আপডেট মার্চ ৯, ২০১৯

ঢাকা শনিবার, ১০ চৈত্র, ১৪২৫ , বসন্তকাল, ১৬ রজব, ১৪৪০

জাতীয়, লিড নিউজ বঞ্চনা থেকে মুক্তির নির্দেশনা ছিল ৭ই মার্চের ভাষণে: প্রধানমন্ত্রী

বঞ্চনা থেকে মুক্তির নির্দেশনা ছিল ৭ই মার্চের ভাষণে: প্রধানমন্ত্রী

নিরাপদ নিউজ: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জাতিকে ধাপে ধাপে স্বাধীনতার মন্ত্রে উজ্জীবিত করেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বঞ্চনা থেকে মুক্তির নির্দেশনা ছিল ৭ই মার্চের ভাষণে। তাঁর নির্দেশনা বাঙালি জাতি অক্ষরে অক্ষরে পালন করেছে।

গতকাল শুক্রবার ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ভাষণ : রাজনীতির কবির অমর কবিতা’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ট্রাস্ট রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে এ সেমিনারের আয়োজন করে।

ট্রাস্টের সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর ভাষণ নিয়ে অনেকে অনেক রকম ব্যাখ্যা দেন। তখনকার ছাত্রনেতা এখন যাঁরা জীবিত আছেন, আমি আজকেও একজনের ইন্টারভিউ দেখছিলাম। সেখানে অনেকে নানাভাবে ব্যাখ্যা দিয়ে দিচ্ছেন। আসলে এই ব্যাখ্যাগুলো শুনলে হাসি পায় যে, এরা আসলে কতটা অর্বাচীনের মতো কথা বলে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এই ভাষণে দেখবেন, এখানে কোনো পয়েন্ট নেই, কোনো কাগজ নেই। কারণ তিনি তো সংগ্রাম করে গেছেন সেই ১৯৪৮ সাল থেকে। তখন থেকেই তিনি বাঙালি জাতির মুক্তির জন্য সংগ্রাম করে গেছেন। স্বাভাবিকভাবেই তিনি জানেন মুক্তির পথটি কোথায়, কিভাবে আসবে।’

বঙ্গবন্ধুকন্যা আরো বলেন, “ভাষণে যাওয়ার আগে অনেকেই দিন-রাত পরিশ্রম করেছেন, অনেকে অনেক পয়েন্ট তৈরি করেছেন। অনেকে বলেছেন এটা বলতে হবে, ওটা বলতে হবে, এভাবে বলতে হবে, সেভাবে বলতে হবে। নানা ধরনের কথার মধ্যে আমরা জর্জরিত ছিলাম। অনেক কাগজ আমাদের বাসায় জমা হয়েছিল। শেষ কথা বলেছিলেন আমার মা। যে কথাটি আমি সব সময় বলি। আমার মা একটা কথাই বলেছিলেন, ‘সারাটা জীবন তুমি সংগ্রাম করেছ, তুমি জানো বাংলাদেশের মানুষ কী চায় এবং তার জন্য কী করতে হবে। তোমার থেকে ভালো আর কেউ জানে না। কাজেই তোমার মনে যে কথাটা আসবে, তুমি শুধু সেই কথাই বলবে আর কোনো কথা না।’”

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)