ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ৪২ সেকেন্ড

ঢাকা সোমবার, ১০ আষাঢ়, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ২০ শাওয়াল, ১৪৪০

বরিশাল বাউফলে এক সুপারের বিরুদ্ধে মাদ্রাসার নামে জমি দখলের অভিযোগ

বাউফলে এক সুপারের বিরুদ্ধে মাদ্রাসার নামে জমি দখলের অভিযোগ

কামরুল হাসান, নিরাপদ নিউজ: প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ও মাদ্রাসার নামে জমি দখল করার উদ্দেশ্যে নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অফিস কক্ষের দরজা ও আলমিরা ভেঙ্গে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে এক মাদ্রাসা সুপারের বিরুদ্ধে। ওই ব্যাক্তি হলেন পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার রহমতনগর ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার আতিকুর রহমান। গতকাল সোমবার বেলা ১১ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, রামনগর গ্রামের আলী আকবর মুন্সি গংদের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামের আমিনুল ইসলাম রেদোয়ান গংদের ৭৪ শতাংশ জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। কয়েকদিন পূর্বে ওই বিরোধপূর্ন জমি দখল করার উদ্দ্যেশে রহমতনগর ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার নির্ধারিত জমি লিখে একটি সাইনবোর্ড লাগায় রেদোয়ানের ভাই ওই মাদ্রাসার সুপার আতিক। অথচ ওই জমি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। আদালতে ফয়সালা না হওয়া পর্যন্ত ওই জমি কোন পক্ষ ভোগ দখল করতে পারবে না আদালতের এমন নিষেধাজ্ঞাও রয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে মুন্সি আলী আকবর ওই জমির সাইনবোর্ড ভেঙ্গে ফেলে দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ওই মাদ্রাসার সভাপতি রেদোয়ানের নির্দেশে সুপার নিজেই নিজ প্রতিষ্ঠানের অফিস কক্ষের দরজা ও কাঠের আলমিরা ভেঙ্গে ফেলে । আলী আকবর মুন্সি বলেন, ক্রয় ও ওয়ারিশ সূত্রে ওই জমির মালিক আমরা। আমাদের এক ওয়ারিশের কাছ থেকে রেদোয়ান ৩৩ শতাংশ জমি ক্রয় করেন। অথচ মাদ্রাসার নাম দিয়ে তারা ভোগ দখল করার চষ্টা করছে ৭৪ শতাংশ জমি। এতে বাধা দিলে সুপার আমাদেরকে ফাঁসাতে নিজেই মাদ্রাসার আফিস কক্ষের দরজা ও আলমিরা ভেঙ্গে হয়রানি মূলক মামলা করার পায়তারা করছে। তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেন সুপার আতিকুর রহমান।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)