ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ডিসেম্বর ৩, ২০১৪

ঢাকা সোমবার, ১ শ্রাবণ, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ১১ জিলক্বদ, ১৪৪০

জাতীয়, রাজধানী সংবাদ, লিড নিউজ বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক বিশ্বের ১৯২ দেশের সাড়ে ৬শ’ কোটি মানুষের নেতৃত্ব দিচ্ছে

বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক বিশ্বের ১৯২ দেশের সাড়ে ৬শ’ কোটি মানুষের নেতৃত্ব দিচ্ছে

ড. শিরিন শারমীন চৌধুরী-সাবের হোসেন চৌধুরী

ড. শিরিন শারমীন চৌধুরী-সাবের হোসেন চৌধুরী

ঢাকা, ডিসেম্বর ০৩ ২০১৪, নিরাপদনিউজ : সিপিএ এবং আইপিইউ’তে বিজয়ের ফলে বাংলাদেশ এখন গণতান্ত্রিক বিশ্বের ১৯২টি দেশের সাড়ে ৬শ’ কোটি মানুষের নেতৃত্ব দিচ্ছে।
পার্লামেন্ট মেম্বারস ক্লাবে আজ দুপুরে পার্লামেন্ট জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের ‘মিট দ্য প্রেস’ অনুষ্ঠানে কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি এসোসিয়েশনের (সিপিএ) নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান ড. শিরিন শারমীন চৌধুরী ও ইন্টারন্যাশনাল পার্লামেন্টারি ইউনিয়নের (আইপিইউ) প্রেসিডেন্ট সাবের হোসেন চৌধুরী সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।
সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তারা জানান, ‘দু’টি আন্তর্জাতিক সংসদীয় সংস্থায় বিজয়ী হওয়ার ফলে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের ১৯২টি দেশের ৬৫০ কোটি মানুষের প্রতিনিধি ৪৫ হাজার সংসদ সদস্যের নেতৃত্ব দিচ্ছে।
সিপিএ ও আইপিইউ’র বিজয়কে বাংলাদেশের গণতন্ত্রের বিজয় উল্লেখ করে জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরিন শারমীন চৌধুরী বলেন, এ বিজয় বাংলাদেশের সংসদীয় গণতন্ত্রের বিজয়, এটি এদেশের গণতন্ত্রকামী মানুষের বিজয়। এটি সরকারি পর্যায়ে বিভিন্ন অর্জনেরও স্বীকৃতি।
পার্লামেন্ট জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি উত্তম চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তৃতা করেন, সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বি মিয়া, পার্লামেন্ট জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি শফিকুল ইসলাম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আশীষ সৈকত, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক কামরান রেজা চৌধুরী।
স্পিকার ড. শিরিন শারমীন চৌধুরী বাংলাদেশের জাতীয় সংসদকে বিশ্বমানের পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার অভিমত ব্যক্ত করে বলেন, গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচন সাংবিধানিক প্রক্রিয়ার মধ্যদিয়ে হয়েছে। বৈধ আইনী প্রক্রিয়ার মধ্যদিয়ে সবাই জয়ী হয়েছেন।
তারা বলেন, ‘৫ জানুয়ারির নির্বাচন না হলে বাংলাদেশের গণতন্ত্র থাকতো না । এ নির্বাচন হয়েছে বলে গণতন্ত্র রক্ষা পেয়েছে। আমাদেরকে গণতন্ত্রের চর্চাকে আরো গতিশীল করতে হবে।’
দশম সংসদে ১৫৩ জনের বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়া সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে স্পিকার বলেন, ‘আরপিওতে বিনা বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার সুযোগ রয়েছে। আরপিও অনুসরনেই এটা হয়েছে। সেখানে স্পষ্ট উল্লেখ রয়েছে কোন আসনে যদি কোন প্রার্থীর বিরুদ্ধে কেউ প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করেন তাহলে ওই প্রার্থী বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হবেন।
সংসদীয় কমিটিগুলোকে আরও বেশি গতিশীল এবং জবাবদিহিতার মধ্যে এনে সংসদের মান বৃদ্ধি করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে আইপিইউ’র প্রেসিডেন্ট সাবের হোসেন চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ বিশ্বের সংসদীয় গণতন্ত্রের নেতৃত্ব দিচ্ছে। আমাদের সংসদকে বিশ্বমানের করে গড়ে তোলার প্রয়াস চালানো হবে, যাতে বাংলাদেশ সংসদ যা করবে তা যেন বিশ্বের অন্যান্য সংসদের জন্য মডেল হয়ে থাকে।-বাসস

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)