনে বগুড়ার দু’টো তারকা মানের মদ বিক্রয় কেন্দ্র এবং অভিভাবকদের অস্কারা।’

ঈদের দিন থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত বেশ কয়েকটি মোটরবাইক দুর্ঘটনা ঘটেছে। প্রতিটি দুর্ঘটনাই ঘটেছে বেপরোয়াভাবে মোটরসাইকেল চালানোর কারণে। ঈদের দিন সন্ধ্যায় শহরের জেলখানার মোড়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী নিজেই পুলিশ নিয়ে দাঁড়িয়ে বেপরোয়া গতিতে চালানো মোটরসাইকেল চালকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিয়েছেন। ফলে শহরে দুর্ঘটনা না হলেও শহরতলী এবং মহাসড়কে দুর্ঘটনা ঘটেছে বেশ কয়েকটি।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)