আপডেট নভেম্বর ৪, ২০১৭

ঢাকা রবিবার, ৭ শ্রাবণ, ১৪২৫ , বর্ষাকাল, ৭ জিলক্বদ, ১৪৩৯

নিসচা সংবাদ, লিড নিউজ বঙ্গবন্ধুর মত নেতা ছিলেন বলেই আজ আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক: ইলিয়াস কাঞ্চন

বঙ্গবন্ধুর মত নেতা ছিলেন বলেই আজ আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক: ইলিয়াস কাঞ্চন

বঙ্গবন্ধুর মত নেতা ছিলেন বলেই আজ আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক

এস এম আজাদ হোসেন,নিরাপদ নিউজ :  বঙ্গবন্ধুর মত নেতা ছিলেন বলেই আজ আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক। রোহিঙ্গাদের কোন নেতা নেই, আজ তারা দিশেহারা, নিজ দেশ থেকে বিতাড়িত। বলেছেন নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের প্রাণপুরুষ চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। গতকাল ০২ নভেম্বর, বৃহস্পতিবার দুপুরে বাংলাদেশ-কোরিয়া টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার (বিকে-টিটিসি) তে সেপ প্রকল্পের আওতায় মটর ড্রাইভিং প্রশিক্ষকদের প্রশিক্ষণ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক সহায়তায় সারাদেশ থেকে বিআরটিসি’র বিভিন্ন ডিপো থেকে ২০জন চালক প্রশিক্ষক এই প্রশিক্ষণে অংশ গ্রহণ করেন।বাংলাদেশ-কোরিয়া টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার এর অধ্যক্ষ ড,ইঞ্জিনিয়ার মোঃ সাখাওয়াত আলীর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন এসইআইপি প্রকল্পের ডেপুটি প্রজেক্ট ডিরেক্টর মোঃ কামাল হোসেন,সহকারি নির্বাহী প্রজেক্ট ডিরেক্টর সৈয়দ নাসির এরশাদ।প্রশিক্ষণার্থীদের মধ্য থেকে পবিত্র কুমার মন্ডল ও প্রণব কুমার বিশ্বাস প্রমুখ।প্রধান অতিথির বক্তব্যে চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন,আমাদের সৌভাগ্য যে আমরা বঙ্গবন্ধুর মত নেতা পেয়েছিলাম।তাঁর নেতৃত্বে ও দুরদর্শিতায় মাত্র নয় মাসে দেশ পরাধীনতার শিকল ভেঙ্গে স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্রে পরিণত হয়। রোহিঙ্গাদের দুর্ভাগ্য তাদের মধ্যে এমন কোন নেতা নেই।  ড্রাইভিং পেশাকে সম্মানজনক পেশা উল্লেখ করে তিনি বলেন,একজন চালককে স্মার্ট হতে হবে পোশাকে, কথা বার্তায়। একজন যাত্রী যেন এই ড্রাইভার না বলে ড্রাইভার সাহেব বলে সম্বোধন করেন সে পরিবেশ চালককেই তৈরি করতে হবে। প্রশিক্ষকদের বৈশিষ্ট্য, তাদের নেতৃত্ব এমন থাকতে হবে যাতে করে তার হাতে গড়া একজন চালক আদর্শ ও দক্ষ চালক হয়ে উঠতে পারে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। সড়ক নিরাপত্তায় সরকারের গৃহীত বিভিন্ন কর্মকান্ডের প্রশংসা করেন তিনি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ডেপুটি প্রজেক্ট ডিরেক্টর মোঃ কামাল হোসেন বলেন, সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এসইআইপি প্রকল্পে আগামী ৫ বছরের মধ্যে ১০০০ দক্ষ ও শিক্ষিত চালক তৈরি করা হবে সে লক্ষ্যে আমরা সারাদেশ থেকে ১০০জন প্রশিক্ষককে বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ প্রদানের ব্যবস্থা করেছি।

সহকারি নির্বাহী প্রজেক্ট ডিরেক্টর সৈয়দ নাসির এরশাদ বলেন গত কয়েক বছর ধরে সরকারের বার্ষিক প্রবৃদ্ধি ৬ এর ঘরে আছে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে যে এক লক্ষ শিক্ষিত চালক তৈরি হবে তারা দেশে এবং বিদেশে চাকরির মাধ্যমে জিডিপিতে বিশেষ অবদান রাখবেন এবং প্রবৃদ্ধি ৭ এর উপর যাবে।প্রশিক্ষণে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, গোপালগঞ্জ,চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, কুমিল্লা, বরিশাল, সিলেট, দিনাজপুর,নরসিংদী ও উথলী থেকে ২০ জন ড্রাইভিং প্রশিক্ষক অংশ নেন। আলোচনা শেষে তাদের মাঝে সনদ বিতরণ করেন প্রধান অতিথি চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিআরটিএ এর পরিচালক মোঃ সিরাজুল ইসলাম, সহ;পরিচালক মোঃ সানাউল হক, বিকে-টিটিসি’র ভাইস- প্রিন্সিপ্যাল মোঃ দেলোয়ার হোসেন,মোঃ আব্দুল মান্নান। নিরাপদ সড়ক চাই এর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম আজাদ হোসেন, বিকে-টিটিসি’র জব প্লেসমেন্ট অফিসার মোঃ তাহমিদুল ইসলাম প্রমুখ।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)