ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট আগস্ট ১৪, ২০১৯

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৮ ভাদ্র, ১৪২৬ , শরৎকাল, ২১ জিলহজ্জ, ১৪৪০

দুর্ঘটনা সংবাদ বগুড়ায় শ্যামলী ও আহাদ বাসের সংঘর্ষে চালকসহ নিহত ৩

বগুড়ায় শ্যামলী ও আহাদ বাসের সংঘর্ষে চালকসহ নিহত ৩

গোলাম রব্বানী শিপন,নিরাপদ নিউজ: বগুড়ার শাজাহানপুরে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে স্বামী, স্ত্রী ও বাসের চালক সহ ৩ জন নিহত হয়েছেন। এঘটনায় আহত হয়েছে অন্ততপক্ষে ১৫ জন। এদের ভিতর ৫জনের অবস্থা আশংকাজনক। এঘটনায় নিহতরা হলো, রংপুর সদরের কামার কাছনা গ্রামের মৃত আবদুল্লাহেল কাফীর ছেলে খায়রুল আনাম (৫৫) ও তার স্ত্রী রানু বেগম (৫০) এবং আহাদ যাত্রীবাহী বাসের চালক।

এ ঘটনায় তাৎক্ষণিভাবে আহতদের পরিচয় জানা যায়নি। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে হাইওয়ে পুলিশ কুন্দারহাট ফাঁড়ির এসআই কাজল কুমার নন্দী ও শাজাহানপুর থানার এসআই সুশান্ত কুমার এবং ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা জানান, বুধবার বেলা পৌঁনে ২টার দিকে গাইবান্ধা দিক থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা রাহাদ এন্টারপ্রাইজ উপজেলার আড়িয়া বাজার এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে পৌঁছিলে কোচের সামনে একটি স্থানীয় করতোয়া গেটলক মিনিবাস অবস্থান করছিল। এসময় ঢাকা থেকে রংপুরগামী যাত্রীবাহী শ্যামলী পরিবহণের চালক এ বাসটিকে ওভারটেক করতে গিয়ে হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারায়। এতে দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে বাস দুটির সামনের অংশ দুমড়ে-মুচড়ে গিয়ে আহাদ এন্টারপ্রাইজের চালকসহ অন্তত ১৫ জন আহত হন।

দ্রুত তাদের উদ্ধার করে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান (শজিমেক) হাসপাতালে নিলে খায়রুল আনাম, তার স্ত্রী রানু বেগম ও আহাদ পরিবহণের চালক মারা যান। আহতদের মধ্যে ৫জনের অবস্থা আশংকাজনক বলে তারা জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ৯আগস্ট শুক্রবার শ্যামলী পরিবহণের বেপরোয়া সংঘর্ষে ভয়াবহ সড়ক দূর্ঘটনায় অল্পের জন্য প্রাণে বেচেঁ যান বগুড়া-২ শিবগঞ্জ ৩৭ আসনের সংসদ সদস্য বীরমুক্তি যোদ্ধা আলহাজ্ব শরিফুল ইসলাম জিন্নাহ্ (এমপি)। তিনি গত ৯আগস্ট শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে তার বগুড়া শহরের কালীতলা বাসা থেকে মহাস্থান হযরত শাহ সুলতান বলখী (রহঃ) এর মাজারে জুম্মার নামাজ আদায়ের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। পথিমধ্যে বগুড়ার সদরের ঠেঙ্গামারা টিএমএসএস সংস্থার সামনে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে বিপরীত দিক থেকে বেপরোয়া গতিতে আসা শ্যামলী পরিবহন নামের একটি যাত্রীবাহী বাসের সাথে মুখোমুখী সংঘর্ষে সংসদের গাড়ির সামনের অংশ দুমড়ে মুচড়ে যায়। এসময় অক্ষত অবস্থায় এমপি জিন্নাহ্ কে উদ্ধার করেন স্থানীয়রা। এতে সাংসদের গাড়িটি মারাত্মক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ ও সামনের অংশ দুমড়ে মুচকে যায়। এবং গাড়ীর চালক সামান্য জখম হয়।
সংসদ সদস্যের দূর্ঘটনার কারণ শ্যামলী পরিবহণ চালকের বেপরোয়া গতিতে লেন পরিবর্তন করে দ্রুত পাল্লা দিয়ে যাওয়ার মানসিকতার কারণেই দূর্ঘটনা ঘটেছিল বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। প্রায় ৫ দিনের ব্যবধানে শ্যামলী পরিবহণ বগুড়া অঞ্চলে বেপরোয়া ভাবে চালানো ও প্রাণহানির ঘটনায় মহাসড়কে চলাচল করতে জনমনে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)