ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট জুলাই ১২, ২০১৭

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৩ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ , গ্রীষ্মকাল, ১০ই শাবান, ১৪৩৯ হিজরী

চট্টগ্রাম, ব্যবসা-বাণিজ্য বাংলাদেশের স্টিল ইন্ডাস্ট্রির উন্নয়নে সর্বাত্বক সহযোগীতা দেবে ভারত: সোমনাথ হালদার

বাংলাদেশের স্টিল ইন্ডাস্ট্রির উন্নয়নে সর্বাত্বক সহযোগীতা দেবে ভারত: সোমনাথ হালদার

বাংলাদেশের স্টিল ইন্ডাস্ট্রির উন্নয়নে সর্বাত্বক সহযোগীতা দেবে ভারত

শফিক আহমেদ সাজীব, নিরাপদ নিউজ : আন্তর্জাতিক স্টিল লং প্রোডাক্ট সামিট ২০১৭ গতকাল নগরীর রেডিসন ব্লু হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত সামিটে দেশ ও বিদেশে ব্যবহৃত লং স্টিল পণ্য বিশেষ করে টিএমটি বারের গুণগতমান, বর্তমান টেকসই প্রযুক্তি, আধুনিক মার্কেটিং পলিসি, ভূমিকম্প প্রতিরোধে কি ধরনের টিএমটি বার ব্যবহার করা উচিৎ ইত্যাদি বিষয়ে বিদেশি ও দেশি বিশেষজ্ঞগণ একাধিক বিশেষ সেশনে ভিন্ন ভিন্ন বক্তব্য রাখেন। জার্মানি, ভারত, অষ্ট্রিয়া, তাইওয়ান, চীন, জাপান ও বাংলাদেশসহ আরও বেশ কয়েকটি দেশের প্রতিনিধি সামিটে অংশগ্রহণ করেন।

দেশের স্বনামধন্য শিল্প প্রতিষ্ঠান বিএসআরএম, জিপিএইচ ইস্পাত, আরআরএম, পিএইচপি ফ্যমিলি, আরএসআরএমসহ অনেকগুলো দেশিয় প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করেছে।

বিদেশি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে বিশ্ববিখ্যাত জার্মানির এসএমএস গ্রুপ, প্রাইমমেটাল টেকনোলজি, ইলেক্ট্রোথাম, কনেক্রেনস, এমএইচএম, পেডম্যান, সুইফি, ব্যুমার, আইএমটি সামিটে অংশগ্রহণ করে।

দেশে গড়ে উঠা শিল্পসমূহ কিভাবে উন্নতমানের পণ্য উৎপাদন করতে পারে সে বিষয়েও বিভিন্ন দিক নির্দেশনামুলক বক্তব্য রাখেন, বিশেষজ্ঞগণ। এতে দেশ ও বিদেশের বিভিন্ন স্টলে পণ্য বিষয়ে বিষদ বর্ণনা দেওয়া হয়।

দিনব্যাপী সামিটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন ভারতীয় সহকারী হাই কমিশন সোমনাথ হালদার। অতিথি হিসেবে সামিটটি উদ্বোধন করেন শিল্পপতি ও পিএইচপি ফ্যমিলির চেয়ারম্যান সুফি মুহম্মদ মিজানুর রহমান।

ভারতের স্টীল গ্রুপ’র প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও অজয় থাম্বে’র সভাপতিত্বে সামিটে উপস্থিত ছিলেন, পিএইচপি ইস্পাতের এমডি মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম রিংকু, জিপিএইচ ইস্পাত লিমিটেডের এডিশনাল এমডি আলমাস শিমুল, বিএসআরএমএ’র এক্সিকিউটিভ ডাইরেক্টর তপন সেন গুপ্ত, মওলানা ইস্পাতের চেয়ারম্যান আবুল বাশার মুকুল, আরআরএম চেয়ারম্যান সুমন চৌধুরী, বিএসআরএম হেড অব বিজনেস এম. ফিরোজ ও হেড অব অপারেশন আজিজুল হক, আবুল খায়ের গ্রুপের সিইও ভি.এম. শর্মা, এসএমএস স্টিলের প্রদীপ কুমার ঘোষ, কেএসআরএম এক্সিকিউটিভ ডাইরেক্টর ইনামুল হক, আরএসআরএম এর দেওয়ান মাহবুব ও সোবাইল বিন হোসেন প্রমুখ।

ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার সোমনাথ হালদার বলেন, আধুনিক সভ্যতার ভিত্তি হচ্ছে স্টিল। ভারতীয় অনেক প্রতিষ্ঠানই এখন বিশ্বের স্টিল ইন্ডাস্ট্রিতে নেতৃত্ব দিচ্ছে। প্রতিবেশী ও বন্ধুপ্রতিম দেশ হিসেবে বাংলাদেশের স্টিল ইন্ডাস্ট্রির উন্নয়নে সর্বাত্বক সহযোগীতা দিতে ভারত বদ্ধপরিকর। তিনি বলেন, এ শিল্পে দু’দেশের যৌথ বিনিয়োগ ও দ্বি-পাক্ষিক সহযোগীর ব্যাপারে আমরা আশাবাদী।

সামিটের উদ্বোধক সুফি মুহম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, স্টিল ইন্ডাস্ট্রির কোয়ালিটি,ভ্যালু ক্রিয়েশন, বাজার সম্প্রসারনে এ সামিট ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। কেননা আমাদের দেশে জনপ্রতি স্টিল কনজাম্পশান ১০০ কেজি। সামিটে মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করে ভারত সরকারের স্টিল মিনিস্ট্রির চীফ ইকনমিস্ট ড. এ. এস ফিরোজ ও মডারেটর হিসেবে সেশন পরিচালনা করেন ড. সুসমিতা দাশগুপ্তা।

সামিটের দ্বিতীয় পর্বে বক্তব্য রাখেন, জিপিএইচ ইস্পাতের এডিশনাল এমডি আলমাস শিমুল।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)