ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট জানুয়ারি ৭, ২০১৫

ঢাকা শনিবার, ৬ শ্রাবণ, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ১৬ জিলক্বদ, ১৪৪০

কৃষি, বরিশাল বরিশাল বিভাগে এগিয়ে চলছে বোরো ধানের আবাদ

বরিশাল বিভাগে এগিয়ে চলছে বোরো ধানের আবাদ

চলছে বোরো ধানের আবাদ

চলছে বোরো ধানের আবাদ

বরিশাল, ০৭ জানুয়ারি ২০১৫, নিরাপদনিউজ : বরিশাল বিভাগে চলতি রবি মৌসুমে বোরো ধানের আবাদ কার্যক্রম এগিয়ে চলছে। বিভাগের মোট ৬টি জেলায় হাইব্রীড, উফশী ও স্থানীয় মিলিয়ে মোট ১ লাখ ৩১ হাজার ৮৫৮ হেক্টর জমিতে এবছর আবাদ কার্যক্রমের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। বিপরীতে গতকাল (৬ জানুয়ারি) পর্যন্ত আবাদ হয়েছে ৩৬ হাজার ৮২ হেক্টর জমিতে।
বরিশাল খামার বাড়ি সূত্র জানায়, বোরো ধানের মোট লক্ষ্যমাত্রার মধ্যে হাইব্রীড ২০ হাজার ৫০৩ হেক্টর, উফশী ১ লাখ ২ হাজার ১৮২ হেক্টর ও ৯ হাজার ১৭৩ হেক্টর জমিতে স্থানীয় জাতসহ মোট ১ লাখ ৩১ হাজার ৮৫৮ হেক্টর জমিতে আবাদের টার্গেট রয়েছে। আর গতকাল পর্যন্ত আবাদ সম্পন্ন হয়েছে হাইব্রীড ১০ হাজার ৯৩৬ হেক্টর, উফশী ১৬ হাজার ৫৪ হেক্টর এবং স্থানীয় ৯ হাজার ৯২ হেক্টর জমিতে। আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে সামনের দিনগুলোতে আবাদ কার্যক্রম লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে বলে সূত্র জানায়।
কৃষি কর্মকর্তারা জানান, বিভাগের ৬টি জেলার মধ্যে বরিশালে ৫৩ হাজার ৫০ হেক্টর জমিতে লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে আবাদ সম্পন্ন হয়েছে ১৯ হাজার ১৮৫ হেক্টর জমি। পিরোজপুরে ১৯ হাজার ৫৪৬ হেক্টরের বিপরীতে ১১ হাজার ৯১২ হেক্টর জমিতে আবাদ। ঝালকাঠীতে ৮ হাজার ৬৪৩ হেক্টর জমিতে টার্গেটের মধ্যে আবাদ ৯৪৫ হেক্টর।
কৃষি কর্মকর্তারা আরো জানান, একইভাবে পটুয়াখালী জেলায় ২ হাজার ১০৫ হেক্টর জমির লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে আবাদ ৯৪ হেক্টর। বরগুনায় ৬১২ হেক্টর জমিতে লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে ১০০ হেক্টর আবাদ। ভোলায় ৪৭ হাজার ৯০২ হেক্টররের বিপরীতে ৩ হাজার ৮৪০ হেক্টর জমিতে আবাদ হয়েছে। এছাড়া প্রতিদিনই আবাদ কার্যক্রম বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে কৃষি কর্মকর্তারা জানান।
সদোর উপজেলার চরমনাই ইউনিয়নের কৃষক লোকমান গাজী, শফিক হালদার ও ছোলেমান মিয়া বলেন, তারা প্রত্যেকে ৫ একর করে বোরো আবাদের জন্য জমি নির্বাচন করেছেন। এখন বীজতলা রোপনে ব্যস্ত তারা। এবছর প্রথম থেকেই আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় বীজতলা তৈরি ও আবাদে কোন সমস্যা হচ্ছেনা। পাশাপাশি কৃষি কর্মকর্তাদের কাছে নিয়মিত পরামর্শমূলক সেবা পাচ্ছেন বলেও জানান তারা।
এ ব্যাপারে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর বরিশাল অঞ্চলের উপ-সহকারী কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা বাসস’কে জানান, বর্তমানে আমন ধান কাটা প্রায় শেষ পর্যায়ে চলে এসেছে। কৃষকরা অপক্ষোকৃত নিচু জমিতে বোরো ধানের আবাদ করছে। ধান আবাদে কৃষকদের সব ধরনের সেবামুলক সহায়তা দেয়া হচ্ছে। তিনি জানান, আগামী মার্চের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত আবাদ কার্যক্রম চলবে। যে পরিমানে আবাদ চলছে তাতে লক্ষ্যমাত্রা শতভাগ পুরনের সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া বর্তমানে প্রায় ২৮ ভাগ জমিতে আবাদ সম্পন্ন হয়েছে। সমনের দিনগুলোতে আবাদ আরো বাড়বে বলে জানান এই কৃষি কর্মকর্তা।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)